ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

৫০ শতাংশেই শেষ নয়, আরও কর্মী ছাঁটাই করবেন ইলন মাস্ক

প্রকাশিত: ১২:৩২, ২১ নভেম্বর ২০২২

৫০ শতাংশেই শেষ নয়, আরও কর্মী ছাঁটাই করবেন ইলন মাস্ক

ইলন মাস্ক

টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট টুইটার কিনে নিয়েছেন এক মাসও হয়নি। এর মধ্যে নানা বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। মালিকানা হাতে নেওয়ার পরপরই ৫০ শতাংশ কর্মীকে ছাঁটাই করেছিলেন মাস্ক।

তবে সেখানেই যেন শেষ নয়। সংস্থার অর্ধেক কর্মীকে ছাঁটাইয়ের কয়েক সপ্তাহের মাথায় এবার আরও কর্মী ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনা করছেন মার্কিন এই ধনকুবের। প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ এই তথ্য সামনে এনেছে বলে সোমবার (২১ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কোম্পানির অর্ধেক কর্মী ছাঁটাই করার কয়েক সপ্তাহের মাথায় এবার টুইটারের নতুন মালিক ইলন মাস্ক আরও কর্মী ছাঁটাই করার কথা বিবেচনা করছেন বলে ব্লুমবার্গ রিপোর্ট করেছে। এছাড়া দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করার বিষয়ে মাস্কের আল্টিমেটামের পর বহু কর্মী সংস্থাটি থেকে বেরিয়ে গেছেন।

ব্লুমবার্গের মতে, টুইটারের সেলস এবং পার্টনারশিপ টিমের কর্মীদের টার্গেট করে নতুন করে ওই ছাঁটাই অভিযান চালানো হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগামীকাল থেকেই নতুন করে এই কর্মী ছাঁটাইয়ের ঘোষণা শুরু হতে পারে।

ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বিশ্বের সবচেয়ে এই ধনী ব্যক্তি টুইটারের ওই বিভাগের নেতৃত্বে থাকা টিমকে আরও কর্মচারীদের বরখাস্ত করতে সম্মত হতে বলেছেন। তবে টুইটারের বিপণন এবং বিক্রয় টিমের পরিচালনার দায়িত্বে থাকা রবিন হুইলার কর্মী ছাঁটাই করতে অস্বীকার করেছেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এছাড়া টুইটারের অংশীদারিত্ব পরিচালনার দায়িত্বে থাকা ম্যাগি সানিউইকও একই কাজ করেছেন। আর এর ফলস্বরূপ উভয়ই তাদের চাকরি হারিয়েছেন বলে ব্লুমবার্গ রিপোর্ট করেছে।

ছাঁটাই করতে করতে টুইটারের এখন আর কোনও যোগাযোগ বিভাগ নেই। আর তাই মাস্কের নতুন এই পরিকল্পনার বিষয়ে টুইটারের প্রেস লাইনে বার্তা পাঠানো হলেও সেটির জবাব পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে ব্লুমবার্গ।

উল্লেখ্য, এক মাসেরও কম সময় আগে রেকর্ড ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট টুইটার কিনে নেন ইলন মাস্ক। এরপর নানা বিতর্কিত সিদ্ধান্ত এবং  টুইটারে আমূল পরিবর্তনের জন্য তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন মার্কিন এই ধনকুবের।

মূলত টুইটার কেনার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পরপরই মাস্কের প্রথম কয়েকটি সিদ্ধান্তের একটি ছিল টুইটারের সাড়ে ৭ হাজার কর্মী মধ্যে ৫০ শতাংশকে বরখাস্ত করা। তিনি কোম্পানির কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার নীতিও বাতিল করেছেন।

এছাড়া মার্কিন এই ধনকুবের গত সপ্তাহে একটি আল্টিমেটাম দিয়ে কর্মীদের উদ্দেশে বলেছিলেন, হয় ‘উচ্চ চাপে দীর্ঘ সময় ধরে’ কাজ করার বিষয়টি তাদের মেনে নিতে হবে, আর না হয় চাকরি ছেড়ে চলে যেতে হবে। মাস্কের সেই আল্টিমেটামের পর প্রায় ১২০০ কর্মচারী টুইটার ছেড়ে বেরিয়ে গেছেন।

আর এর ফলে সোমবার পর্যন্ত টুইটার তার অফিস বন্ধ রাখতে বাধ্য হয়েছে।

টিএস

monarchmart
monarchmart