মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৮ জুলাই ২০১৭, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আজ ১৪ ডিসেম্বর আমতলী মুক্ত দিবস।

প্রকাশিত : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৫, ১১:৩৫ এ. এম.
আজ ১৪ ডিসেম্বর আমতলী মুক্ত দিবস।

নিজস্ব সংবাদদাতা,আমতলী (বরগুনা)॥ আজ ১৪ ডিসেম্বর আমতলী মুক্ত বিদস। ১৯৭১ সালের এই দিনে আমতলী থানা পাক হানাদার মুক্ত হয়েছিল।

৭১’ সালে বরগুনা শহর আগে মুক্ত হলেও যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতার কারণে আমতলী মুক্ত হতে বিলম্ব হয়। ১১ ডিসেম্বর পচাঁকোড়ালিয়া গ্রাম থেকে মুক্তিযোদ্ধারা পায়ে হেঁটে আড়পাঙ্গশিয়া আসে। ঐ দিন রাতে সড়ক ও নৌ-পথে মুক্তিযোদ্ধারা সাহেববাড়ী হয়ে কুকুয়া সোহ্রাওয়ার্দী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্যাম্পে পৌছেন। ঐ সময় আমতলী থানায় কোন পাক বাহিনী ছিল না। পুলিশ ও রাজাকার বাহিনী ছিল। ১৩ ডিসেম্বর রাতে মুক্তি বাহিনী চাওড়া নদীর পূর্ব প্রান্তে (একে স্কুল সংলগ্ন) অবস্থান নিয়ে জয় বাংলা শ্লোগান দিয়ে যুদ্ধ শুরু করে। সারা রাত যুদ্ধ চলে। এ যুদ্ধে এক নৌকার মাঝি মারা যায়। ১৪ ডিসেম্বর সকালে জিএম দেলওয়ার হোসেনের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিকামী জনতা চার দিক থেকে শ্লে¬াগান দিয়ে আমতলী থানা ঘেরাউ করে। পরে পুলিশ ও রাজাকার বাহিনী অবস্থার বেগতিক দেখে সাদা পতাকা উত্তোলন করে আত্মসমর্পনের আহবান জানান। কমান্ডার আফাজ উদ্দিন বিশ্বাস ও নুরুল ইসলাম পাশা তালুকদারের নের্তৃত্বে মুক্তিবাহিনী থানায় প্রবেশ করে ওসি রইস উদ্দিন ভূঁইয়া, পুলিশ ও রাজাকারদের আটক করে। ঐ দিন দুপুর ১২ টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা আফাজ উদ্দিন বিশ্বাস থানা প্রাঙ্গনে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলনে করে আমতলীকে মুক্তাঞ্চল ঘোষনা করেন।

প্রকাশিত : ১৪ ডিসেম্বর ২০১৫, ১১:৩৫ এ. এম.

১৪/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: