ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১

ঢাকায়সহ সরাদেশে বৃষ্টি 

বোরো ফসলের জন্য আর্শীবাদ

বিশেষ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২২:০১, ১৯ মার্চ ২০২৩

বোরো ফসলের জন্য আর্শীবাদ

বৃষ্টি । প্রতীকী ছবি।

দিনভর মেঘ-বৃষ্টির খেলা শেষে রবিবার সন্ধ্যায় ঢাকায় মুষলধারার বৃষ্টি হয়েছে। এদিন শুধু ঢাকায়ই, সারাদেশেই বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। যা বোরো ফসলের জন্য আর্শীবাদ হবে। তবে এতে সবজি ফসল কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। 

রবিবার সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ ছিল মেঘলা। সকাল ১০টা পার হতেই শুরু হয় বৃষ্টি। এতে বিপত্তিতে পড়েন অফিসমুখী অনেকে। অবশ্য কিছুক্ষণ পর বৃষ্টি থেমেও যায়। তবে দিনভর আকাশে রোদ মেঘের লুকোচুরি খেলা চলে। সেই সঙ্গে থেমে থেমে বৃষ্টি হয়। বৃষ্টির কারণে ধুলো থেকে স্বস্তি পেয়েছে নগরবাসী। 

দুপুরে মাঝখানে একটু রোদের দেখা পেলেও বিকাল থেকে আকাশে আবার মেঘ দেখা যায়। এ সময় কোথাও কোথাও গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিও হয়। সন্ধ্যার পর ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয় এবারের মৌসুমের প্রথম মুষলধারার বৃষ্টি। এই বৃষ্টি ২০-২৫ মিনিটের মতো স্থায়ী হয়। হঠাৎ বৃষ্টিতে ঢাকার কোথাও কোথাও পানি জমে যায়। অবশ্য বৃষ্টির কিছুক্ষণ পর সেই পানি আবার নেমে যায়।  

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী রবিবার ঢাকাসহ দেশের বেশির ভাগ অঞ্চলের ওপর দিয়ে বৃষ্টি হয়েছে। তবে টানা কোথাও হয়নি। থেমে থেমে কোথাও হালকা আবার কোথাও মাঝারি, আবার কোথাও ভারী ধরনের বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। এই বৃষ্টি চলতে পারে আগামী ২২ মার্চ পর্যন্ত। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর দেশের সব বিভাগেই ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে। কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টির হতে পারে। একইসঙ্গে দিনের তাপমাত্রা ২ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে যেতে পারে। ঝড়-বৃষ্টির এ প্রবণতা আগামী কয়েকদিন থাকতে পারে বলেও জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে নিকলিতে ৫৩ মিলিমিটার। এদিকে বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকায় ১১, সিলেটে ২০, ময়মনসিংহে ১৩, চট্টগ্রামে ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া বরিশালে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে। তবে রংপুর, রাজশাহী ও খুলনায় তেমন বৃষ্টি দেখা যায়নি বলে আবহাওয়া অধিদফতর জানায়।

অধিদফতর আরও জানায়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও আশপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, রবিবার দেশের প্রায় অনেক এলাকায় বৃষ্টি হয়েছে। কোথাও হালকা আবার কোথাও মাঝারি। তবে রাতের মধ্যে কোথাও কোথাও ভারী বৃষ্টিও হতে পারে। আগামী ২২ মার্চ পর্যন্ত এই বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে বলে তিনি জানান।

শনিবার সকাল ৬টা থেকে রবিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগ ছাড়া সব বিভাগেই কম-বেশি বৃষ্টি হয়েছে। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি ৪০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে নেত্রকোনায়।

আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক জানান, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।
এ সময়ে সারাদেশে দিনের তাপমাত্রায় ২ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী তিনদিন বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টির প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

রবিবার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল কক্সবাজারে, ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

×