মানুষ মানুষের জন্য
শোক সংবাদ
পুরাতন সংখ্যা
সোমবার, ২৮ জুলাই ২০১৪, ১৩ শ্রাবণ ১৪২১
আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ
০ বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপার্সন
০ প্রস্তুত জাতীয় ঈদগাহ্
০ টিভি চ্যানেলগুলোয় থাকছে আনন্দ আয়োজন
স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘ওরে ও নতুন ঈদের চাঁদ/তোমার হেরে হৃদয় সাগর আনন্দে উন্মাদ/তোমার রাঙা তশতরিতে ফিরদৌসের পরী/খুশির শিরনি বিলায় রে ভাই নিখিল ভুবন ভরি/খোদার রহম পড়ছে তোমার চাঁদনী রূপে ঝরি/দুঃখ ও শোক সব ভুলিয়ে দিতে তুমি মায়ার ফাঁদ।’ বছর ঘুরে আবারও এলো খুশি, হাসি আর আনন্দের ঈদ। শেষ হচ্ছে মাসব্যাপী সিয়ামসাধনা। চন্দ্রমাসের হিসাব অনুযায়ী আজ শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে আগামীকাল মঙ্গলবার উদ্যাপিত হবে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর। তবে চাঁদ না দেখা গেলে ঈদ পালিত হবে বুধবার। এরই মধ্যে সারাদেশে বইছে আনন্দের ঝর্ণাধারা। . . .
অবশেষে স্বস্তির ঘরে ফেরা, প্রকৃতিও ছিল যোগাযোগমন্ত্রীর পক্ষে
নৌপথে কপ্টার টহল, ট্রেনে সিডিউল বিপর্যয়, বাস সঙ্কট থাকলেও নির্বিঘ্ন যাত্রা
রাজন ভট্টাচার্য ॥ এবারের ঈদে সড়কপথে ঈদ যাত্রা নিয়ে সবচেয়ে বেশি আতঙ্ক ছিল। ঢাকা-ময়মনসিংহ-টাঙ্গাইল-চট্টগ্রামের রাস্তা খারাপ হওয়ার কারণেই আতঙ্ক আরও বাড়ে। গুরুত্বপূর্ণ তিনটি মহাসড়কে ফোর লেনের কাজ চলায় রাস্তা ছিল বেহাল। শেষ পর্যন্ত যোগাযোগমন্ত্রীর কঠোর পরিশ্রমে অবিরাম ছুটে চলা মানুষকে স্বস্তিতে বাড়ি ফিরতে সহযোগিতা করেছে। দ্রুত রাস্তা সংস্কারের জন্য সড়ক ও জনপথের প্রকৌশলীদের ছুটি বাতিল করা হয়। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে রাস্তার কাজ শেষ না হলে শাস্তিরও হুমকি দিয়েছিলেন মন্ত্রী। কথাও রেখেছেন তিনি। বিভিন্ন এলাকায় . . .
সার্কুলার রোড ও নৌরুট চালুর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
রাজধানীর চার পাশের নদী দূষণমুক্ত করে নাব্য ফেরান
বিশেষ প্রতিনিধি ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকার চারপাশের নদীগুলো দূষণমুক্ত করে এবং নাব্য ফিরিয়ে এনে রাজধানীকে ঘিরে বৃত্তাকার নৌ ও সড়কপথ চালু করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে ঢাকার পরিবেশের ইতিবাচক পরিবর্তন হবে। এ প্রকল্প আমাদেরই করা, আমাদেরই বাস্তবায়ন করতে হবে। সার্কুলার রোড ও নৌরুট হলে পণ্য পরিবহন ও জনপরিবহন সহজতর হবে। রবিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বুড়িগঙ্গা নদীসহ ঢাকা মহানগরীর চারপাশের প্রবহমান নদীগুলো পুনরুদ্ধার এবং ঢাকা মহানগরীর চারদিকে বৃত্তাকার নদীপথ . . .
