ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

নান্দনিক কুর্তি

কারিমুন্নেছা হক

প্রকাশিত: ২০:১০, ২৬ মে ২০২৪; আপডেট: ২০:১২, ২৬ মে ২০২৪

নান্দনিক কুর্তি

.

তীব্র গরমে জনজীবনে নেমে এসেছে এক ধরনের অস্বস্তি। কিন্তু থেমে নেই প্রাত্যহিক কাজকর্ম। তাই স্বস্তি পেতে সবার পোশাক পরিধানে এসেছে পরিবর্তন। গরমে টিনএজ থেকে বৃদ্ধ সবাই পড়ছে ঢিলেঢালা পোশাক। কাপড়ে এসেছে নানা বৈচিত্র্য। তবে গরমে পড়ার জন্য সুতি কাপড়ের জয়জয়কার বরাবরই।

ফারজানা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে এক বছর হলো। শৈশব থেকেই বেশ ফ্যাশনেবল। সাজ থেকে পোশাক সবকিছুতেই খুব সচেতন। গ্রীষ্মকালীন তাপপ্রবাহের কারণে এ সময়ে তার পছন্দের অন্যতম পোশাক কুর্তি। অনামিকার কাছে বিভিন্ন রং ও প্যাটার্নে তৈরি কুর্তির সংগ্রহ রয়েছে। ভোরবেলা ভার্সিটিতে যাওয়ার সময় কনফিউজড হয়ে যান কোনো ড্রেসটি পরবেন। কিছুদিন ছুটি কাটিয়ে যেহেতু ভার্সিটিতে যাচ্ছেন, তাই প্রিয় একটি কুর্তি ও ডেনিম কাপড়ের প্যান্ট এবং স্লিপার পরেই চলে গেলেন তার গন্তব্যে। এভাবেই অনামিকার দিন শুরু হয়। হাল ফ্যাশনে টপস ও কুর্তি অনামিকার মত সকল কিশোরী মেয়েদের পছন্দের শীর্ষে। এগুলো কেনাকাটা করাও বেশ সহজ। বর্তমানে দর্জিবাড়ির চাহিদা আকাশচুম্বী। তাই বানানোর ঝামেলা ছাড়াই পরার জন্য কিনতে পারেন কুর্তি এবং এর সঙ্গে পরুন যে কোনো প্যান্ট অথবা পালাজ্জো। যারা ওড়না পরতে অভ্যস্ত তারা এর সঙ্গে হিজাব পরতে পারেন। বর্তমানে সকল মার্কেটেই পাওয়া যাচ্ছে নান্দনিক কাপড় ও ডিজাইনের হিজাব। কুর্তিতে আরামের পাশাপাশি পাওয়া যায় ফ্যাশনেবল লুকও।

যেহেতু চলছে গরমকাল তাই যে পোশাকই নির্বাচন করা হোক না কেন কাপড়ের দিকে নজর রাখতে হবে। তা যেন হয় আরামদায়ক। এক্ষেত্রে বেছে নিতে হবে সুতি ও লিলেনের মতো নরম কাপড়। তবে যারা সুতিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন না তারা পরতে পারেন শিফন কাপড়ের ড্রেস।

বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজে ফ্লোরাল, ট্র্যাডিশনাল পেইসলে, জ্যামিতিক, মিক্সড মোটিফে তৈরি করা পোশাক সারিতে রয়েছে রেগুলার কুর্তি, টপস। জর্জেট, সুতি ও লিনেন কাপড়ে স্কিন প্রিন্ট, ব্লক, ভেজিটেবল ডাই, অ্যাম্ব্রয়ডারি ইত্যাদি কাজ করা কুর্তির চাহিদাই বেশি। এর হাতায়ও রয়েছে ভিন্নতা। অধিকাংশ কুর্তিতে শোভা পাচ্ছে পাফ, ফ্রিল, রাফেল, থ্রি কোয়ার্টার, শর্ট হাতা এবং বুকের অংশে কাজ, প্রিন্ট, টাই-ডাই ইত্যাদি। কিছু কিছু পোশাকের কোমরের নিচের অংশে কুচি ও ঝালর থাকে। কোমর থেকে নিচের অংশে আলাদা রঙের কাপড়ও থাকে। কুর্তির রয়েছে নানা ডিজাইন ও নাম। শার্ট স্টাইল, হাই লো, টিউনিক, ফ্রন্ট টাই ইত্যাদি। এসব পরতে পারেন পার্টি অথবা বন্ধুদের আড্ডায়ও। যা আপনাকে আরাম দেবে এবং দেখাবে ফ্যাশনেবল।

কোথায় পাবেন : লা রিভ, রঙ বাংলাদেশ, অঞ্জনস, আড়ং, সারা, ইয়োলো, ক্যাটস আইসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজে নান্দনিক ডিজাইনের টপস পাবেন। কম বাজেটের মধ্যে চাইলে নিউমার্কেট, মৌচাক, নুরজাহান ও অনন্যা মার্কেট থেকে নিতে পারেন। তবে কাপড়ের মানে কিছুটা তারতম্য হতে পারে।

দরদাম : দেশীয় ফ্যাশন হাউসে যেসব কুর্তি রয়েছে, সেগুলোর দাম পরবে ১ হাজার থেকে ৩ হাজারের মধ্যে। অন্যান্য মার্কেটে পাবেন ৫০০ থেকে ১৫০০ টাকার মধ্যেই।  

 

×