ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১

মেসি ও হাকিমির গোলে পিএসজির জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ২৩:০১, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

মেসি ও হাকিমির গোলে পিএসজির জয়

পিএসজির দুই গোলদাতা মেসি ও হাকিমির মধ্যে শুভেচ্ছা বিনিময়

পিছিয়ে পড়েও ফরাসি লিগ ওয়ানের ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ জয় পেয়েছে প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইন (পিএসজি) শনিবার রাতে সফরকারী টুলুসকে - গোলে হারিয়েছে প্যারিসের পরাশক্তিরা। প্যারিসের পার্ক দ্য প্রিন্সেস স্টেডিয়ামে ম্যাচের ২০ মিনিটে ডাচ মিডফিল্ডার ব্রাঙ্কো ভ্যান ডেন বোমেনের গোলে এগিয়ে যায় অতিথি টুলুস। এরপর ৩৮ মিনিটে মরক্কোন তারকা আশরাফ হাকিমি ৫৮ মিনিটে বিশ্বকাপজয়ী লিওনেল মেসির গোলে স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পিএসজি। এই জয়ে ২২ ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে অবস্থান করছে আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

ইনজুরিতে থাকা কিলিয়ান এমবাপে নেইমারকে ছাড়া ম্যাচটি খেলে পিএসজি। এর আগে মন্টিপিলিয়ারের বিরুদ্ধে - গোলের জয়ের ম্যাচে উরুর ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়ে তিন সপ্তাহের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন ফরাসি তারকা এমবাপে। যে কারণে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখের বিরুদ্ধে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে খেলতে পারবেন না বিশ্বকাপের গোল্ডেন বুট জয়ী এই তারকা ফরোয়ার্ড। আর পেশীর ইনজুরির কারণে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে বিশ্রামে থাকেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। কারণে ২০ বছর বয়সী হুগো একিটিকেকে নিয়ে পিএসজির আক্রমণভাগ সামলানোর দায়িত্ব পান মেসি। তাদের সহযোগিতা করেন ভিটিনহা কার্লোস সোলার।

কিন্তু কোচ ক্রিস্টোফে গাল্টিয়ারের দলের সমস্যা ছিল অন্য জায়গায়। ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস ইনজুরিতে, নিষেধাজ্ঞার কারণে দলে নেই মার্কো ভেরাত্তি। ইনজুরিতে পড়ে মাত্র ১২ মিনিটে মাঠ ছেড়ে চলে আসতে বাধ্য হন রেনাটো সানচেজ। মৌসুমের শুরুতে লিলি থেকে প্যারিসে আসার পর নিয়ে মাত্র পঞ্চম ম্যাচে মূল একাদশে খেলার সুযোগ পান পর্তুগিজ মিডফিল্ডার সানচেজ। কিন্তু হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে তিনি মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন। তার পরিবর্তে মাঠে নামেন টিনএজ ডিফেন্ডার এল চাডাইলে বিটশিয়াবু। ডানিলো পেরেইরাকে মধ্যমাঠে খেলানো হয়। সানচেজ বের হয়ে যাওয়ার পর বিপাকে পড়ে স্বাগতিকরা। এরপরও শেষ পর্যন্ত স্বস্তির জয় পেয়েছে পিএসজি। 

ম্যাচ শেষে পিএসজি কোচ ক্রিস্টোফার গাল্টিয়ের বলেন, মেসি পুরো দলকে সমন্বিত করে খেলেছে। শুধুমাত্র এমবাপে কিংবা নেইমার অনুপস্থিত নয়, দলে পাইনি মার্কো ভেরাত্তি সার্জিও রামোসকে। যে কারণে নেতৃত্বের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতে হয়েছিল মেসিকে। সেই মানসিকতা নিয়েই সে মাঠে নামে। সপ্তাহের মাঝামাঝিতেও তাকে এই ভূমিকায় দেখা যাবে। মেসি যেভাবে খেলছে, সেটা এই মুহূর্তে দলের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

আমাদের তাকে আরও বেশি করে বল জোগান দিতে হবে। আরেক ম্যাচে লিলির কাছে - গোলে বিধ্বস্ত হয়ে ঘরের মাঠে টানা ১১তম জয় থেকে বঞ্চিত হয়েছে রেনে। ট্রয়েসকে একই ব্যবধানে পরাজিত করে অলিম্পিক লিঁও ইউরোপিয়ান আসরে জায়গা করে নেওয়ার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। এই ম্যাচে ইনজুরি সময়ে তৃতীয় গোল করে মৌসুমে ১৬ নম্বর গোল করার কৃতিত্ব দেখিয়েছেন ফ্রান্সের অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার আলেক্সান্ডার লাকাজেট্টে।

×