ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১

কাতারের আমির ঢাকায়

শাহজালাল বিমানবন্দরে শেখ তামিমকে লালগালিচা সংবর্ধনা ও গার্ড অব অনার
কাতারের আমির ঢাকায়

দুইদিনের সফরে ঢাকায় পৌঁছেছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। সোমবার বিকেল ৫টায় একটি বিশেষ ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি ও তার সফর সঙ্গীরা। বিমানবন্দরে তাঁকে স্বাগত জানান রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন। এই সময় কাতারের আমিরকে লাল গালিচা সংবর্ধনা ও গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। কাতারের আমির বিমানবন্দরে সালাম গ্রহণের পর উপস্থাপনা লাইনে বাংলাদেশ ও কাতারের প্রতিনিধিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে দীর্ঘ ১৯ বছর পর কাতারের আমির বাংলাদেশে এলেন। শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির  এই সফরে বাংলাদেশ-কাতারের মধ্যে ছয়টি চুক্তি ও পাঁচটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হবে। সফরকালে যে ছয়টি চুক্তি সই হবে, সেগুলো হলো - দ্বৈত কর পরিহার ও কর ফাঁকি সংক্রান্ত চুক্তি, আইনি বিষয়ে সহযোগিতা সংক্রান্ত চুক্তি, সাগরপথে পরিবহন সংক্রান্ত চুক্তি, উভয় দেশের পারস্পরিক বিনিয়োগ উন্নয়ন ও সুরক্ষা সংক্রান্ত চুক্তি, দুদেশের মধ্যকার দ-প্রাপ্ত ব্যক্তিদের বদলি সংক্রান্ত চুক্তি এবং যৌথ ব্যবসা পরিষদ গঠন সংক্রান্ত চুক্তি।

waltonbd
waltonbd
Sopno
Sopno
সরকার ভিন্ন মতের ওপর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে 