এবারও দেশের বৃহত্তম জামাত শোলাকিয়া ঈদগাহে
নিজস্ব সংবাদদাতা, কিশোরগঞ্জ, ২৭ জুলাই ॥ দেশের সর্ববৃহৎ ঈদ জামাতের জন্য যথারীতি এবারও প্রস্তুত কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ। মাঠে পড়া সুন্নতে মোয়াক্কাদা এবং যে জামাতে মুসল্লি যত বেশি হয় ছওয়াবও তত বেশি হয় ও গুনাহ মাফ হয়-এ বিশ্বাস থেকেই দেশ-বিদেশের লাখ লাখ মুসল্লি এ ঈদগাহে নামাজ পড়তে আসেন। এ মাঠের জামাতের প্রতি মুসল্লিদের আকর্ষণ ক্রমেই বাড়ছে। ফলে প্রতিবছরই জামাতের কলেবর বৃদ্ধি পাচ্ছে, এর সঙ্গে ছড়িয়ে পড়ছে মাঠের সুনাম। ঈদের জামাতকে সামনে রেখে প্রশাসন ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। পৌর কর্তৃপক্ষের . . .
খালেদা জিয়া ও রওশনকে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা
বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং জাতীয় সংসদের বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা। রবিবার পৃথক দুটি ঈদকার্ড পাঠিয়ে দু’নেত্রীকে শুভেচ্ছা জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদের শুভেচ্ছা কার্ড রবিবার খালেদা জিয়ার গুলশানের কার্যালয়ে পৌঁছে দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী জানান, বিকেল সোয়া চারটার দিকে প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল অফিসার শেখ আক্তার হোসেন প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা কার্ডটি পৌঁছে দেন। খালেদা . . .
গ্রামে যাচ্ছেন- সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র আপনার পাশে, সাবধান!
ঈদের ছুটিতে পুলিশী নিরাপত্তা জোরদার, থাকছে বোরকাপরা লেডি কনস্টেবল টিম
শংকর কুমার দে ॥ সাবধান! এবারের ঈদে টানা নয় দিনের লম্বা ছুটি। লম্বা ছুটিতে নির্জনতার ফাঁকে সংঘটিত হয় গণচুরি, গণডাকাতি, গণছিনতাইসহ নানা ধরনের অপরাধ। এ জন্য ছুটির আনন্দে মেতে থাকার পাশাপাশি সতর্ক ও সাবধান করে দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। সতর্ক ও সাবধান না হলে পড়তে পারেন অপরাধী চক্রের খপ্পরে। বিপদ আসতে পারে অসাবধানতার কারণে। বিশেষ করে ঈদের ছুটিতে যারা গ্রামের বাড়িতে যাবেন তাঁদের বাড়িতে বা ফ্ল্যাটে চুরি কিংবা গণচুরি হতে পারে। ঈদের ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে আসা ও যাওয়ার পথে অপরিচিত ব্যক্তি প্রলোভনের টোপ দিয়ে নেশা . . .
জোরালো প্রমাণ না পাওয়া পর্যন্ত দুধ খেতে নেই মানা
ক্ষতিকর উপাদানের অস্তিত্ব নিয়ে ধোঁয়াশা
আজাদ সুলায়মান ॥ কমল প্রসাদ দাস বিএসটিআইর পরিচালক। পণ্যের মানের সনদ প্রদানই তাঁর কাজ। ক’দিন বাদে অবসরে যাবেন। বয়স ষাটের কাছাকাছি। তিনি নিরামিষভোজী। জীবনে মাছ মাংস খাননি কখনও। শুধু শাকসবজি আর দুধই তাঁর পুষ্টির প্রধান উপাদান। নাগরিক জীবনে তাকে প্যাকেটজাত পাস্তুরিত দুধই খেতে হচ্ছে। তা খেয়েই দিব্যি সুস্থ আছেন। জীবনে সামান্য সর্দিজ্বর ছাড়া আর কোন রোগবালাই তাঁকে পায়নি। তিনিই জনকণ্ঠের কাছে পাল্টা প্রশ্ন রেখেছেন, যদি দুধে এলড্রিনই থাকত, তাহলে কি তার স্বাস্থ্যের জন্য সেটা চরম ক্ষতিকর হতো না? যেভাবে . . .
