মঙ্গলবার ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৪ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

প্রয়াত এন্ড্রু কিশোর

বিংশ শতাব্দীর শেষ দুই দশক থেকে সঙ্গীতের বলয়ে যার জাদুকরী কণ্ঠ দর্শক-শ্রোতাকে মাতিয়ে রাখে, যার অব্যাহত ধারা একবিংশতেও সমান বহমান সেই শৈল্পিক সুরেলা কণ্ঠ চিরতরে স্তব্ধ হয়ে গেছে। এমন বড় মাপের শিল্পীর চিরপ্রস্থান মেনে নেয়া কঠিন। বেঁচে থাকতে যার কণ্ঠ সারা বাংলায় আলোড়ন তুলেছিল সেই বলিষ্ঠ নান্দনিক সুরেলা ছোঁয়া আর পাওয়া যাবে না। প্রাণঘাতী ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে বেশ কয়েক মাস সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন ছিলেন এন্ড্রু কিশোর। শিল্পীর শেষ ইচ্ছাতেই তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। আবাসভূমি রাজশাহীতেই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মাটি আর মানুষের অবিস্মরণীয় যোগসাজশ যার কণ্ঠকে শৈল্পিক সাবলীলতায় অনুপম করে তোলে সেই এন্ড্রু কিশোর চলচ্চিত্র জগতেরও এক বলিষ্ঠ প্লে-ব্যাক শিল্পী। বহু সিনেমায় প্লে-ব্যাক সিংগার হিসেবে তার সুনাম ছিল আকাশছোঁয়া। পরিচিত ছিলেন প্লে-ব্যাক সম্রাট হিসেবেও। উত্তাল সাগরের বাঁধভাঙ্গা জোয়ারের অবিমিশ্র সুরের টানে গণমানুষের কাছাকাছি পৌঁছেছেন আপন শৈল্পিক ব্যঞ্জনায়। সুরকার সত্য সাহার হাত ধরেই সঙ্গীতের ভুবনে নিজস্ব ধারায় এগিয়ে চলা এন্ড্রু কিশোরকে পরবর্তীতে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। ছায়াছবির জগতকে কণ্ঠের জাদুতে এক প্রকার বশই করেছিলেন। প্রথিতযশা বহু নায়ক তাদের ঠোঁটে এই বরেণ্য শিল্পীর কণ্ঠকে ধারণ করে নিজেদের সমৃদ্ধ করেছেন। অনেকটা প্রচারবিমুখ, আত্মসম্মান বোধসম্পন্ন এই শিল্পী ব্যক্তিত্ব নিজের সঙ্গীত বলয়কে বিভিন্নভাবে সুরক্ষাও দিতে পারতেন। অকারণে, অপ্রয়োজনে কাউকে ওপরে ওঠার সিঁড়ি হিসেবে ব্যবহার করতে অন্তর থেকেই সায় পেতেন না। তেমন সততা, নিষ্ঠা আর একাগ্রতার মূল্যও জীবদ্দশায় পেতে তাকে পিছু হটতে হয়নি। স্পষ্টবাদী, সাহসী এবং প্রত্যয়ী এই শিল্পী আপন খ্যাতি আর যশকে হাতের মুঠোয় এনেছিলেন কণ্ঠের অনমনীয় সুরেলা দ্যোতনায়। তার বহু জনপ্রিয় গান কালের সীমাবদ্ধ বলয়কে অতিক্রম করে আরও কতদূর যাবে সে জবাব সময়ের কাছেই নিহিত। তার দরাজ কণ্ঠ খেটে খাওয়া মানুষদেরও উদ্দীপ্ত প্রেরণায় বিমোহিত করে দিত। সব ধরনের অনুভূতি ও আবেদনের বাণী তার কণ্ঠের অনবদ্য স্পর্শে ভক্ত-শ্রোতাদের মনোযোগ আকর্ষণ করতেও সময় লাগত না। ভারতের কিংবদন্তি শিল্পী আরডি বর্মণের সুরেও কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। আরডি বর্মণ তার সুরেলা কণ্ঠে মুগ্ধ হয়ে ভারতে থেকে যেতেও অনুরোধ করেছিলেন। দেশপ্রেমিক কিশোর বিনয়ের সঙ্গে তা মানতে পারেননি। সিনেমা জগতের অবিস্মরণীয় কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর আট বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে অভিষিক্ত হয়েছেন। এ ছাড়া আরও অনেক সম্মাননাও অর্জন করেন দেশে এবং বিদেশে। অভাবনীয় প্রাণশক্তিতে ভরপুর এন্ড্রু কিশোর সব সময়ই লাখ লাখ ভক্ত-শ্রোতার কাছেই উজ্জীবনীর প্রেরণা পেতেন। বলতেন মানুষের ভালবাসাই তাকে সব সময় প্রাণিত করে, বাঁচতে শেখায় এবং সঙ্গীতেরও অনবদ্য শক্তি। সেই মানুষ আজ তার প্রাণপ্রিয় ভক্তদের কাছ থেকে চলে গেলেন চিরতরে। তবে এ কথা বলার অপেক্ষা রাখে না যে, তিনি মৃত্যুঞ্জয়ী। চিরপ্রস্থান তাঁকে অনন্ত বিদায় সম্ভাষণ জানাবে না। তার সঙ্গীত সাধনাই অমর হয়ে থাকবে প্রাণপ্রিয় ভক্তদের নিভৃত অন্তরে। আমরা তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করি এবং স্বজনদের জানাই গভীর সমবেদনা।

শীর্ষ সংবাদ:
পাটুরিয়া ঘাটে ঈদফেরত যাত্রী-যানবাহনের চাপ বাড়ছে         ৬৫ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শুরু হচ্ছে মিড-ডে মিল কার্যক্রম         স্বাস্থ্যবিধি মেনে জীবন-জীবিকাকে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী         বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু         মুজিববর্ষে সারাদেশে শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হবে : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী         রাত ৮টার মধ্যে দোকানপাট ও শপিংমল বন্ধের নির্দেশ         জামালপুরে নৌকাডুবিতে দুই শিশুসহ তিন জনের মৃত্যু         গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় ৩০ জনের মৃত্যু         চলাচল নিয়ন্ত্রণ থাকবে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত         ১৫ আগস্টের ষড়যন্ত্রকারীদের অপচেষ্টা আজও চলমান ॥ কাদের         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ২৫ হাজার মানুষকে সহায়তা দেবে ইইউ         সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ        
//--BID Records