সরকার ভিন্ন মতের ওপর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে 

ভিন্ন মতের মানুষের ওপর সরকার নিষ্ঠুর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।  মির্জা ফখরুল বলেন, সাজানো মামলায় ফরমায়েশি রায়ের মাধ্যমে অন্যায়ভাবে সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি নির্বাহী কমিটির সহ-যুব বিষয়ক সম্পাদক ও ঢাকা কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোয় উদ্বেগ প্রকাশ করছি। অবিলম্বে তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও সাজা বাতিল করে  নিঃশর্ত মুক্তির আহ্বান জানাচ্ছি। ফখরুল বলেন, ৭ জানুয়ারির নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে আওয়ামী লীগ শাসকগোষ্ঠী এখন আরও হিং¯্র হয়ে উঠেছে। মিথ্যাচার, ভয়ভীতি প্রদর্শন ও অপকৌশলের মাধ্যমে রাষ্ট্রক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসহ গণতন্ত্রমনা বিরোধী দল, ভিন্ন মত ও পথের মানুষদের ওপর নিষ্ঠুর দমন-পীড়ন চালানো হচ্ছে অব্যাহতভাবে।  ফখরুল বলেন, বানোয়াট মামলায় সাজা প্রদানসহ জামিন নামঞ্জুর করে বিরোধী নেতাকর্মীদের কারাগারে পাঠানোর মাধ্যমে আওয়ামী লীগ সরকার দেশে নব্য বাকশালী শাসন কায়েম করেছে। সারাদেশে প্রতিনিয়ত সরকারের মদতে বানোয়াট মামলায় বিরোধী নেতাকর্মীদের সাজা প্রদানসহ জামিন নামঞ্জুর করা হচ্ছে। মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর ঘটনা আওয়ামী জুলুমেরই আরেকটি বহির্প্রকাশ। দেশে দুঃসময় চলছে ॥ দেশে কঠিন দুঃসময় চলছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত নাগরিক স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। নাগরিক স্মরণ সভার আয়োজন করে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী স্মরণ সভা উদ্যাপন কমিটি।  ফখরুল বলেন, রাজনৈতিক সংকট, অর্থনৈতিক সংকট ভয়াবহভাবে আমাদের আক্রমণ করেছে। এখানে বিচার ব্যবস্থা পুরোপুরিভাবে দলীয়করণ হয়ে গেছে, এখানে অর্থনীতিকে পুরোপুরিভাবে নিজেদের মতো করে তারা সেখানে লুটপাট চালাচ্ছে। আজকে রাজনৈতিক ব্যবস্থাকে ধ্বংস করা হয়েছে, নির্বাচনী ব্যবস্থাকে একেবারে উপড়ে ফেলা হয়েছে। কিছু নেই এখন অবশিষ্ট।  ফখরুল বলেন, ঐক্যের কথা আমরা বলি, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা আমরা বলি, সেই চেতনার লেশমাত্র অবশিষ্ট নেই। যার জন্যে জাফরুল্লাহ চৌধুরী সাহেবরা লড়াই করছিলেন। সেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে যদি আবার আমাদের ফিরিয়ে আনতে হয়, বাংলাদেশকে যদি সত্যিকার অর্থে একটা গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে আমরা পরিণত করতে চাই তাহলে আমাদের অবশ্যই সকলকে নতুন করে চিন্তা করে নতুনভাবে আবার বলীয়ান হয়ে জাফরুল্লাহ চৌধুরীর অনুপ্রেরণায় আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। ফখরুল বলেন, আসুন আমরা এই প্রতিজ্ঞা করি, কে কি বলল সেটা ভাবার দরকার নেই, আমাদের মধ্যে যে আশা, যে আকাক্সক্ষা আছে আমরা যারা একাত্তরে যুদ্ধ করেছি, আমরা যারা গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ দেখতে চেয়েছি, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের জন্য যারা প্রাণ দিয়েছে, যারা গুম হয়েছে তাদের সকলকে সেই সম্মানটুকু দেওয়ার জন্য আমাদের আজকে একটা মাত্র দায়িত্ব সেটা হচ্ছে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে । মির্জা ফখরুল বলেন, ভয়াবহ দুঃশাসন আমাদের সমস্ত ভালো অর্জনগুলোকে কেড়ে নিয়েছে, আমাদের প্রতিমুহূর্তে পঙ্গু করে ফেলেছে, আমাদের পুরোপুরি একটা দাসে পরিণত করছে। সেখান থেকে বেরিয়ে আসতে হলে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এ ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। তিনি বলেন, এই দুঃশাসনের অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য আমরা হাত-পা ছুড়ছি। আমরা যারা রাজনীতি করি, রাজনৈতিক কর্মী আছি তারা বিভিন্নভাবে চেষ্টা করছি। আমি নিজেই নির্বিচারে নির্যাতিত হচ্ছি, অনেকে তাদের জীবন দিচ্ছেন। তার পরও এ সরকারকে সরানো যাচ্ছে না, এটাই  বাস্তবতা।

