শুক্রবার ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মাদারীপুরে চিকিৎসার অবহেলায় সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশু মৃত্যুর অভিযোগ

মাদারীপুরে চিকিৎসার অবহেলায় সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশু মৃত্যুর অভিযোগ
  • ধামাচাপা দেয়া চেষ্টা

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর ॥ মাদারীপুরে চিকিৎসার অবহেলায় সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশু মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট সেফ ডেলিভারী হসপিটাল এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সোমবার রাত ১২টার সময় ভূক্তভোগির পরিবার ও এলাকাবাসি হসপিটাল ঘেরাও করে চিৎকার চেচাঁমেচি করে। পরে খবর পেয়ে রাজৈর থানার ওসি শেখ সাদিক ও রাজৈর-শিবচর এসপি সার্কেল আনিসুর রহমান ঘটনাস্থলে গিয়ে বিচারের আশ্বাস দিলে ভূক্তভোগিরা চলে যায়। ওই হসপিটালে স্বামী মোঃ আবুল হোসেন ও স্ত্রী হাফিজা আক্তার রতœা দুইজন ডেলিভারী কাজে সর্বেসর্বা। এখানে কোন এমবিবিএস ডাক্তার বা ডিএমএফ বা এলএমপি চিকিৎসক নেই। প্রভাবশালী মহল এঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ভূক্তভোগি প্রসূতি জেসমিন বেগমের স্বামী রাকিব বলেন, ‘আমার স্ত্রী জেসমিন বেগমের প্রসব বেদনা উঠলে রবিবার রাত ৯টার দিকে টেকেরহাট সেফ ডেলিভারী হসপিটাল এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে আসলে ৮হাজার ৪০০ টাকায় চুক্তিতে ভর্তি করে হসপিটালের মালিক হাফিজা আক্তার রতœা। পরে ওইদিন রাত ১টার দিকে তারা স্বামী ও স্ত্রী মিলে প্রসূতির নরমাল ডেলিভারী সম্পন্ন করে। এসময় আমার বাচ্চার শ^াস প্রশ^াসে সমস্যা দেখা দিলে যথাযথ চিকিৎসা না দিয়ে সোমবার বেলা ১২টার সময় আমাদের হসপিটাল থেকে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। পরে আমার বাচ্চা ওইদিন রাত ১০টার দিকে মারা যায়। ওই হসপিটালে কোন ডাক্তার ছিলো না। আমার বাচ্চার মৃত্যুর বিচার চাই।’

এ ব্যাপারে কথিত ডাক্তার হাফিজা আক্তার রতœা বলেন, ‘সদ্যভুমিষ্ট শিশুটি সুস্থ অবস্থায় বাড়ি নিয়ে গেছে। হয়ত ঠিকমত ঔষধ খাওয়াতে ভুল করায় শিশুটির মৃত্য হয়ে থাকতে পারে। তবে মিমাংসা কথা-বার্তা চলছে।’ হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার সমিতির সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন হাওলাদার বলেন, ‘ঘটনা জেনেছি। ডাক্তার ছাড়া প্রসুতির ডেলিভারী করানো কাম্য নয়, অনাকাংখিত।’

মাদারীপুর সিভিল সার্জন ডাঃ মুনির আহমদ খান বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অপ্রশিক্ষিত বা সনদ বিহীন ব্যক্তি এ কাজ করে থাকলে তদন্ত সাপেক্ষ বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে সনদ বিহীন ব্যক্তিদের এ কাজে সম্পৃক্ত হবার কোন সুযোগ নেই।’

উল্লেখ্য,, টেকেরহাট বন্দরসসহ রাজৈর উপজেলা মোট ২৩টি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হাসপাতাল রয়েছে। ২/১টা ব্যতিরেকে এ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হাসপাতালগুলিতে কাগজে কলমে নিয়োগ দেয়া থাকলেও সার্বক্ষনিক এমবিবিএস ডাক্তার বা ডিএমএফ অথবা এলএমপি পল্লী চিকিৎসক বা প্রশিক্ষিত নার্স থাকে না। অথচ হসপিটাল চালুর করার জন্য স্বাস্থ্য বিভাগ তাদের লাইসেন্স দিয়েছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন বিএনপি নেতৃবৃন্দ ॥ কাদের         আগামী সপ্তাহে দেশে আনা হবে গাফ্ফার চৌধুরীর মরদেহ         কিডনিতে ২০৬ পাথর !         কৃষক ও যুবকসহ বজ্রপাতে তিনজনের মৃত্যু         বৃত্তির ফল নিয়ে ভোগান্তিতে জবি শিক্ষার্থীরা         যে অপরাধ করবে তাকেই শাস্তি পেতে হবে ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ একটি মাইলফলক : সেতুমন্ত্রী         ইভিএম পদ্ধতির ভুল প্রমান করতে পারলে পুরস্কৃত করা হবে ॥ ইসি আহসান হাবিব         অভিবাসীদের জীবন বাঁচাতে প্রচেষ্টা বাড়াতে হবে         অস্ত্র মামলায় ছাত্রলীগ নেতা সাঈদী রিমান্ডে ॥ জোবায়েরের জামিন         ইসলাম বিদ্বেষ, নারী বিদ্বেষকে ঘুষি মেরে বক্সিং-এ বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জারিন         স্ত্রীর কবরের পাশে চিরশায়িত হবেন আবদুল গাফ্ফার চৌধুরী         শিগগিরই সব দলের সঙ্গে সংলাপ : সিইসি         চাঁদপুরে ট্রাক-অটোরিকশা মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের দুই পরীক্ষার্থী নিহত         তীব্র জ্বালানি সংকটে শ্রীলঙ্কায় স্কুল ও অফিস বন্ধ         মঠবাড়িয়ায় যাত্রীবাহী বাস চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত, আহত ২         নগর ভবনে দরপত্র জমা দেওয়ার চেষ্টা         রাজধানীর বাজারে প্রায় সব পণ্যের দাম বৃদ্ধি         শনিবার গ্যাস থাকবে না রাজধানীর যেসব এলাকায়