ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

গ্রন্থাগার থেকে নেওয়া বই ১০০ বছর পর ফেরত

প্রকাশিত: ১১:৩৭, ২৭ মে ২০২৩

গ্রন্থাগার থেকে নেওয়া বই ১০০ বছর পর ফেরত

ফেরত দেয়া বই

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সেন্ট হেলেনা পাবলিক লাইব্রেরিতে প্রায় ১০০ বছর আগে ওই গ্রন্থাগার থেকে নেওয়া বই ফেরত দিয়েছেন। কিন্তু সাধারণ নিয়ম হলো, কোনো গ্রন্থাগার থেকে বই নেওয়ার পর  তা কয়েক মাসের মধ্যেই ফেরত দিতে হয়।

ওই গ্রন্থাগার থেকে যে বইটি নেওয়া হয়েছিল, সেটির নাম ‘আ হিস্ট্রি অব দ্য ইউনাইটেড স্টেটস’। এর লেখক বেনসন লসিং। ধারণা করা হয়ে থাকে, ১৮৮১ সালে বইটি প্রকাশ হয়েছিল।

বইটি নেওয়ার পর ওই গ্রন্থাগারের নথিতে উল্লেখ করা হয়েছিল, এটি ফেরত দেওয়া হবে ১৯২৭ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি। এরপর বছরের পর বছর গড়িয়েছে, কিন্তু বইটি আর জমা দেওয়া হয়নি। সম্প্রতি এক ব্যক্তি বইটি গ্রন্থাগারে ফেরত দিয়েছেন। তবে ওই বই ঠিক কে নিয়েছিলেন, তা–ও জানা যায়নি গ্রন্থাগারের নথি থেকে।

সেন্ট হেলেনা পাবলিক লাইব্রেরির পরিচালক ক্রিস ক্রেইডেন জানিয়েছেন, বই ফেরত দিতে দেরি হলে তারা কোনো জরিমানা করেন না।

বই সঠিক সময়ে ফেরত দেওয়া না হলে অনেক গ্রন্থাগারই জরিমানা করে থাকে। যদি এ বইয়ের জন্য জরিমানা করা হতো, তবে ওই বই গ্রহীতাকে জরিমানা গুনতে হতো ১ হাজার ৪১৩ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় দেড় লাখ টাকা।

গ্রন্থাগারের বইগুলোর ভেতরে একটি স্থানে নোট দেওয়া থাকে। এতে লেখা রয়েছে, এই বই যে কেউ দুই সপ্তাহের জন্য নিজের কাছে রাখতে পারবেন। বইটির কোনো ক্ষতি হলে বা হারিয়ে গেলে এর জন্য ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।

এই বই ফেরত পাওয়ার ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে পোস্ট দিয়ে জানিয়েছে সেন্ট হেলেনা পাবলিক লাইব্রেরি। পোস্টে ছবিতে দেখা যায়, বইটি একটি কাচের বাক্সের মধ্যে রাখা হয়েছে। এর ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, ‘কী অসাধারণ ঘটনা! ৯৬ বছর আগে কেউ একজন বইটি এখান থেকে নিয়েছিলেন।’ এটা দিয়ে এই বোঝানো হচ্ছে, বই ফেরত দিতে যেন বেশি দেরি না হয়। বইটি গ্রন্থাগারের প্রবেশমুখে রাখা হয়েছে।

সূত্র: জিও টিভি

তাসমিম

×