বিবিএসের জরিপ ॥ দেশে দারিদ্র্য কমে ২৫ দশমিক ৬ শতাংশ
অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশে দারিদ্র্যের হার কমে দাঁড়িয়েছে ২৫ দশমিক ৬ শতাংশে, যা ২০১০ সালে ছিল ৩১ দশমিক ৫ শতাংশ। গত ৩০ জুন পর্যন্ত এক হিসেবে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) সূত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে। এ সময়ে চরম দারিদ্র্য হার ১৭ দশমিক ৬ শতাংশ থেকে কমে দাঁড়িয়েছে ১২ দশমিক ৪ শতাংশে। এ বিষয়ে পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব নজিবুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ দারিদ্র্য নিরসনে ব্যাপক অগ্রগতি অর্জন করেছে। এটি উঠে এসেছে হাউস হোল্ড ইনকাম এন্ড এক্সপেনডিজার সার্ভেতে (হেইজ)। এই জরিপে খানার আয়-ব্যয়, . . .
এবার চাঁদরাত ঘিরে ব্যবসায়ীদের প্রস্তুতি
রহিম শেখ ॥ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ। তাই ব্যবসায়ীদের প্রস্তুতি এবার চাঁদরাত ঘিরে। ওই রাতের জন্য অনেক ব্যবসায়ী সারা মাস অপেক্ষার প্রহর গোনেন। অনেকেই কেনাকাটা করেন ঈদের চাঁদ দেখার পর। সারারাত মার্কেট, বিপণিবিতান, শপিংমল আর ফুটপাথ ঘুরে ঈদের কেনাকাটা করেন। কেনাকাটায় প্রায়ই বিশেষ ছাড় কিংবা স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রি করেন ব্যবসায়ীরা। বিক্রেতারা জানিয়েছেন, আজ সোমবার চাঁদ দেখা গেলে সারারাতই তাদের মার্কেট খোলা থাকবে। গত কয়েক বছরের কেনাবেচার হিসাব করলে দেখা যায়, চাঁদরাতে সবচেয়ে বেশি ক্রেতা কেনাকাটা করে থাকেন। ঈদ . . .
সচিবালয় ফাঁকা, ব্যাংকে দীর্ঘলাইন
বিশেষ প্রতিনিধি ॥ ঈদের ছুটির আগে শেষ কার্যদিবসে প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয় অনেকটাই ফাঁকা। রবিবার সকালে অফিস খোলার পর অনেক কর্মকর্তা-কর্মচারী হাজিরা দিয়েই গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। তবে শেষ কর্মদিবসে ব্যাংকপাড়ার চিত্র ছিল ভিন্ন। সেখানে প্রাণচাঞ্চল্য লক্ষ্য করা গেছে। লেনদেন ছিল স্বাভাবিক। অন্যান্য দিনের মতো কাউন্টারে ছিল লম্বা লাইন। বেলা সাড়ে ১১টার পর সচিবালয়ের বিভিন্ন দফতরে খুব কমসংখ্যক কর্মকর্তা-কর্মচারীকেই টেবিলে দেখা গেছে। সচিবালয়ে দর্শনার্থীদের অভ্যর্থনা কক্ষটিও ছিল ফাঁকা। সচিবালয়ে . . .
