শুক্রবার ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ইমরুলের লক্ষ্য জয়

ইমরুলের লক্ষ্য জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আবাহনী লিমিটেড, গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স, প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাব জয় তুলে নিয়েছে। আজ ঢাকা লীগে আরও তিনটি দলের জয় পাওয়ার পালা। সেই তিনটি দল কারা হবে? এ প্রশ্ন যখন ঘুরপাক খাচ্ছে, তখন মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে শক্তিশালী মোহামেডানের সঙ্গে কুলিয়ে উঠতে পারবে ব্রাদার্স? এ প্রশ্নও উঠছে। দলের নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস তো জয়েই দৃষ্টি দিচ্ছেন। বলেছেন, ‘আশাকরি কাল (আজ) যদি আমরা ভাল ক্রিকেট খেলতে পারি, ফল অবশ্যই আমাদের দিকেই আসবে।’

প্রতিপক্ষকে কিভাবে দেখছেন? এ প্রশ্ন উঠতেই সাংবাদিকদের জানিয়ে দেন ইমরুল, ‘আমি বলব মোহামেডান অবশ্যই ভাল একটি সাইড। আমাদের সাইডও ভাল। আশাকরি কাল (আজ) যদি আমরা ভাল ক্রিকেট খেলতে পারি, ফল অবশ্যই আমাদের দিকেই আসবে। কিন্তু চেষ্টা করব কন্ডিশন এবং সবকিছু মিলিয়ে যেহেতু প্রথম ম্যাচ, উইকেটটা দেখতে হবে, তারপর চিন্তা করতে হবে কিভাবে ব্যাটিং করা যায়। তো আমরা চেষ্টা করব ভাল ক্রিকেট খেলার।’ উইকেট দেখার কথা বললেন ইমরুল। ঢাকা লীগের এবারের আসর শুরু হয় শুক্রবার। সেদিন মিরপুরে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ও প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের মধ্যকার খেলা হয়। সেই খেলায় শুরুতেই ৫০ ওভারে ৩০৩ রান করে গাজী গ্রুপ। তাতেই বোঝা যাচ্ছে, ব্যাটিং ভাল করলেই রান স্কোরবোর্ডে অনেক বেশি যোগ করা সম্ভব। উইকেটের বিষয়টি উঠতেই ইমরুল জানান, ‘হ্যাঁ, এখন দেখে মনে হচ্ছে উইকেট ভালই আছে। তিনটি ভেন্যুর উইকেট তিনরকম হবে। উইকেট দেখে আমরা সিদ্ধান্ত নিব ব্যাটিং না বোলিং; কোনটা নেয়া যায়। এছাড়া ম্যানেজমেন্ট আছে। আর যদি ব্যাটিং করি আশাকরি কিছু করার চেষ্টা করব।’ বড় দলেই এবার খেলছেন ইমরুল। ব্রাদার্সের মতো দলে খেলার সুযোগ পেয়েছেন। ইমরুলের কাছে তাই প্রশ্নও ছোড়া হলো, আবাহনী বা ব্রাদার্স; এমন ঐতিহ্যবাহী ক্লাবগুলোতে খেলা কি কখনও মানসিক চাপ দেয়? ইমরুল বললেন, ‘দেখুন, একটা সময় আমার মনে হয় দর্শকদের চাপ ছিল। এই বিষয়টা এখন বদলে গেছে। তো আমার মনে হয় এখন সবাই ক্রিকেটটা বুঝছে, বাংলাদেশে যে খারাপ ভাল দুটিই হবে। আমার মনে হয় ওইরকম অবস্থা এখন আর নেই। পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে এটাকে আপনাকে মানিয়ে নিতে হবে। এটা মানিয়ে নেয়া প্রত্যেকটা খেলোয়াড়ের দায়িত্ব।’ চরম গরম। এমন অবস্থায় খেলা খুবই কঠিন। এরপরও ক্রিকেটাররা কঠোর পরিশ্রম করে খেলছেন। এমন অবহাওয়ায় যে দল আগে ব্যাটিং করবে তাদের জন্যই ভাল। পরে ব্যাটিং করা দলকে আগে ফিল্ডিং করে ক্লান্ত হয়ে পড়তে হচ্ছে যে। আবহাওয়ার যে অবস্থা প্রথমে ফিল্ডিং করে ব্যাটিং করাটা কতোটা কঠিন হবে? ইমরুল জানালেন, ‘আবহাওয়ার যে অবস্থা তাতে আগে ব্যাটিং করলে সব ব্যাটসম্যানের জন্য প্লাস পয়েন্ট হবে। ফুল এনার্জি নিয়ে ব্যাটিং করতে পারবে। ৫০ ওভার ফিল্ডিং করার পর ব্যাটিং করতে গেলে অবশ্যই এনার্জির একটা সমস্যা হয়। এটা নির্ভর করছে উইকেটের ওপর। উইকেট যদি কঠিন থাকে তাহলে তো সব ব্যাটসম্যানকে এটা স্যাক্রিফাইজ করতে হবে, মানিয়ে নিতে হবে।’ গতবছর নবেম্বরের পর বাংলাদেশ দল টি২০ ছাড়া আর কোন ম্যাচই খেলেনি। তাই ইমরুলেরও ৫০ ওভার কিংবা টেস্ট খেলা হয়নি। এতোদিন পর নতুন করে শুরু করাটা চ্যালেঞ্জিংই হওয়ার কথা। ইমরুলও তা মানছেন, ‘অবশ্যই সবার জন্য এটা ভাল সুযোগ। কারণ, সামনে অনেকগুলো সিরিজ আছে বাংলাদেশ দলের, যারা জাতীয় দলে আছে তাদের জন্য। এই টুর্নামেন্টটা প্রত্যেকটা খেলোয়াড়ের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আমার মনে হয় সবাই সিরিয়াসলিই নেবে এবং ব্যক্তিগত পারফর্মেন্স করার জন্য সবাই চেষ্টা করবে।’

শীর্ষ সংবাদ:
১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড ॥ আমিনবাজারে ছয় ছাত্র হত্যা         যে কোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা প্রস্তুত         এইচএসসি পরীক্ষা শুরু, ১৪ লাখ পরীক্ষার্থী         ১৬ ডিসেম্বর শপথ করাবেন শেখ হাসিনা         আলেশা মার্টের কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা         প্রয়োজনে ফের বন্ধ হতে পারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ॥ দীপু মনি         কোটি কোটি শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যের বই         যানজটে বাজেটের ২০ শতাংশ ক্ষতি হচ্ছে         পাহাড় ও সমতলের ব্যবধান ক্রমেই কমছে         এবার বন্দুকযুদ্ধে প্রধান আসামি নিহত         খালেদাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে দেয়া হোক ॥ ফখরুল         একটি মহল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করে ফায়দা লুটতে চায়         ময়লার ট্রাকের ধাক্কায় এবার বৃদ্ধা আহত, চালাচ্ছিল হেলপার         ৭০ কারাকর্মকর্তা ও কর্মচারীর অর্থের খোঁজে দুদক         অভিবাসীরা বাংলাদশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে         বিজয় দিবসে দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী         দাম কমল এলপি গ্যাসের         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১         ‘ওমিক্রন’: বিমানবন্দরে ল্যাবের সংখ্যা বৃদ্ধি করা হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         ঢাকার যানজটে বছরে জিডিপির ক্ষতি আড়াই শতাংশ