ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

আবাসিক হোটেলেই মারা গেলেন তিনি

 স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১৩:১৪, ১০ ডিসেম্বর ২০২২

আবাসিক হোটেলেই মারা গেলেন তিনি

ফাইল ফটো

রাজধানীর কমলাপুরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে সিদ্দিকুর রহমান (৫০) নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে পুলিশের ধারণা, অসুস্থতার কারণে মৃত্যু হয়েছে তার।

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ১২টার দিকে কমলাপুরে হোটেল ইনসাব থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে মতিঝিল থানা পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।

মতিঝিল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম জানান, হোটেলটির চারতলার ২২৬ নম্বর কক্ষে দীর্ঘ পাঁচ থেকে ছয় মাস যাবত অনিয়মিতভাবে থাকতেন সিদ্দিকুর রহমান। সবশেষ হোটেলটিতে উঠেন ৭ ডিসেম্বর। যা সিসিটির ফুটেও দেখা গেছে। এরপর এই কয়দিন তিনি আর রুম থেকে বের হননি। শুক্রবার রাতে যখন হোটেলের ভাড়ার জন্য হোটেল বয় তার দরজায় কড়া নাড়ে তখন কোন সাড়াশব্দ মেলেনি। 

এতে তাদের সন্দেহ হলে থানায় খবর দেয়। পরবর্তীতে সেখানে গিয়ে রুমটির দরজা ভেঙে ভিতরে ঢুকে দেখা যায়, বিছানার মৃত অবস্থায় পড়ে আছেন তিনি। তখন মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। 

ধারণা করা হচ্ছে, অসুস্থতাজনিত কারণে তার মৃত্যু হতে পারে। তবে ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

মৃত সিদ্দিকুরের ভাগিনা ফয়েজ উল্লাহ জানান, লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জ উপজেলার কলচমা গ্রামের মৃত শফিউল্লাহর ছেলে সিদ্দিকুর। এক ছেলের জনক তিনি। স্ত্রী-সন্তানসহ পরিবার গ্রামে থাকলেও তিনি একাই ঢাকা থাকতেন। কমলাপুর এলাকায় হেডফোনসহ বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্র হকারি করে বিক্রি করতেন তিনি। 

বিভিন্ন হোটেলে এবং রাস্তাঘাটেই থাকতেন। পরিবারের সঙ্গে তার তেমন যোগাযোগ ছিল না। দীর্ঘ ১০-১২ বছর যাবত বাড়িতেও যেতেন না তিনি। পুলিশের মাধ্যমে তিনি খবর পেয়ে হোটেলে গিয়ে সিদ্দিকুরের মরদেহ দেখতে পান। তারও ধারণা, অসুস্থতার কারণে তার মৃত্যু হতে পারে।

এসআর

×