জেলা-উপজেলায় কমিটি গঠন ও সম্মেলন বন্ধ

জেলা-উপজেলায় কমিটি গঠন ও সম্মেলন বন্ধ

চার ধাপের উপজেলা নির্বাচনের সময় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সব রকম কমিটি গঠন ও সম্মেলন বন্ধ ঘোষণা করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। শনিবার দুপুরে প্রেস ব্রিফিংকালে দলের এ সিদ্ধান্তের কথা জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, উপজেলা পর্যায়ে নির্বাচন হচ্ছে। সামনে প্রথম পর্যায়ের নির্বাচনে ভোট হবে। এই নির্বাচন চলাকালে উপজেলা বা জেলা পর্যায়ে কোনো সম্মেলন, মেয়াদোত্তীর্ণ সম্মেলন ও কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে। মন্ত্রী-এমপির নিকটাত্মীয়দের উপজেলা নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নিকটজনদের নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে হবে। যারা ভবিষ্যতে করতে চায়, তাদেরও নির্বাচনী প্রক্রিয়া থেকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে। যারা আছে, তাদের তালিকা  তৈরি করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সে অনুযায়ী তালিকা  তৈরি করা হচ্ছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগের এমন সিদ্ধান্তের কারণে তৃণমূলের মানুষ ও দলের নেতাকর্মীরা খুশি হয়েছেন। কারণ- আমি এমপি, আমি মন্ত্রী, তাই আমার ভাই, আমার ছেলে সব পদ নিয়ে যাবে- তা হলে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা কী করবে? তাদের কী পদে যাওয়ার অধিকার নেই। তাদের সুযোগ করে দেওয়ার জন্যই এই সিদ্ধান্ত।  দলীয় নির্দেশনা দেওয়া হলেও বিভিন্ন উপজেলায় এখনো মন্ত্রী-এমপির নিকটাত্মীয় নির্বাচনে আছেন- এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রত্যাহারের তারিখ শেষ হোক। তার আগে এ বিষয়ে কীভাবে বলা যাবে? তবে যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে- তা সবাইকে অনুসরণ করতে হবে।  সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি রাজনৈতিক দলের পরিচয় দেওয়ার গ্রহণযোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছে। তাদের (বিএনপি) নিষিদ্ধ করার বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত আমাদের হয়নি। তবে আমরা জনগণের কাছে বিএনপির সন্ত্রাসের রাজনীতির ব্যাপারে ঘৃণার আগুন ছড়িয়ে দিতে পারি।  দেশে রাজনৈতিক সন্ত্রাস বন্ধ করতে হলে বিএনপির রাজনীতি বন্ধ করতে হবে। তিনি বলেন, অনেকেই বলছেন দেশে যদি রাজনৈতিক সন্ত্রাস বন্ধ করতে হয়, তা হলে বিএনপির রাজনীতি বন্ধ করতে হবে। কারণ, বিএনপি শুধু আগুনসন্ত্রাস-মানুষ খুন করে না, যারা এসব কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত, তাদের পৃষ্ঠপোষকও। বিএনপি জনগণের কাছে আরও বিচ্ছিন্ন, আরও অপ্রাসঙ্গিক করে তোলার প্রয়াস আমরা চালাতে পারি। কারণ, বিএনপি এখন রাজনৈতিক দলের পরিচয় দেওয়ার মতো গ্রহণযোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছে। ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, বিএনপিকে কানাডার ফেডারেল আদালত পর্যন্ত সন্ত্রাসী দল হিসেবে চিহ্নিত করেছে। বিএনপি আসলে কোনো রাজনৈতিক দলের  বৈশিষ্ট্য এখন প্রকাশ করে না। তাদের কর্মকাণ্ডে তারা একটা সন্ত্রাসী দল এটাই তাদের বলছি। জামায়াতের প্রকাশ্যে রাজনীতি করার বিষয়ে অপর প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, জামায়াতের প্রকাশ্যে আসার সুযোগ কোথায়? তারা কি নিবন্ধিত দল? তাদের সুযোগটা কে দিল? সভা-সমাবেশ করতে তো অনুমতি লাগবে। তাদের অনুমতি কে দেবে? সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ ও আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, এস এম কামাল হোসেন ও সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

SomajVabna
নোয়াখালীর নতুন গ্যাস কূপে খনন কাজ শুরু

নোয়াখালীর নতুন গ্যাস কূপে খনন কাজ শুরু

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার অম্বরনগর গ্রামে সন্ধান পাওয়া নতুন গ্যাস কূপে খননকাজ শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম এক্সপ্লোরেশন অ্যান্ড প্রোডাকশন কোম্পানি লিমিটেড (বাপেক্স) এর খননকাজ করেছে। প্রকল্পটির নাম দেওয়া হয়েছে বেগমগঞ্জ-৪ (ওয়েস্ট) মূল্যায়ন কাম উন্নয়ন কূপ খনন প্রকল্প। সোমবার সকাল থেকে দুই শতাধিক প্রকৌশলী ও শ্রমিক এ কর্মযজ্ঞে অংশগ্রহণ করছেন। আগামী ১২০ দিন চলবে এ খননের কাজ। কূপটির ড্রিলিং ইনচার্জ মো. আসাদুজ্জামান বলেন, সোমবার দুপুরে আনুষ্ঠানিকভাবে কূপ খননের জন্য ‘ড্রিলিং রিগ’ স্থাপন করা হয়। প্রাথমিকভাবে মাটির নিচে কূপটির ৩২০০ মিটার খননের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

