ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

আজ ফার্নান্দেসের ওপরও থাকবে নজর

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৩৯, ২৪ নভেম্বর ২০২২

আজ ফার্নান্দেসের ওপরও থাকবে নজর

ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো

পর্তুগালের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল ফুটবলারের নাম ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো। দেশটির ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ, সবচেয়ে বেশি গোলের রেকর্ডধারী এই ফরোয়ার্ডই তাই কাতার বিশ্বকাপের মূল ভরসা। তবে ২০২২ বিশ্বকাপে বাড়তি নজর থাকবে ব্রুনো ফার্নান্দেসের ওপরও। এমনকি ফার্নান্দো সান্তোসের দলের তুরুপের তাসও বনে যেতে পারেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের এই পর্তুগিজ মিডফিল্ডার।
কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ইউরোপ অঞ্চলে তুলনামূলকভাবে সহজ গ্রুপে পড়েছিল পর্তুগাল। আয়ারল্যান্ড, সার্বিয়া, লুক্সেমবার্গ ও আজারবাইজানের সমন্বয়ে গড়া গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হবে বলেই ধরে নিয়েছিল অনেকেই। কিন্তু তা পারেনি ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর দল। বরং সার্বিয়ার পেছনে থেকে গ্রুপে দ্বিতীয় সেরা হয় তারা। যার কারণে খেলতে হয় প্লে-অফ। সেখানে নর্থ মেসিডোনিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে জায়গা করে নেয় বিশ্বকাপের মূল পর্বে। আর সেই ম্যাচের দুটি গোলই করেছিলেন ব্রুনো ফার্নান্দেস।
৩৭ বছর বয়সী রোনাল্ডোর জন্য এটাই হতে যাচ্ছে শেষ বিশ্বকাপ। তাছাড়া মাঠের পারফর্মেন্সেও তেমন ঔজ্জ্বল্য ছড়াতে পারছেন না সিআর সেভেন। অন্যদিকে দারুণ সময় পার করছেন ব্রুনো ফার্নান্দেস। জাতীয় দল এমনকি ক্লাব ফুটবলেও তার পারফর্মেন্স বেশ প্রশংসনীয়। ২০২০ সালের শীতকালীন দল-বদলে স্বদেশী ক্লাব স্পোর্টিং লিসবন থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দিয়েছিলেন ফার্নান্দেস।

এরপর থেকেই ক্লাবটির গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার হয়ে উঠেন তিনি। ২৮ বছর বয়সী এই পর্তুগিজ তারকা এখন পর্যন্ত রেড ডেভিলদের জার্সিতে খেলেছেন ১০০ ম্যাচ। এই সময় ইউনাইটেডের হয়ে করেছেন ৩৮ গোল। পর্তুগালের জার্সিতে ৪৯ ম্যাচে ১১ গোল করেন তিনি।

জাতীয় দল পর্তুগাল আর ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডেও ব্রুনোর সতীর্থ ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো। কিন্তু সম্প্রতি জোর গুঞ্জন শুরু হয় যে তাদের মধ্যে সম্পর্কটা আর উষ্ণ নেই। তবে বিষয়টি উড়িয়ে দেন তারকা মিডফিল্ডার ব্রুনো। তিনি জানান, রোনাল্ডোর সঙ্গে তার কোনো সমস্যা নেই। কাতার বিশ্বকাপে আজ নিজেদের প্রথম ম্যাচে ঘানার মুখোমুখি হবে ফার্নান্দো সান্তোসের দল। তার আগে সম্প্রতি পর্তুগালের অনুশীলনে দেখা হয় রোনাল্ডো-ব্রুনোর। তাদের সাক্ষাতের একটি একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

সেটা দেখে দুজনের মধ্যে যথেষ্ট আন্তরিকতা নেই বলে ব্যাখ্যা দাঁড় করান অনেকে। ভিডিওতে দেখা যায়, হাসিমুখে ড্রেসিংরুমে ঢুকে এক সতীর্থের সঙ্গে হাত মেলান ব্রুনো। তখন পাশেই দাঁড়ানো ছিলেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনাল্ডো। তিনি হাত বাড়িয়ে দেন করমর্দন করতে। ব্রুনো তখন ব্যস্ত ছিলেন ব্যাগ রাখতে। সেটা রেখে পর্তুগিজ অধিনায়ক রোনাল্ডোর চোখের দিকে না তাকিয়ে হাত মিলিয়ে দ্রুত ঘুরে যান তিনি। সিআর সেভেন কিছুটা অবাক হয়ে ঠায় দাঁড়িয়েছিলেন। খানিক পর ঘুরে ব্রুনোকে কিছু একটা বলতে দেখা যায়। এতে দুজনের মধ্যকার সম্পর্ক শীতল বলে জল্পনা-কল্পনা দানা বাঁধে অনেকের মধ্যে।
তবে ব্রুনো সাফ জানিয়ে দেন, রোনাল্ডোর সঙ্গে কোনো দ্বন্দ্ব নেই তার, ‘আমার কারও সঙ্গে কোনো সমস্য নেই। আমি আমার কাজ করি। আপনার নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, নিজের সেরাটা দিতে হবে এবং এগুলোই আসল।’ বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে পঞ্চমবারের মতো বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়া রোনাল্ডোর প্রশংসাও করেন তিনি। ব্রুনো বলেন, ‘আপনি খুব বেশিবার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পান না। ক্রিস্টিয়ানো পাঁচবার বিশ্বকাপ খেলার মাধ্যমে খুব দারুণ করছে এবং এটা তার পঞ্চম বিশ্বকাপ।

monarchmart
monarchmart