বৃহস্পতিবার ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ২৯ অক্টোবর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পুঁজিবাজারে বিবিএস কেবল নিয়ে অস্বস্তি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ অস্বাভাবিক দরবৃদ্ধির ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠনের পরদিনই দরপতনের শীর্ষে উঠে এসেছে নতুন তালিকাভুক্ত কোম্পানি বিবিএস কেবল। আর এই বিবিএস কেবলের ধাক্কাতেই পুঁজিবাজারের অন্যান্য কোম্পানির দরেও প্রভাব ফেলেছে। এছাড়া বাজার সংশ্লিষ্টরাও বিবিএস কেবলের ইস্যুটি নিয়ে কিছুটা অস্বস্তিতে রয়েছেন। কারণ, ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের শেয়ার দর ১৪০ শতাংশ বাড়ার পর কমিটি গঠনের সমালোচনা করেছেন সংশ্লিষ্টরা। প্রথম থেকেই ইনসাইডার ট্রেডিং হয়ে থাকলেও শুরুতেই নিয়ন্ত্রক সংস্থা ব্যবস্থা নিতে পারত বলে মনে করছেন তারা।

অন্যদিকে নতুন কোম্পানিটির লোগো ব্যবহার করে বিদেশী উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে চুক্তি করেছে বিবিএস কেবল লিমিটেড। এটি পৃথক কোম্পানি হলেও ব্যবসা সম্প্রসারণের খবরে পুঁজিবাজারে সদ্য তালিকাভুক্ত বিবিএস ক্যাবলসের শেয়ার দাম ‘অস্বাভাবিক’ হারে বেড়েছে। এটিও বাজারে শেয়ার দরকে প্রভাবিত করেছে। ক্ষতির শিকার হয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারী। তবে এটির পেছনেও কারসাজি রয়েছে বলেছেন বাজার বিশ্লেষকরা। এই বিষয়ে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ বলছে, বিবিএস কেবল লিমিটেড পৃথক কোম্পানি হলেও বিবিএস কেবল বেশি পরিচিত। নতুন কোম্পানিকে পরিচিত করানো ও বিজ্ঞাপনের স্বার্থেই বিবিএস কেবলের লোগো ব্যবহার করা হয়েছে। বিবিএস কেবলের প্রধান অর্থ কর্মকতা (সিএফও) আমিনুল ইসলাম বলেন, চুক্তি হওয়া কোম্পানির আমাদের পৃথক কোম্পানি। বিবিএস কেবলের সঙ্গে কোন সম্পর্ক নেই। তবে বিজ্ঞাপনের স্বার্থে বিবিএস কেবলের লোগো ব্যবহার করা হয়েছে। এখন এই তথ্য দেখে বিনিয়োগকারী শেয়ার কিনলে আমরা কি করতে পারি। কেবলমাত্র লোগোটিই ব্যবহার করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, গত ১৮ আগস্ট বিবিএস কেবলের লোগো ব্যবহার করে বিবিএস কেবল ইউনিট-২ লিমিটেড মেশিনারিজ রফতানিতে বিদেশী বিনিয়োগকারীর সঙ্গে চুক্তি করে। কোম্পানিটির ২২০ কেভি ভোল্টেজের তার উৎপাদন করছে এমন একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে বিনিয়োগকারী শেয়ার কিনতে থাকে উচ্চ দরে। এটি একটি পৃথক ইউনিট হলেও সে বিষয়ে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ কোন তথ্য জানায়নি।

নতুন কোম্পানির এভাবে দরবৃদ্ধি পাওয়াকে অস্বাভাবিক মনে করে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। আগামী সাতদিনের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। এর আগে গত ৮ আগস্ট ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের জানতে চাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে শেয়ার দাম বৃদ্ধির বিষয়ে অপ্রকাশিত কোন তথ্য নেই। একটি অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে সংবাদ প্রকাশের সূত্র তুলে ধরে গত ২১ আগস্ট আবারও কারণ জানতে চিঠি দেয় ডিএসই। এই চিঠির জবাবে কোম্পানি জানিয়েছে, বিবিএস কেবল ও বিবিএস কেবল ইউনিট-২ দুটি আলাদা কোম্পানি। আর বিবিএস কেবল ইউনিট-২ লিমিটেড গত ১৮ আগস্ট বিদেশী বিক্রেতাদের কাছে মেশিনারিজ সরবরাহে চুক্তি সম্পন্ন করে। কোম্পানি কর্তৃপক্ষ জানায়, বিবিএস কেবল বিখ্যাত কোম্পানি হওয়ায় এই কোম্পানির লোগো ব্যবহার করা হয়। বিশ্বের বিখ্যাত তার সরবরাহকারীদের আকর্ষণ করতে ও বিজ্ঞাপনের উদ্দেশ্যেই এটি করা হয়েছে। কোম্পানিটির আর্থিক হিসাব বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গত ৩১ জুলাই লেনদেন শুরুর পর থেকেই ক্রমাগতভাবেই বেড়েছে শেয়ার দাম। অভিহিত মূল্যের ১০ টাকার শেয়ার প্রথমদিনেই লেনদেন শেষ হয় ৯০ টাকায়।

শীর্ষ সংবাদ:
পোশাকের নির্দেশনা বাতিল: ভুল স্বীকার জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট পরিচালকের         সব জেলায় ১০ নবেম্বর থেকে ই-পাসপোর্ট         ‘ড্রেস কোড’ বিজ্ঞপ্তির ব্যাখ্যা চেয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ         হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর শিক্ষা সমগ্র মানব জাতির জন্য অনুসরণীয় : রাষ্ট্রপতি         মশক নিধনে চিরুনি অভিযান শুরু করছে ডিএনসিসি         শিক্ষা, অর্থনীতিসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে মানুষকে স্বনির্ভর করব ॥ প্রধানমন্ত্রী         ঈদে মিলাদুন্নবীতে সারাদেশে ব্যাপক আয়োজন         সুনীল অর্থনীতি বাস্তবায়নে সরকার প্রয়োজনীয় সবকিছুই করবে : প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী         মুক্তিযোদ্ধাদের নামের আগে ‘বীর’ লিখার বিধান করে গেজেট         খুলনায় হত্যা মামলায় ৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড         ডিআইজি প্রিজনস বজলুর রশীদ জামিন পেলেন         তাঁত, বস্ত্র ও কারু শিল্পকে বিস্তৃত করতে হবে : শিল্পমন্ত্রী         করোনা ভাইরাসে আরও ২৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৬৮১         শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ল ১৪ নবেম্বর পর্যন্ত         ৮ ব্যক্তি ১ প্রতিষ্ঠান পেল স্বাধীনতা পুরস্কার         মুক্তিযোদ্ধা হায়দার আনোয়ার খান জুনো আর নেই         ছাত্রলীগের দাবিতে ঢাবি উন্নয়ন ফি কমলো অর্ধেক         আওয়ামী লীগ কারো বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে না; বরং বারবার ষড়যন্ত্রের স্বীকার হয়েছে ॥ কাদের         বঙ্গবন্ধুই দারিদ্র্যমুক্ত সমৃদ্ধ বাংলাদেশের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন ॥ এলজিআরডি মন্ত্রী         আগামী বছর এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বুঝে