IFIC
IFIC
মহসিন পারফর্মেন্স অ্যানালিস্ট

মহসিন পারফর্মেন্স অ্যানালিস্ট

বাংলাদেশ জাতীয় দলের পারফর্মেন্স অ্যানালিস্ট হিসেবে মহসিন শেখকে নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বিসিবি। দুই বছরের জন্য চুক্তি হয়েছে তার সঙ্গে। আগামী মাসে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকে কাজ শুরু করবেন মহসিন। এর আগে নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশের অ্যানালিস্টের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। তবে সেবার দায়িত্বটা ছিল খ-কালীন। কিউই সফরে বিসিবি মহসিনের কাজ দেখেছে। এবার পূর্ণ মেয়াদে তাকেই দায়িত্বটা বুঝিয়ে দিচ্ছে বিসিবি। পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত মহসিন বিশ্লেষক (ভিডিও) হিসেবে এর আগে আফগানিস্তান জাতীয় দল, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) এবং ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে কাজ করেছেন। এ ছাড়া বিপিএল, পিএসএল এবং বিবিএলের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টেই বিভিন্ন দলের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তারা। ভারত বিশ্বকাপের পরে বাংলাদেশ দলের অ্যানালিস্টের চাকরি ছেড়েছিলেন শ্রীনিবাস চন্দ্রশেখরন।

মোনালিসার কণ্ঠে গান!

মোনালিসার কণ্ঠে গান!

মাইক্রোসফ্ট সম্প্রতি একটি নতুন কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) অ্যাপ চালু করেছে। এটি মানুষের মুখের কথা বলার  মতো করে ভিডিও তৈরি করতে পারে। ঠঅঝঅ-১ নামের এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা মডেলটি ব্যবহার করে ছবি থেকে মানুষের মুখভঙ্গি ও গতিবিধির সঙ্গে মিলিয়ে প্রাণবন্ত ভিডিও তৈরি করতে পারে। এটি হুবহু বাস্তবতার সঙ্গে মিলে যায়।  সম্প্রতি অ্যাপটির  তৈরি একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে, যা মানুষকে অবাক করে দিয়েছে। এআই’র তৈরি করা এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে লিওনার্দো দ্যা ভিঞ্চির আইকনিক পেন্টিং মোনালিসা, অ্যান হ্যাথাওয়ের  ‘পাপারাজ্জি’ গানের সঙ্গে ঠোঁট  মেলাচ্ছে।  সংস্থাটি জানায়, এআই’র ভিডিওগুলো এমনভাবে তৈরি হয়, যা অডিওর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ ঠোঁটের নড়াচড়ার পাশাপাশি মানুষের মুখের অভিব্যক্তি এবং মাথা নড়াচড়াকে স্বাভাবিক দেখাবে। নেটিজেনরা ভিডিওটি দেখার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক ব্যবহারকারী  লিখেছেন,  মোনালিসার  ক্লিপটি  দেখার পর আমি হাসতে হাসতে মেঝেতে গড়াগড়ি খাচ্ছিলাম। অন্য আরেকজন মন্তব্য করেন,  লিওনার্দো দ্যা ভিঞ্চি এটি দেখতে পারলে ভালো হতো। আবার কেউ কেউ এর অনৈতিক ব্যবহার সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন । কারণ বর্তমানে এ রকম ডিপফেক নকল ভিডিও তৈরি করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। ফলে অনেকেই সামাজিকভাবে হেনস্তার শিকার হচ্ছেন। ইউপিআই অবলম্বনে।

