বুধবার ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

একধাপ এগোল বাংলাদেশ

বৈশ্বিক প্রতিযোগিতামূলক রিপোর্টে একধাপ এগোল বাংলাদেশ। সম্প্রতি প্রকাশিত ‘গ্লোবাল কমপেটিটিভনেস রিপোর্ট ২০১৬-১৭’ বলা হয়েছে, এবার ১৩৮টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১০৬তম। আগের বছর দুই ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১০৭তম। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম বিশ্বব্যাপী একযোগে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ঢাকায় ফোরামের পক্ষে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি)। চলতি বছরের শুরুতে চালানো এক জরিপের ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে এই প্রতিবেদন। একটি দেশের অবস্থান বিচার করার জন্য প্রতিষ্ঠান, অবকাঠামো, সামষ্টিক অর্থনৈতিক পরিবেশ, স্বাস্থ্য ও প্রাথমিক শিক্ষা, উচ্চশিক্ষা ও প্রশিক্ষণ, পণ্য বাজার ও শ্রম বাজারের দক্ষতা, আর্থিক খাতের উন্নয়ন, প্রযুক্তিগত প্রস্তুতি, বাজারের আকার; বাজারের সংবেদনশীলতা এবং নতুনত্ব-এই ১২টি সূচক বিবেচনা করা হয়েছে এ প্রতিবেদনে।

সক্ষমতা সূচকে একধাপ অগ্রগতি হলেও সবমিলিয়ে বাংলাদেশের স্কোর গত বছরের মতোই অর্থাৎ ৩ দশমিক ৮। ২০১২-১৩ অর্থবছরে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ৩ দশমিক ৬। আর ২০১৩-১৪ ও ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ছিল ৩ দশমিক ৭।

এবারের প্রতিবেদনে প্রতিষ্ঠান, অবকাঠামো, উচ্চশিক্ষা ও প্রশিক্ষণ, প্রযুক্তিগত প্রস্তুতি, বাজারের সংবেদনশীলতা ও নতুনত্ব সূচকে বাংলাদেশের উন্নতি হলেও সামষ্টিক অর্থনৈতিক পরিবেশ, শ্রম বাজারের দক্ষতা, আর্থিক খাতের উন্নয়ন ও বাজারের আকারে স্কোর কমেছে। আর স্বাস্থ্য ও প্রাথমিক শিক্ষা এবং পণ্য বাজারের দক্ষতা সূচকে স্কোর হয়েছে গতবারের সমান।

অবকাঠামোগত দুর্বলতা, দুর্নীতি, ঋণপ্রাপ্তি ও দক্ষকর্মীর অভাবকেই বাংলাদেশে ব্যবসার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় প্রতিবন্ধকতা হিসেবে চিহ্নিত করেছেন জরিপে অংশগ্রহণকারীরা। গতবারের মতো এবারও ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের সূচকে শীর্ষস্থানে রয়েছে সুইজারল্যান্ড, তাদের স্কোর ৫ দশমিক ৮। এরপরই রয়েছে সিঙ্গাপুর, যুক্তরাষ্ট্র, নেদারল্যান্ডস, জার্মানি, সুইডেন, যুক্তরাজ্য, জাপান, হংকং ও ফিনল্যান্ড। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে ভারত সূচকের ৫৫তম অবস্থান থেকে এগিয়ে ৩৯, নেপাল ১০০ থেকে ৯৮, ভুটান ১০৫ থেকে ৯৭, পাকিস্তান ১২৬ থেকে ১২২ নম্বর অবস্থানে উঠে এসেছে।

কেবল শ্রীলঙ্কা ৬৮ থেকে পিছিয়ে গেছে ৭১ নম্বর অবস্থানে। উল্লেখ্য, ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম বিশ্বের রাষ্ট্র উন্নত গড়তে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ও সরকারী-বেসরকারী সহযোগিতামূলক একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা। এটি ১৯৭১ সালে প্রতিষ্ঠিত এবং সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এর সদর দফতর অবস্থিত। এটি স্বাধীন ও নিরপেক্ষ প্রতিষ্ঠান। এর কোন বিশেষ স্বার্থ নেই। ফোরাম শাসন সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে নৈতিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক সততা নিয়ে বিশ্বব্যাপী জনস্বার্থে বাণিজ্যিক প্রতিবন্ধকতা দূর করার ক্ষেত্রে।

অর্থনীতি ডেস্ক

শীর্ষ সংবাদ:
সিলেটে বন্যায় পানিবন্দি ১৫ লাখ মানুষ         কক্সবাজারকে পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলা অপরিহার্য ॥ প্রধানমন্ত্রী         আগামী ৫ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু         বিদ্যুতের দাম ৫৮ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ         ‘নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার জন্য দায়ী আন্তর্জাতিক বাজার’         বঙ্গবন্ধু টানেলের টোল আদায় করবে চায়না কমিউনিকেশনস         খোলা বাজারে ডলারের দাম আজ ৯৯ টাকা         চট্রগ্রাম টেস্টে ৬৮ রানের লিড নিয়ে প্রথম ইনিংস শেষ বাংলাদেশের         দেশে আরও ২২ জনের করোনা শনাক্ত         করোনা নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         দেশে খাদ্যের কোনো ঘাটতি নেই ॥ খাদ্যমন্ত্রী         ১৯৮২ সালের পর যুক্তরাজ্যে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতি         রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ॥ চিকিৎসাধীন তিন জনের মৃত্যু         রায়পুরে মাদ্রাসা ছাত্রী হত্যায় ৪ জনের যাবজ্জীবন         বাতাসে জলীয়বাষ্প বেশি থাকায় ভ্যাপসা গরম         বিদেশী মনোপলি ব্যবসা বন্ধ করে দেশীয় মালিকানাধীন তামাক শিল্প রক্ষা করুন         ১ জুন ফের শুরু বাংলাদেশ-ভারত ট্রেন চলাচল         হাইকোর্টে সম্রাটের জামিন বাতিল         পরীমনির মামলায় নাসিরসহ ৩ জনের বিচার শুরু         আজ আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস