ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১

ফ্রেঞ্চ ওপেন থেকে সরে দাঁড়ালেন ফেভারিট এলিনা রিবাকিনা

শেষ ষোলোতে স্টিফেন্স ও সিতলিনা

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ২৩:৫১, ৩ জুন ২০২৩

শেষ ষোলোতে স্টিফেন্স ও সিতলিনা

জয়ে উৎফুল্ল ইউক্রেনের টেনিস তারকা এলিনা সিতলিনা

ফ্রেঞ্চ ওপেনের শেষ ষোলোতে জায়গা করে নিয়েছেন স্লোয়ানে স্টিফেন্স এবং এলিনা সিতলিনা। তবে অসুস্থতার কারণে রোঁলা গ্যারোঁর তৃতীয় রাউন্ড থেকেই নাম প্রত্যাহার করে নিলেন আসরের অন্যতম ফেভারিট এলিনা রিবাকিনা। 
আমেরিকার অভিজ্ঞ তারকা স্লোয়ানে স্টিফেন্স দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচে শুক্রবার জুলিয়া পুতিনসেভার মুখোমুখি হয়েছিলেন। শেষের হাসিটাও হাসেন ২০১৮ সালে ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালের টিকিট কাটা স্টিফেন্স। ম্যাচের ফলাফল ৬-৩, ৩-৬ এবং ৬-২। পুতিনসেভাকে হারাতে এদিন তার লাগে ২ ঘণ্টা ২৩ মিনিট। সেইসঙ্গে ক্যারিয়ারের নবমবারের মতো এই টুর্নামেন্টের চতুর্থ রাউন্ডের টিকিট কাটেন তিনি। ফ্রেঞ্চ ওপেনে এটা তার সবমিলিয়ে ৩৫তম জয়। যা যে কোনো গ্র্যান্ডস্লামের চেয়েই সর্বোচ্চ। তবে পরের রাউন্ডেই অগ্নিপরীক্ষা দিতে হবে ২০১৭ সালে ইউএস ওপেনের শিরোপাজয়ী স্টিফেন্সকে।

যেখানে তার প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন এরিনা সাবালেঙ্কা। বেলারুশ সুন্দরী এবার দুর্দান্ত ফর্মে। তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে তিনি ৬-২ এবং ৬-২ গেমে উড়িয়ে দিয়েছেন কামিল্লা রাখিমোভাকে। সেইসঙ্গে এই প্রথম ফ্রেঞ্চ ওপেনের শেষ ষোলোর টিকিট নিশ্চিত করেছেন তিনি। চলতি মৌসুমে গ্র্যান্ডস্লামে এখন পর্যন্ত খেলা ১০ ম্যাচের সবটিতেই জয়ের স্বাদ পেয়েছেন সাবালেঙ্কা। স্লোয়ানে স্টিফেন্সের বিপক্ষেও তাই হট ফেভারিট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের চ্যাম্পিয়ন। 
আরেক ম্যাচে এলিনা সিতলিনা তিন সেটের কঠিন লড়াইয়ের পর প্রথম সেটে হেরে গিয়েও শেষ পর্যন্ত ২-৬, ৬-২ এবং ৭-৫ ব্যবধানে হারান এনা ব্লিঙ্কোভাকে। প্রতিপক্ষকে হারাতে এদিন তিনি সময় নেন ২ ঘণ্টা ২১ মিনিট। পরের ম্যাচে ইউক্রেনের এই তারকার প্রতিপক্ষ রাশিয়ার দারিয়া কাসাতকিনা। গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকেই ইউক্রেনের ওপর সামরিক আগ্রাসন চালাচ্ছে রাশিয়া। সেই প্রভাব টেনিসেও দেখা যায়। ইউক্রেনের খেলোয়াড়রা রাশিয়া এবং বেলারুশের খেলোয়াড়দের সঙ্গে হাত মেলান ন। এমন প্রভাব সিতলিনা-কাসাতকিনার ম্যাচেও দেখা যেতে পারে।

তবে এবারের টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত সেরা অঘটন এলিনা রিবাকিনার সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা। শনিবার অসুস্থতা জনিত কারণে টুর্নামেন্টের তৃতীয় রাউন্ড থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নেন তিনি। এর ফলে ওয়াকওভারে শেষ ষোলোতে জায়গা করে নেন স্প্যানিশ টেনিস তারকা সারা সোরিবেস টোর্মো। এবারের ফ্রেঞ্চ ওপেনে মেয়েদের মধ্যে যে ক’জন হট ফেভারিট তাদের মধ্যে অন্যতম রিবাকিনা। কাজাখস্তানের এই তারকা গত মৌসুমেই উইম্বলডনের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। চলতি মৌসুমেও কোর্টে দুর্দান্ত গতিতে ছুটছিলেন।

খেলেছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনাল। জিতেছেন ইন্ডিয়ান ওয়েলসের পাশাপাশি ইতালিয়ান ওপেনের শিরোপাও। কিন্তু  ফ্রেঞ্চ ওপেনে তার সামনে বাধা হয়ে দাঁড়ালো ইনজুরি। ডাক্তার অবশ্য এটাকে ভাইরাস বলছে। কিন্তু রিবাকিনা বলেন, ‘দুইদিন ধরে ভালোভাবে ঘুমাতে পারিনি। জ্বর এবং প্রচ- মাথাব্যথা। আমি মনে করি, আমার কণ্ঠ শুনেও আপনারা এর তীব্রতা অনুভব করতে পারছেন।’ 
এদিকে ফ্রেঞ্চ ওপেনের তৃতীয় রাউন্ডের বাধা অতিক্রম করেছেন বেলজিয়ামের এলিস মার্টেন্সও। এদিন তিনি ৬-১ এবং ৬-৩ ব্যবধানে হারান আমেরিকার জেসিকা পেগুলাকে। আরেক ম্যাচে রাশিয়ার কাসাতকিনা ৬-০ এবং ৬-১ ব্যবধানে উড়িয়ে দেন পেগুলারই স্বদেশী পেইটন স্টিয়ার্নসকে। ফ্রেঞ্চ ওপেনে এবার আলো ছড়াচ্ছেন বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কু। টানা দুই ম্যাচ জিতে যে তৃতীয় রাউন্ডে জায়গা করে নিয়েছেন কানাডিয়ান তরুণীও। কয়েক বছর আগে ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতে বিশ্ব টেনিসের পাদপ্রদীপের আলোয় উঠে এসেছিলেন আন্দ্রেস্কু। এরপর আর সেভাবে জ্বলে উঠতে দেখা যায়নি তাকে। তবে এবার ফ্রেঞ্চ ওপেনে আশা দেখাচ্ছেন তার ভক্ত-অনুরাগীদের। বিশেষ করে নিজের প্রথম ম্যাচেই গ্র্যান্ডস্লামজয়ী ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কাকে বিদায় করায় তার প্রত্যাশাটাও বেড়ে গেছে। দ্বিতীয় রাউন্ডের বাধাও অতিক্রম করেছেন খুব সহজে।

×