ইতালির ভিসা পেতে দুর্ভোগ, পাসপোর্টও ফেরত দিচ্ছে না

ইতালির ভিসা পেতে দুর্ভোগ, পাসপোর্টও ফেরত দিচ্ছে না

ভিসার প্রত্যাশায় পাসপোর্ট জমা দেওয়ার পর দীর্ঘদিনে কাক্সিক্ষত ভিসা না পেয়ে বাংলাদেশস্থ ইতালি দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে ইতালির ভিসা প্রত্যাশীরা। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, ইতালির ভিসা তো দূরের কথা, দীর্ঘদিন পার হলেও ঢাকার ইতালি দূতাবাস ভিসা প্রত্যাশীদের পাসপোর্টই ফেরত দিচ্ছে না। এখন পাসপোর্ট ফেরত পাওয়ার দাবিতে ইতালি দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন তারা।  সোমবার সকাল থেকেই কয়েকশ বাংলাদেশী ভিসাপ্রার্থী গুলশানে ইতালি দূতাবাসের সামনে জড়ো হয়। তাদের হাতে ছিল বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড। তারা এই সময়ে দ্রুততার সঙ্গে পাসপোর্ট ফেরত চান। তবে ইতালির ভিসা ব্যবস্থাপনার সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠান ভিএফএস গ্লোবাল জানিয়েছে, ইতালির ওয়ার্ক ভিসার আবেদনকারীদের সোমবার থেকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট আসা শুরু করবে। আগামী ২ মে থেকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট অনুযায়ী ফাইল জমা নেওয়া শুরু হবে। বিক্ষোভরত ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, ইতালি থেকে স্পন্সর ভিসা নিয়ে ভিএফএস গ্লোবালের মাধ্যমে তারা দূতাবাসে পাসপোর্ট জমা দেন। কিন্তু দেড় থেকে দুই বছর পার হলেও পাসপোর্ট কিংবা ভিসা কোনোটাই পাননি তারা। মানববন্ধনে অংশ নেওয়া কয়েকজন জানান, তাদের অনেকেই মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে বসবাস করতেন। ইতালি যাওয়ার ইচ্ছায় তারা দেশে ফিরে দূতাবাসে ভিসার আবেদন করেন।

বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তি নিতে চায় কিরগিজস্তান ॥ সালমান এফ রহমান

বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তি নিতে চায় কিরগিজস্তান ॥ সালমান এফ রহমান

বাংলাদেশ থেকে দক্ষ জনশক্তি নিতে চায় মধ্য এশিয়ার মুসলিম অধ্যুষিত দেশ কিরগিজ রিপাবলিক। পাশাপাশি বাংলাদেশের সংগে অর্থনৈতিক সম্পর্কও জোরদার করতে চায় দেশটি। সোমবার বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ বিনিয়োগ ভবনে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের সংগে বৈঠক শেষে এসব কথা জানান ঢাকা সফররত কিরগিজ রিপাবলিকের ডেপুটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আভাজবেক আতাখানভ। প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা বলেন, তৈরি পোশাক শিল্প, শিক্ষাসহ নানা খাতে দুদেশের সহযোগিতা বৃদ্ধির সুযোগ আছে। দুদেশই এসব সুযোগ কাজে লাগাতে চায়। এ ছাড়াও কৃষি ও প্রযুক্তি খাতেও কাজ করতে পারে দুই দেশ।  সালমান এফ রহমান এমপি বলেন, দুই দেশের সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বৃদ্ধির অনেক সুযোগ রয়েছে। বাংলাদেশী প্রায় এক হাজার মেডিক্যাল শিক্ষার্থী দেশটিতে অধ্যয়ন করছে।

