বুধবার ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

লড়াকু ওজনিয়াকির অবসর

  • আয়ান আব্রাজ

চলতি বছরেই ঊনত্রিশে পা রেখেছেন ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। খেলাটা চালিয়ে যাওয়ার এখনও যথেষ্ট সময় আছে তার। কিন্তু না। এই সময়েই নিজেকে থামিয়ে রাখার সিদ্ধান্ত নিলেন ডেনমার্কের এই টেনিস তারকা। আগামী বছরের জানুয়ারিতে হতে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ান ওপেন শেষেই টেনিস কোর্টকে বিদায় জানাবেন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বান ওয়ান। মেয়েদের টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ে বর্তমানে ৩৭ নম্বরে থাকা ক্যারোলিন ওজনিয়াকি সর্বশেষ গত অক্টোবরে চীন ওপেনে অংশগ্রহণ করেছিলেন। এরপর আর কোন টুর্নামেন্টে খেলেননি তিনি। অবসর প্রসঙ্গে ক্যারোলিন ওজনিয়াকি বলেন, ‘আমি সবসময় নিজেকে বলেছি, যখন সময় আসবে আমি বিদায় জানাব। সেই সময়টা চলে এসেছে। গত কয়েক মাসে আমি বেশ ভাল করে বুঝেছি, টেনিস কোর্টের বাইরেও আমার অনেক দায়িত্ব আছে।’

একটি গ্র্যান্ডসøামসহ ক্যারিয়ারে ওজনিয়াকির মোট একক শিরোপা ৩০। ডব্লিউটিএ ফাইনাল জেতার স্বাদ পাওয়া এই তারকা তিনবার খেলেছেন অলিম্পিকে। ক্যারিয়ারের সেরা অর্জন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের শিরোপা উঁচিয়ে ধরা ২০১৮ সালে স্বপ্নের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট জয়ের স্বাদ পান ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। দীর্ঘ প্রতিপক্ষার পর ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর শিরোপার স্বাদ পান তিনি। ফাইনালে সিমোনা হ্যালেপকে পরাজিত করে অসামান্য এই কীর্তি গড়েছিলেন ওজনিয়াকি। ৪৩তম প্রচেষ্টায় এসে জিতেন ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর টুর্নামেন্টের শিরোপা। ডেনমার্কেরও প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের অবিস্মরণীয় কীর্তি গড়েছিলেন ওজনিয়াকি।

তবে এই পথটা সহজ ছিল না মোটেও। ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম জয়ের জন্য দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হয়েছে তাকে। এজন্য লড়াই করতে হয়েছে প্রায় এক যুগ। ২০০৫ সালে কয়েকটি জুনিয়র টুর্নামেন্টে অংশ নিয়ে সে বছরেই টেনিস কোর্টে আলো ছড়িয়ে প্রাদপ্রদীপের আলোয় ওঠে আসেন ওজনিয়াকি। তবে সিনিয়র পর্যায়ে বিশ্ব টেনিসপ্রেমীদের নজরে আসেন ২০০৯ সালে। ইউএস ওপেনে খেলতে নেমে সেবারই ফাইনালে জায়গা করে নেন তিনি। ডেনমার্কের প্রথম প্রমীলা খেলোয়াড় হিসেবে কোন গ্র্যান্ডসøামের ফাইনাল খেলার বিস্ময়কর কীর্তি গড়েন ওজনিয়াকি। কিন্তু ফাইনালে বেলজিয়ামের কিম ক্লাইস্টার্সের কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় তার। তবে পরের বছরই নতুন কীর্তি গড়েন। বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানটি দখল করে নেন তিনি। টেনিস ইতিহাসের পঞ্চম খেলোয়াড় হিসেবে কোন গ্র্যান্ডসøাম না জয়ের পরও র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ওঠার বিরল কীর্তি গড়েন ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। এরপর অনেকটা সময় কোর্টে লড়াই করে গেছেন নিয়ম করে। কিন্তু বহুল কাক্সিক্ষত গ্র্যান্ডস্লাম জিততে অপেক্ষা করতে হয়েছে ২০১৮ সাল পর্যন্ত। ক্যারিয়ারের প্রথম মেজর শিরোপার স্বাদ পাওয়ার পর নিজের অভিতম প্রকাশ করতে গিয়ে ওজনিয়াকি বলেন, ‘অনেক বছর ধরেই এই শিরোপার জন্য অপেক্ষা করছিলাম আমি। আমার কণ্ঠ এখনও কাঁপছে। আমি কখনোই কাঁদিনি। কিন্তু এই মুহূর্তটা সত্যিই আবেগের। না কেঁদে আর থাকতে পারিনি।’

