ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

শীতে আরামদায়ক হুডি

এ কে রাসেল

প্রকাশিত: ০১:৩৩, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

শীতে আরামদায়ক হুডি

.

পুরুষের ফ্যাশনে হুডির জনপ্রিয়তা বেশ। যুগে যুগে হুডির ব্যবহার নজর কেড়েছে। বয়স কোনো বাধা হিসেবে পথ আগলে দাঁড়ায়নি। ছোট থেকে বড় যেকোনো বয়সী, হুডি যেন সবার প্রিয়। রঙে আর ঢঙে বিভিন্ন পার্থক্য হুডিকে করে তুলেছে আকর্ষণীয়। প্যাটার্নেও এসেছে নানা রকম বৈচিত্র্য। এমনকি হাতা ছাড়া হুডিও বেছে নিচ্ছেন তরুণরা। ফ্যাশনপ্রেমীদের পোশাকটির প্রতি আকর্ষণ বরাবরই প্রচুর। শুধু এক রং নয়, প্রিন্টের হুডিরও জনপ্রিয়তা বেশ। দুই বন্ধু ঘুরছিলেন শীত পোশাকের বাজারে। বন্ধুরা মিলে যাবেন সমুদ্র তীরে ঘুরে আসতে। বেশ কয়েকদিনের পরিকল্পনা। কেমন পোশাক হবে সময়ের জন্য উপযোগী, তা নিয়ে দুই বন্ধুর অনেক ভাবনা। শেষ পর্যন্ত তারা সিদ্ধান্ত নিলেন হুডি কিনে নেওয়ার। কেন সিদ্ধান্ত- জানা গেল, হুডি একইসঙ্গে আরামদায়ক এবং স্টাইলিশ। আবার চাইলে কানও ঢেকে নেওয়া যায়। আলাদা করে খুলে রাখার ঝামেলা নেই। বিভিন্ন রঙে পাওয়া যায় বলে একঘেয়ে অনুভূতিও দেয় না। এসব কারণেও তারা বেছে নিয়েছেন হুডি। শীতের সময়ে নিত্যদিনের ব্যবহার থেকে শুরু করে বন্ধুদের আড্ডা কিংবা দূরের পথে ঘুরে আসতে হুডি হতে পারে উপযুক্ত সঙ্গী।

একটা সময় হুডি ব্যবহার হতো শুধু জ্যাকেটেই। জিপারওয়ালা বা জিপার ছাড়া বড় পকেট থাকত তাতে। জরুরি জিনিস বহন করা, আবার মাথা ঢাকা দুটো প্রয়োজনই মিটত। তবে এখন রূপ বদলেছে। শুধু জ্যাকেট নয়, সোয়েটার, টি-শার্ট নানা ধরনের পোশাকেই হুডি জুড়ে দেওয়া হচ্ছে। এতে বাড়ছে গ্রহণযোগ্যতা। নানা ধরনের পোশাক এখন বেছে নেওয়ার সুযোগ থাকছে ফ্যাশনপ্রেমীদের কাছে। ছেলে-মেয়ে উভয়ের কাছেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে হুডি। শুধু সোয়েটারে নয়, মেয়েদের জন্য করা হচ্ছে নানা কাটের টপ। সঙ্গে থাকছে হুডি। ছেলেদের ফুলসিø হুডি টি-শার্ট, হুডি শার্ট, হুডি জ্যাকেট, হুডি সোয়েটার, ব্রুকলাইন হুডি সোয়েটার, সিøভলেস হুডি, ব্যাটম্যান হুডির পাশাপাশি হুডিওয়ালা টি-শার্টগুলোর চাহিদা বেশি।