সময়মতো বিজিএপিএমইএ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে শঙ্কা

সময়মতো বিজিএপিএমইএ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে শঙ্কা

গোঁজামিলের তফসিলের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ গার্মেন্ট এক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএপিএমইএ) দ্বিবার্ষিক নির্বাচন ২০২৪-২৬। আগামী ১১ মে এই নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে, তবে নির্বচানকে কেন্দ্র করে মামলা আর বারবার উকিল নোটিসের ঘটনায় সময়মতো নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।  সোমবার ছিল চূড়ান্ত প্রার্থী এবং প্রত্যাহারকৃত প্রার্থী তালিকা প্রকাশের শেষ দিন। তবে প্রার্থীরা এখন পর্যন্ত জানেন না ঢাকা ও চট্টগ্রামে কিভাবে নির্বাচন হবে। গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে বিজিএপিএমইএ বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বাণজ্যি মন্ত্রনালয়ের উপ-সচিব ড. মো. রাজ্জাকুল ইসলাম বলেন, সমিতির সংঘবিধি অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনী তফসিলে বলা হয়েছে পরিচজালনা পরিষদে ২১ জন পরিচালকের মধ্যে ১৬ জন ঢাকার কারখানার সদস্যদের মধ্য থেকে এবং ৫ জন চট্টগ্রামের কারখানার সদস্যদের মধ্য থেকে নির্বাচিত হবেন।  একজন ভোটার কতটি ভোট দেবেন বা অন্যান্য বাণিজ্য সংগঠনের মতো সব প্রার্থীকে ভোট দিবেন কি-না এ ব্যাপারে সুস্পষ্ট কিছু উল্লেখ না থাকার বিষয়টি জানতে চাইলে রাজ্জাকুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে তারা এখনো কিছু জানেন না। আগামী বুধবার প্রার্থীদের সঙ্গে আলাপ করে তারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন। এ ছাড়া চট্টগ্রামে নির্বাচন অনুষ্ঠান হবে কি-না এ ব্যাপারেও বুধবারের সভায় তারা সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানান।

শেয়ারবাজারে দরপতন ঠেকাতে তিন সিদ্ধান্ত

শেয়ারবাজারে দরপতন ঠেকাতে তিন সিদ্ধান্ত

কিছুদিন ধরেই শেয়ারবাজারে টানা দরপতন চলছে। এই দরপতন ঠেকানোর উপায় খুঁজে বের করতে বাজার মধ্যস্থতাকারীদের সঙ্গে বৈঠক করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সোমবার বিকেল ৩টায় বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে বিএসইসির প্রধান কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে শেয়ারবাজারের উন্নয়নে তিনটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।   এ সময় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ব্রোকারেজ হাউসগুলোর সংগঠন ডিএসই ব্রোকারেজ অ্যাসোসিয়েশন (ডিবিএ), মার্চেন্ট ব্যাংকারদের সংগঠন বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএমবিএ) এবং প্রধান ১০টি ব্রোকারেজ হাউসের শীর্ষ নির্বাহীরা উপস্থিত ছিলেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, শেয়ারবাজারের বর্তমান সংকট থেকে উত্তরণে প্রাথমিকভাবে তিনটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এগুলো হলো- প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের ডিলার অ্যাকাউন্ট থেকে বাজারে সর্বোচ্চ সহযোগিতা প্রদান, ব্যাংকের ট্রেজারি প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করে বিনিয়োগ সক্রিয় করা এবং মিউচুয়াল ফান্ডকে শক্তিশালী করা। সভায় বিএসইসির কমিশনার ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, শেয়ারবাজারের অংশীজন এবং ব্রোকাররা বাজারের সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত হয়ে কাজ করছেন। নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি বাজার সংশ্লিষ্টদের মতামত গুরুত্ব সহকারে মূল্যায়ন করে থাকে এবং শেয়ারবাজারের বিভিন্ন বিষয়ে বাজার সংশ্লিষ্টদের মতামত ও পরামর্শ এর মাধ্যমে দেশের শেয়ারবাজারের সমৃদ্ধি নিশ্চিত করাই বিএসইসির লক্ষ্য।