এদিকে ওজনিয়াকির চেয়ে এক বছরের বড় ডোমিনিকা সিবুলকোভা। স্লোভাকিয়ান তারকা কোন মেজর শিরোপাই জিততে পারেননি। তথাপি গত মাসে টেনিসকে বিদায় বলে দেন ডোমিনিকা সিবুলকোভা। হঠাৎ করেই এই সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সর্বশেষ চলতি বছরের মে মাসে কোর্টে নেমেছিলেন সিবুলকোভা। কিন্তু দুর্ভাগ্য তার। ফ্রেঞ্চ ওপেনের শুরুটা মোটেও ভাল করতে পারেননি তিনি। তবে সেই ইভেন্টই যে তার ক্যারিয়ারের শেষ টুর্নামেন্ট হবে নিজের টিম ছাড়া কাউকেই জানাননি সিবুলকোভা। যে কারণেই বিদায় বেলায় এই বিষয়টাকে অদ্ভুত বলে মন্তব্য করেন ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি উচ্চতার এই তারকা খেলোয়াড়। সিবুলকোভা বলেন, ‘আমি জানতাম। আমার টিমও বিষয়টা জানাত। কিন্তু এছাড়া আর কেউ জানেনি যে সেটাই হবে আমার ক্যারিয়ারের শেষ টুর্নামেন্ট। এ বিষয়টি সত্যিই অবাক করার মতো। সেই সময়ে আমি ১০০ ভাগ নিশ্চিত ছিলাম। হ্যাঁ বলব নাকি না বলব এ নিয়ে আমার মধ্যে কোন রকমের সংশয় ছিল না। কেননা, আমি জানতাম যে এমনটাই হবে আমার। আমার জন্য এটাই হবে শেষ টুর্নামেন্ট। সেই টুর্নামেন্টের শেষে আমি বাড়ি ফিরে যাই এবং আমার সিদ্ধান্ত নিয়ে আমি খুব সুখেই ছিলাম।’

নামের পাশে কোন গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্ট নেই সিবুলকোভার। তবে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালের টিকেট কেটেছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে। সেই ফাইনালের টিকেট কেটেই ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছিলেন সিবুলকোভা। স্লোভাকিয়ার প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দুর্ভাগ্য তার। শিরোপার লড়াইয়ে সেবার চীনের লি নার কাছে হেরে যান ডোমিনিকা। সেই লি নাও টেনিসকে বিদায় বলেছেন আরও আগে। সুদীর্ঘ পেশাদার ক্যারিয়ারে ২১টি একক টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলেছেন তিনি। হার্ড ঘাস এবং ইন্ডোরে তার শিরোপা জয়ের সংখ্যা ৮। ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিং তার চতুর্থ। ২০১৭ সালের ২০ মার্চ অসামান্য এই কীর্তি গড়েছিলেন তিনি। স্লোভাক প্রজাতন্ত্রের হয়ে কোন খেলোয়াড়ের জন্য এখন পর্যন্ত এটাই সেরা র‌্যাঙ্কিং। তবে শেষটা মোটেও ভাল ছিল না। অবসরের সময়ে শীর্ষ ৩০০ জনের তালিকাতেও ছিল না তার নাম। সিবুলকোভা-ওজনিয়াকিরা যখন বিদায় বলছেন তখনও টেনিস কোর্টে লড়াই করে যাচ্ছেন ভেনাস উইলিয়ামস, সেরেনা উইলিয়ামস, ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা, মারিয়া শারাপোভার মতো তারকারা। যদিওবা পারফর্মেন্সের বিচারে তাদের মধ্যে আলো ছড়াতে পারছেন কেবল একজনই। সেরেনা উইলিয়ামস ছাড়া বাকিদের পারফর্মেন্স খুব ভাল নয়।

শীর্ষ সংবাদ:
লুটপাটে নিঃস্ব গ্রাহক ॥ পি কে হালদারের থাবা         অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হোন অপচয় করা যাবে না         তামিমের সেঞ্চুরি- বাংলাদেশের দাপট         প্রকল্প কমিয়ে অর্থায়ন বাড়িয়ে উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন         জাতীয় সরকারের নামে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেয়া হবে না         চুরি, ছিনতাই করতে কক্সবাজার থেকে ঢাকা আসত ওরা         পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণের উপায় খুঁজছে সরকার         অর্থপাচারকারীরা কোন দেশে গিয়েই শান্তি পাবে না         সিলেটে কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দী         সড়ক যেন ধান শুকানোর চাতাল, প্রাণ গেল বাইক আরোহীর         অবশেষে তথ্য অধিকার আইনে তথ্য দিল পুলিশ         ভোলায় বেইলি ব্রিজ ভেঙ্গে ট্রাক অটোরিক্সা খালে         ১১ ডিজিটের নতুন নম্বরে বিপাকে গ্রাহক         কিউআর কোড দিয়ে ভুয়া নিয়োগপত্র দিত ওরা         জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি         জনগণের অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হতে হবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         বাস্তব শিক্ষার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করার আহ্বান শিক্ষা উপমন্ত্রীর         ডলারের দাম ১০২ টাকার বেশি         সিলেটে বন্যার আরও অবনতির আশঙ্কা         কানের ভেন্যুতে ‘মুজিব’-এর পোস্টার