ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৬ জুন ২০২৪, ১৩ আষাঢ় ১৪৩১

সংস্কৃতি সংবাদ

শিল্পকর্মে নারীর যাপিত জীবনের দৃশ্যকল্প

সংস্কৃতি প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:১৬, ৩১ মার্চ ২০২৩

শিল্পকর্মে নারীর যাপিত জীবনের দৃশ্যকল্প

ধানমণ্ডির ইএমকে সেন্টারে আস উইমেন শীর্ষক প্রদর্শনীর একটি ভাস্কর্য

গ্যালারিতে প্রবেশ করতেই নজর আটকে যায় পিতলে গড়া ভাস্কর্যটির দিকে। শিল্পকর্মটিতে চমৎকারভাবে মূর্ত হয়েছে তিন নারীর অবয়ব। দৃশ্যমান হয়েছে সহজাত কথোপকথনের মুহূর্ত। তাদের মধ্যে চলছে পারস্পরিক ভাব বিনিময়। আয়েশি ভঙ্গিমায় চলছে তাদের আড্ডা। প্রত্যেকেই পায়ের স্যান্ডেল বা জুতাটি খুলে রেখেছেন। তাদের একজন হাঁটু মুড়ে বসে পড়েছেন মাটিতে।

ঊর্ধ্বমুখী দৃষ্টি তার দুই বন্ধুর দিকে। অপরজন টুলে বসে শরীরকে সমতলমুখী করে মেতেছেন আলাপচারিতায়। আর তৃতীয়জন মোড়ায় বসে গভীর মনোযোগে শুনছেন বাকি দুজনের কথা। নারীর যাপিত জীবনের সুন্দরতম দৃশ্যকল্পময় ভাস্কর্যটি শোভা পাচ্ছে ধানম-ির মাইডাস সেন্টারের ইএমকে সেন্টারে। প্রদর্শনালয়টিতে চলছে আস উইমেন বা আমরা নারী শীর্ষক প্রদর্শনী। নারীর শিল্পীদের সৃজিত চিত্রকর্ম ও ভাস্কর্যের সঙ্গে ঠাঁই পেয়েছে আলোকচিত্র থেকে ডিজিটাল পেন্টিং।

২৯ নারী শিল্পীর সৃষ্ট শিল্পকর্মগুলোয় প্রকাশিত হয়েছে মানবিক ভারসাম্যের বারতা। যেখানে সমাজের চাপিয়ে দেওয়া নারীর পরিচয়কে ছাপিয়ে উচ্চারিত হয়েছে মানুষ হিসেবে অধিকার ও ন্যায্যতার দাবি। কোনো শিল্পকর্মের আশ্রয়ে আবার সমাজের আরোপিত প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে গাওয়া হয়েছে জীবনের জয়গান। ব্যক্ত হয়েছে বাঁধা পেরিয়ে এগিয়ে চলার পথরেখা। 
প্রতিবছরের মার্চ মাসকে উইমেন হিস্টোরি মান্থ হিসেবে উদ্্যাপন করছে ঢাকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাংস্কৃতিক কেন্দ্র ইএমকে সেন্টার।

সেই উদ্যাপনের অংশ হিসেবে এই প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। এমব্রাস ইক্যুইটি বা ভারসাম্য আলিঙ্গন প্রতিপাদ্যে সারা দেশের তরুণ নারী শিল্পীদের কাজ জমা দেওয়া হয়। সেই উন্মুক্ত আহ্বানে শতাধিক শিল্পকর্ম জমা পড়ে। সেখান থেকে ২৯ তরুণ নারীর শিল্পকর্মকে প্রদর্শনীর জন্য বাছাই করা হয়। উদীয়মান শিল্পীদের সেসব কাজে প্রতিধ্বনিত হয়েছে লিঙ্গ সমতা এবং সামাজিক ন্যায় বিচারের আহ্বান। 
এই প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণকারী শিল্পীরা হলেনÑ কাশবি জান্নাত আয়েশি, উম্মে নাফিসা ইসলাম রিদিতা, নিপা গোমেস, রেফাত ফাতেমা, মুক্তি ভৌমিক, সামিও সাহোরিন অ্যানি, শাহিদা আকতার, নাসরিন রেহানা ইভা, সৃজনী হক, পূর্ণিমা আক্তার, রাফিদ আরিয়ান, তাহমিদ রাদি, তামান্না লিজা, মনন মুনতাকা শোভা, উম্মে হাবিবা, সাদিয়া ইসলাম ইফতি, রেফাত ফাতেমা, আদিবা নশিন শাহ, মাহজাবিন উর্মি, সোমোটা আরিফা প্রভা ও ভেনেসা কায়সার।
নানা মাধ্যমের ৩৩টি শিল্পকর্মে সজ্জিত হয়েছে এই প্রদর্শনী। আগামী ৬ এপ্রিল শেষ হবে এই শিল্পায়োজন। প্রতিদিন সকাল দশটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। 

×