ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

বিষয়টি অপ্রীতিকর

তামান্না ইসলাম

প্রকাশিত: ২০:৪৯, ৬ ডিসেম্বর ২০২৩

বিষয়টি অপ্রীতিকর

বন্ধু তো অনেক হয়। তবে বন্ধুর মতো বন্ধু কজন হয়

বন্ধু তো অনেক হয়। তবে বন্ধুর মতো বন্ধু কজন হয়? স্কুলে থাকতে যেমন বন্ধুর ধরন এক রকম হয়। কলেজ বা ভার্সিটিতে উঠলে দেখা যায় তাদের ভিন্ন রূপ। ক্লাসের সকল ছেলের কাছেই সব মেয়ে সমান নয়। কিছু মেয়েকে প্রটেক্ট করতে তারা তাদের সবটা দিয়ে লড়াই করে, আবার কিছু মেয়ের সম্মানহানি করতে তাদের একটা বারও বাধে না। ছেলেবন্ধু থাকলে সমাজে অনেকেই অনেক খারাপ ভাবে। তবে সকল ছেলেবন্ধু খারাপ নয়। কিন্তু বন্ধু থাকে যারা তাদের বান্ধবীকে সম্মান করে নিজের বোনের মতোই। তাদের যে কোনো প্রয়োজনে ঝাঁপিয়ে পড়ে। আবার অপরপক্ষে বিপরীত চরিত্রও দেখা যায়। অনেক সময় দেখা যায় ভালো মানুষের মুখোশ লাগিয়ে বান্ধবীর সরলতার সুযোগ নিচ্ছে। ক্ষতি করছে তাদের।  আসলে আমাদের জীবনে সঠিক বন্ধু নির্বাচন করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সঠিক বন্ধু আমাদের জীবনকে সুন্দরভাবে পরিবর্তন করতে পারে। যার কাছে নিজেকে সুরক্ষিত মনে হয়। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সেই জন্যই বোধ হয় বলেছেন, ‘আমরা বন্ধুর কাছ থেকে মমতা চাই, সমবেদনা চাই, সাহায্য চাই ও সেই জন্যই বন্ধুকে চাই’। আমাদের কাছে বন্ধু বান্ধবীর প্রতি প্রত্যাশা অনেক বেশি থাকে। তাদের থেকে সম্মান ভালোবাসা যেমন আমরা চাই, ঠিক তেমনিভাবে তাদের প্রতিও আমাদের সম্মান দেখানো উচিত। অনেক ছেলে আছে যারা ভার্সিটিতে পড়ার পরেও কিভাবে তার বান্ধবীকে সম্মান করতে হবে, সে বিষয়ে ধারণা রাখে না। হুট করে একটা মেয়েকে যা ইচ্ছা তাই বলে দিচ্ছে। তার শরীর সম্পর্কে বাজে মন্তব্য করে ফেলছে।

একটা মেয়ের কাছে এটা কতটা খারাপ লাগার বিষয়, এটা তারা বুঝে না।  একটা মেয়ে বুঝতে পারে না একটা ছেলে তাকে কোন্ চোখে দেখছে। আমাদের সঙ্গে আমাদের ছেলেবন্ধু থাকলে অনেককে দেখেছি মেয়েদের দিকে এমন দৃষ্টি দেয় যে, ওই মেয়েটা যদি জানত, তবে সে হয়তো তার শরীরে পৃথিবীর সমস্ত কাপড় জড়িয়ে আসত। বন্ধুর মুখ থেকে অন্য মেয়েদের প্রসঙ্গে এমন বাজে মন্তব্যে এতটা খারাপ লাগা কাজ করে যে, নিজের ভেতর থেকে বলে ওঠে, এরা আমাদের অগোচরে আমাদের নামে কিছু বলছে না তো? তাদের বন্ধু ভাবতেও ভয় লাগে তখন। আবার এমনও কিছু বন্ধু দেখেছি, যারা মেয়েদের এতটাই সম্মান করে যে, তাদের পাশ দিয়ে দেখার মতো বিষয় হয়ে গেলেও তারা সেই মেয়ের দিকে তাকায় না। বা একবার চোখ গেলেও তখনই  সে চোখ সরিয়ে মাথা নিচু করে থাকে। এইসব বন্ধুই আমাদের প্রটেক্ট করে সবটা দিয়ে। যাকে আমরা বিশ্বাস করি সব থেকে সেই আমাদের প্রিয় বন্ধু। যাকে সবটা বলা যায়। কিন্তু একটা প্রশ্ন থেকেই যায়, আসলেই বন্ধু আমাদের রক্ষক, নাকি ভক্ষক?

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়া থেকে

×