বর্তমানে মানুষের কাছে মাফলার বাড়তি ঝামেলা হিসেবে বিবেচিত হওয়ায় সেটার কদর কমে এসেছে। বেশিরভাগ মানুষই এখন মাফলার দিয়ে কান না ঢেকে স্টাইল হিসেবে গলায় বাঁধছে। তাহলে শীতে কান ঢাকার কী হবে? তাই শীত উপলক্ষে সবাই এখন হুডিওয়ালা পোশাকই বেছে নিচ্ছেন। বছর হুডি টি-শার্টে ডিজাইনের বৈচিত্র্য বেশি দেখা যাচ্ছে। সাধারণত এক রঙা, বিভিন্ন প্রিন্ট আর ব্লকের কাজ করা হুডিগুলো ফুলহাতা। আর হুডি জ্যাকেটের মধ্যে কটন, লেদার জিন্স আইটেমগুলো বেশ জনপ্রিয়। এবারের হুডি জ্যাকেটগুলোও একরঙার পাশাপাশি বিভিন্ন রঙে দেখা যাচ্ছে। হুডিতে ফ্লোরাল, এনিম্যালসহ নানা ধরনের মোটিফ নজর কাড়ছে। অনেক ফ্যাশন হাউস হালের ডুডলকে তুলে এনেছে হুডিতে। জীবনযাপনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নানা বিষয় ক্ষেত্রে পাচ্ছে প্রাধান্য। রোজকার জীবনে বহুল প্রচলিত বিষয়, সংকেত, পণ্য, প্রযুক্তিকে মোটিফে রূপদান করে নকশা করা হচ্ছে হুডির।

অন্যদিকে মেয়েদের সুতি, জর্জেট কাপড়ের পোশাকের সঙ্গেও হয়েছে হুডির সংযোজন। এসেছে নানা রঙের স্ট্রাইপ দেওয়া হুডি টপ। খাটো হাতার এসব টপের সঙ্গে বিপরীত রঙের টি-শার্ট পরা যেতে পারে। যেগুলোর মধ্যে ছাই, কালো, ঘন নীল, মেরুন বেশি দেখা যাচ্ছে। চামড়ার তৈরি হুডসহ জ্যাকেট বহন করে এক ধরনের আভিজাত্য। এর দাম তুলনামূলক বেশি। মূল পোশাকের সঙ্গে সংযুক্ত হুডির পাশাপাশি, নিয়মিত পোশাকের সঙ্গেও ব্যবহার করতে পারেন হুডি। আর বটমে থাকতে পারে প্যান্ট অথবা স্কার্ট। প্যান্ট বেছে নিলে ডেনিম মানাবে সব চেয়ে বেশি। চাইলে অন্য ফেব্রিকের প্যান্টও বেছে নিতে পারেন। তবে প্যাটার্নের ক্ষেত্রে ফিটিং প্যান্ট মানাবে। রঙের ক্ষেত্রে টপ এবং বটম দুটোই এক রং না বেছে নিয়ে ভিন্ন রং বেছে নিলে বেশ মানানসই লাগবে দেখতে। হুডির সঙ্গে ছেলেরা পরতে পারেন ঘড়ি। আর মেয়েরা হাতে ঘড়ি অথবা ব্রেসলেটকে সৌন্দর্যের অনুষঙ্গ হিসেবে বেছে নিতে পারেন। দেশীয় প্রায় সব ফ্যাশন হাউসেই এখন হুডি পাবেন। এগুলোর মধ্যে আছে প্লাস পয়েন্ট, এক্সট্যাসি, ক্যাটস আই, ইজি, ইয়েলো, ওয়েসটেক্স। ফ্যাশন হাউসগুলোর পাশাপাশি নিউমার্কেট নগরীর অভিজাত শপিং মলগুলোতেও রয়েছে হুডি কালেকশন। বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, টু-ইন গেঞ্জির হুডিগুলোর চাহিদা এখন তুঙ্গে। ব্র্যান্ডের হুডিগুলোর দাম পড়বে ৭০০ থেকে পাঁচ হাজার টাকা পর্যন্ত। আর অন্যান্য মার্কেটে হুডির দাম পড়বে ৩০০ থেকে ৮০০ টাকা।

পোশাক ছবি: ইজি ইজি জুনিয়র

×