ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পরিচর্যায় ব্যস্ত চাষি ও মালিকরা

চাঁপাইয়ের গাছে গাছে আমের মুকুল, ভাল ফলনের আশা

নিজস্ব সংবাদদাতা, চাঁপাাইনবাবগঞ্জ

প্রকাশিত: ২০:৫৩, ১৫ জানুয়ারি ২০২৩

চাঁপাইয়ের গাছে গাছে আমের মুকুল, ভাল ফলনের আশা

চাঁপাইয়ের গাছে ফুটেছে আমের মুকুল

পৌষের মাঝামাঝি থেকেই এখানে গাছে গাছে আমের মুকুল ফুটতে শুরু করেছে। গোপালভোগ, ক্ষীরশাপাত, লক্ষণভোগসহ বেশকিছু গুটি আমের গাছে মুকুল আসছে। মুকুল পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষি ও বাগান মালিকরা। পোকার আক্রমণ থেকে রক্ষায় মুকুলে কীটনাশক ও ছত্রাকনাশক ছিটাচ্ছেন তারা। রবিবার সকালে জেলার ইসলামপুর, সুন্দরপুর, রানিহাটি, শিবগঞ্জ, কানসাট, শ্যামপুর, খাষেরহাট, মনাকষা, ববুপুর, উমরপুর, মোবারকপুর, দুর্লভপুর, ভাঙ্গাব্রিজ, হাজারবিঘী, নতুনগ্রাম ঘুরে এমন দৃশ্য চোখে পড়ে।
সদর উপজেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের আমচাষি আনারুল ইসলাম বলেন, কয়েকদিন আগে থেকে লক্ষণভোগসহ কয়েক জাতের গুটি আম গাছে মুকুল আসতে শুরু করেছে। তাই কীটনাশক দিয়ে স্প্রে করছি। যেন মুকুলগুলো নষ্ট না হয়। বাগানে লক্ষণভোগ, গোপালভোগ, ফজলি, আশ্বিনা, বারি-৪, ল্যাংড়াসহ বেশ কয়েক জাতের আম গাছ আছে। গত বছর থেকে এবার আম গাছের অবস্থা ভালো আছে। আশা করছি ভালো ফলন হবে।
শিবগঞ্জ উপজেলার আমচাষি এনামুল হক বলেন, গাছে মুকুল দেখে তিন দিন ধরে গাছে স্প্রে করছি। তবে সব গাছে মুকুল আসেনি। কিছু গুটি জাতের আম গাছে মুকুল এসেছে। বাগানে সেচও দিতে হবে। রানিহাটি এলাকার একটি আম বাগানে সেচ দিচ্ছেন চাষি রফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, প্রায় তিন মাস ধরে এ এলাকায় বৃষ্টি হয়নি। আর হিমেল বাতাস বইছে। আম গাছের গোড়া শুকিয়ে গেছে। তাই সেচ দিতে হচ্ছে। এখানে আমার প্রায় ৭০টি ফজলি আমের গাছ আছে। মুকুল এখনো তেমন আসেনি। তবে আশা করছি আগামী ৭ দিনের মধ্যে মুকুলে ছেয়ে যাবে।
ম্যাংগো ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব ও গণমাধ্যমকর্মী আহসান হাবিব জানান, গতবার বৃষ্টি কম ছিল তাই ফলন কম হয়েছে। ফলে এবার অনেকেই অন্যবারের চেয়ে ১৫-২০ দিন আগেই গাছে হরমোন দেওয়ায় সময়ের আগেই গাছে মুকুল দেখা দিয়েছে। তাছাড়া এবার কুয়াশার প্রাদুর্ভাব তেমন না থাকা ও আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় অনেক গাছে আগাম মুকুল এসেছে। সাধারণত মাঘ মাসের ৮ তারিখ থেকে ফাল্গুন মাসের ৮ তারিখ পর্যন্ত আম গাছে মুকুল আসার সময়।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড. পলাশ সরকার বলেন, জেলার কিছু কিছু গুটি আম গাছে আগাম মুকুল আসতে শুরু করেছে। এ সময়ে সাধারণত কুয়াশা ও পোকার আক্রমণ হয় মুকুলে। তাই কীটনাশক দিয়ে স্প্রের পরামর্শ দিচ্ছি চাষিদের।

 

×