আজ যেসব এলাকায় ঈদ-উল-ফিতর উদযাপিত হবে
জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সৌদি আরব তথা মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশের সঙ্গে মিল রেখে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ঈদ উদযাপন করা হবে আজ সোমবার। যেসব অঞ্চলে আজ পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করা হবে সেগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো সাতক্ষীরা, মাদারীপুর, পটুয়াখালীর বাউফল, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া, বরিশালের বাবুগঞ্জ ও দক্ষিণ চট্টগ্রাম জেলা। এর মধ্যে সাতক্ষীরার দুই গ্রামে, মাদারীপুরের ৪ উপজেলার ৫০ গ্রামে, বাউফলের ১০ গ্রামে, মঠবাড়িয়ার ৫ গ্রামে, বাবুগঞ্জের ৪ গ্রামে এবং দক্ষিণ চট্টগ্রামের ৬০ গ্রামের মানুষ ঈদ-উল-ফিতর . . .
ঈদের আনন্দ- কদর বেড়েছে দশ হাজার কাঁটাওয়ালা মাছ ইলিশের
সমুদ্র হক ॥ ঈদের আনন্দে সেমাই লাচ্ছা গোশত দই মিষ্টির সঙ্গে পরিবর্তনের পালায় দশ হাজার কাঁটাওয়ালার একেকটি মাছ যোগ হয়েছে। বাঙালীর শিকড়ের ঐতিহ্যের আনন্দ বলে কথা। তা ঈদ হোক আর অন্য কোন উৎসব পার্বনই হোক। সেখানে কি শুধু সেমাই গোশত হলেই চলে। এবারের ঈদে একেবারে গোধুলী বেলার (প্রান্ত বেলা) কেনাকাটায় বাজারে গিয়ে সকলেই খুঁজছে মাছের রাজা ইলিশ। কদর বেড়েছে ইলিশের। বিশ্ববরেণ্য শেফ অমিতাভ চক্রবর্ত্তীর কাছ থেকে পাওয়া কাঁটার হিসাব নিয়ে বাঙালী সাহিত্যিক শংকর তাঁর ‘বাঙালীর খাওয়াদাওয়া’ গ্রন্থে বর্ণনা করেছেন, . . .
যাত্রী হয়রানি ও নাশকতা এড়াতে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রেলের
মশিউর রহমান ॥ যাত্রী হয়রানি ও সকল প্রকার নাশকতা এড়াতে ঈদ সামনে রেখে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। সারাদেশের সকল রেলস্টেশনে যাত্রীদের নিরাপত্তা বিধানে পূর্বের যে কোন সময়ের চেয়ে বেশি তৎপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। রেল কর্তৃপক্ষের নিজস্ব ৪ হাজারের অধিক নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ছাড়াও প্রয়োজন অনুযায়ী দেশের সকল স্টেশনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে ঈদে যাত্রী চলাচলে যাতে কোন ধরনের অসুবিধা না হয় সে জন্য রেলওয়ে স্টেশন ও স্টেশনসংলগ্ন এলাকায় নিরাপত্তা . . .
আলবিদা মাহে রমজান
অধ্যাপক মনিরুল ইসলাম রফিক ॥ দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর এখন পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর অত্যাসন্ন। ঈদ-উল-ফিতর মানে রোজা ভাঙ্গার উৎসব। গত একমাস ধরে সিয়াম সাধনার মধ্যে দিয়ে রোজাদার যে কঠিন পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়েছে, আজ তা থেকে উত্তীর্ণের সময় ক্রমেই ঘনিয়ে এসেছে। চতুর্দিকে তাই আজ ঈদের আমেজ সুস্পষ্ট। মুসলিম সমাজ জীবনে ঈদ-উল-ফিতরের অবারিত আনন্দধারার তুলনা চলে না। কারণ, প্রথমত এ আনন্দোৎসবের আমেজ গরিবের পণ্য কুটির হতে ধনীর বালাখানা পর্যন্ত সমানভাবে মুখরিত। শহর নগর গ্রামগঞ্জ সর্বত্র এর ঢেউ বিবৃÍত। দ্বিতীয়ত . . .