ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০

২০ কিং কোবরা সাপ উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ

প্রকাশিত: ২১:১৩, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩; আপডেট: ২১:৪৬, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

২০ কিং কোবরা সাপ উদ্ধার

চুনারুঘাটে মৃত কিং কোবরা সাপগুলো। 

হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাটে গোয়াল ঘর থেকে ২০টি কিং কোবরা সাপকে মারা হয়েছে। 
 
শনিবার দুপুরে জেলার চুনারুঘাট উপজেলার শানখলা ইউনিয়নের চলিতার আব্দা গ্রামের ভিংরাজ মিয়ার গোয়াল ঘরের ১টি গর্ত থেকে ২০টি কিং কোবরা সাপ মারা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যক্তি এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। 

ওই ব্যক্তি জানান, এর আগে কৃষক ভিংরাজ মিয়া গোয়াল ঘরে গেলে কিং কোবরা সাপ দেখতে পান। পরে গোয়াল ঘরের গর্ত থেকে একে একে প্রায় ২০টি সাপ মারা হয়। এনিয়ে এলাকায় সাপ আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।  

জানা গেছে, বিষধর শঙ্খিনী সাপ। শঙ্খিনী অন্য প্রজাতির সাপকে শিকার করে খায়। বর্তমানে লোকালয়ে এ সাপটি প্রায় বিলুপ্তের পথে। এর ফলে কিং কোবরাসহ বিষধর সাপের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিকে হবিগঞ্জে সরকারি হাসপাতালগুলোতে নেই অ্যান্টিভেনাম ইনজেকশন। এ অবস্থায় কাউকে সাপে কামড়ালে বিনা চিকিৎসায় মারা যেতে হবে। 

আন্তর্জাতিক প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ সংঘের (আইইউসিএন) রেড লিস্ট গ্রন্থে শঙ্খিনী সাপটিকে বিপন্ন ঘোষণা করা হয়েছে। বন্যপ্রাণি (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন-২০১২ অনুযায়ী এ সাপটি সংরক্ষিত। তাই এটি আটক, হত্যা বা এর কোনো ক্ষতি করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল বলেন, শঙ্খিনী সাপটি বিলুপ্ত হওয়ায় অন্য বিষধর সাপের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই দ্রুত হাসপাতালগুলোতে অ্যান্টিভেনাম ইনজেকশন মজুদ রাখার দাবি জানাই।  

 

এস

×