মঙ্গলবার ৪ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

স্থবির হয়ে পড়েছে বুড়িমারী স্থলবন্দর

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ স্থবির হয়ে পড়েছে বুড়িমারী স্থলবন্দর। শুরু থেকে এ বন্দর দিয়ে ২৪টি পণ্য আমদানি হলেও বর্তমানে হচ্ছে ১০টি। যার ৯৫ ভাগই আবার পাথর। ফলে বন্দরটি ব্যবহারে আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন আমদানিকারকরা। এর কারণ হিসেবে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য বন্দর সিএ্যান্ডএফ সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের। আর পরিস্থিতি উন্নয়নে যথাযথ পদক্ষেপ চান আমদানিকারকরা।

ভারত, নেপাল ও ভুটানের সঙ্গে আমদানি-রফতানি বাড়াতে ১৯৮৮ সালে লালমনিরহাটে স্থাপন করা হয় বুড়িমারী স্থলবন্দর। দ্রুততম সময়ে স্থলবন্দরটি জমে উঠলেও বর্তমানে প্রায় অচল অবস্থায় রয়েছে এটি। এই স্থলবন্দর দিয়ে শুরু থেকে ২৪টি পণ্য আমদানি হলেও এখন তা নেমে এসেছে দশে। আর আমদানি হওয়া পণ্যের শতকরা ৯৫ ভাগই পাথর। এর ফলে আমদানিকারকরা আগ্রহী হচ্ছে অন্য বন্দর ব্যবহারে। আর কর্মহীন হয়ে পড়ছেন শ্রমিকরা।

শ্রমিকরা জানান, বর্তমানে আমরা ট্রাকওয়ালারা খুব বেকায়দায় আছি। মাল আসেও না যায় না। পুলিশকে চাঁদা দিতে হয়, হাইওয়েকে চাঁদা দিতে হয়, বিভিন্নভাবে ড্রাইভাররা বেকায়দায় আছে। আগে বুড়িমারী বন্দর খুব চালু ছিল এখন কামাই নাই আমরা বেকার বসে আছি।

স্থানীয় সিএ্যান্ডএফ সভাপতি বলছেন, রাস্তার বেহাল দশা, বিদ্যুত সঙ্কট ও বেশিরভাগ পণ্য আমদানিতে নিষেধাজ্ঞাই বন্দরে স্থবিরতার মূল কারণ। তবে স্থানীয় সংসদ সদস্যের দাবি, এর পেছনে দায়ী সিন্ডিকেট ও চাঁদাবাজি। বুড়িমারী স্থলবন্দরের সিএ্যান্ডএফ সভাপতি রুহুল আমিন বাবলু জানান, ‘যদি ১৪টি আইটেম আমদানিতে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়, তাহলে কস্টিংটা কমে যাবে, সুলভমূল্যে আমাদের ভোক্তারা সুবিধাটা পাবে।’

লালমনিরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য মোতাহার হোসেন বলেন, ‘মাল আসে সেখানে অনিয়ম, ট্রাকে যায় সেটা অনিয়ম, চাঁদাবাজি সেটা অনিয়ম, সব অনিয়মের হেডকোয়াটার হল বুড়িমারী।’ এ বন্দরে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২৮ শতাংশ বেশি রাজস্ব আদায় হয়। তবে পরের বছর রাজস্ব আদায়ের পরিমাণ বাড়লেও পূরণ হয়নি লক্ষ্যমাত্রা।

Rasel
করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
২৪২০২২২১৪
আক্রান্ত
১৫৬৬২৯৬
সুস্থ
২১৯৩৩৭৫০৪
সুস্থ
১৫২৯০৬৮
শীর্ষ সংবাদ:
পীরগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য একশ বান্ডিল টিন ও নগদ অর্থ বরাদ্দ         প্রতিমাসে তিন কোটি ডোজ টিকা দেওয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৭         অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ         সয়াবিন তেলের দাম লিটারে বাড়লো ৭ টাকা         অপরাধের ধরন-মাধ্যম প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে : এনটিএমসি পরিচালক         হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলায় বহিরাগতরাও অংশ নিয়েছিল ॥ স্পিকার         মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে করা মামলার আবেদন খারিজ         ব্যাক্তির অপরাধে কোন সম্প্রদায়কে দায়ী করা যাবে না ॥ শিক্ষামন্ত্রী         কুমিল্লার ঘটনার মুলহোতা পলাতক, শিগগিরই গ্রেফতার ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         পা থেকে মাথা পর্যন্ত অসাম্প্রদায়িক চেতনার মূল্যবোধে সজ্জিত হতে হবে ॥ ইনু         দুর্নীতির মামলার ভয় দেখিয়ে চিকিৎসকের ৯৫ লাখ টাকা আত্মসাত ॥ গ্রেফতার ২         ‘কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত খুঁজে বের করা হবে’         অপরাধী শনাক্তে সক্ষমতা বাড়ল র‍্যাবের         যবিপ্রবিতে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসায় রোবোটিক্স প্রযুক্তি ব্যবহার শীর্ষক সেমিনার         সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস রুখে দেওয়ার প্রত্যয় আ.লীগের         হামলাকারীদের দ্রুত শাস্তির আওতায় আনতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ         হাজারো রাজনৈতিক বন্দিকে মুক্তি দিল মিয়ানমারের সামরিক জান্তা         সিরাজগঞ্জে ৬ ডাকাত গ্রেফতার ॥ গুলিসহ ২ রিভালবার উদ্ধার         দেশে বসেই বিদেশিদের পাসপোর্ট করতেন তিনি