শনিবার ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩০ মে ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

গাইবান্ধায় ৫শ’ হেক্টর জমির সবজি তলিয়ে গেছে

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা ॥ গত কয়েকদিনের বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে গাইবান্ধার ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার তিস্তা, ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। ফলে নদী তীরবর্তী চর এলাকাসহ নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড সুত্রে জানা গেছে, শনিবার যমুনা নদীর পানি সেতু পয়েন্টে ২৬ সেন্টিমিটার, তিস্তার পানি কাপাশিয়ার পয়েন্টে ২৩ সেন্টিমিটার ও ব্রহ্মপুত্রের পানি এরেন্ডাবাড়ী পয়েন্টে ৫৬ সেন্টিমিটার ও ব্রহ্মপুত্রের পানি নুনখাওয়া পয়েন্টে ৫৩ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এদিকে নদ-নদীর এই আকস্মিক পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় সাঘাটা উপজেলার কচুয়া ও জুম্মাবাড়ী, তাজপুর এবং ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিবাড়ী ইউনিয়নের প্রায় ৫শ’ হেক্টর জমির পটল, ঢেড়স, করলা, ঝিঙাসহ গ্রীষ্মকালীন সবজি পানিতে তলিয়ে গেছে। এরমধ্যে সাঘাটা উপজেলায় তলিয়ে গেছে প্রায় ৩শ হেক্টর জমির সবজি। ঈদের আগে উঠতি ফসল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছে দরিদ্র কৃষকরা।

শীর্ষ সংবাদ:
কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ফ্লাইট চালাতে হবে ॥ মাহবুব আলী         লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশী হত্যায় জড়িতদের শাস্তি চায় বাংলাদেশ         করোনা রুখতে আলোর পথ দেখাচ্ছে বিজ্ঞান         আমফানে ক্ষয়ক্ষতিতে প্রিন্স চার্লসের দুঃখ ও সমবেদনা         কর্মস্থলমুখী মানুষের ঢল...         মৌসুমি বায়ু এবার জুনের প্রথম সপ্তাহে দেশে ঢুকছে         কাল থেকে চলবে ট্রেন লঞ্চ, বাস সোমবার         একদিনে করোনায় আক্রান্তের নতুন রেকর্ড         পদ্মা সেতুর ৩০তম স্প্যান বসছে আজ         সরকারী ত্রাণে দেয়া হবে আম-লিচু         আগামীকাল এসএসসির ফল প্রকাশ         করোনায় মৃত্যুতে চীনকে ছাড়াল ভারত         ভার্চুয়াল কোর্টে এ পর্যন্ত ২০ হাজার ৯৩৮ জনের জামিন         সিএমপির উদ্যোগে চট্টগ্রামে হচ্ছে প্লাজমা ব্যাংক         বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করে ছুটি না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত: কাদের         কর্মস্থলমুখী মানুষের ঢল         একদিনে সর্বোচ্চ করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত, ২৩ জনের মৃত্যু         ফেসবুক লাইভে রবিবার প্রকাশ হবে এসএসসির ফল         সরকারি ত্রাণে যুক্ত হচ্ছে আম-লিচু         লিবিয়ায় আহত ১১ বাংলাদেশি হাসপাতালে, আশঙ্কাজনক ৩ জন        
//--BID Records