বৃহস্পতিবার ৬ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দেহ ব্যবসায় রাজি হয়নি বলে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট, ২৭ এপ্রিল ॥ জেলা সদরের উপশহর বত্রিশহাজারি তালুক খুটামারা বটতলায় দেহ ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় ছয় বছরের শিশু সন্তানের সামনে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে লম্পট স্বামী। গৃহবধূকে পুড়িয়ে মারার সময় ঘটনাস্থলে দুইজন কর্পোরেট কোম্পানি তরুণ কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার দিনগত রাত সাড়ে ১০টায়। পুলিশ ওই লম্পট স্বামী চাকরিচ্যুত বিজিবি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক খোকনকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে। নিহতের পরিবার ও থানায় মামলার সূত্রে জানা গেছে, জেলা সদরের উপশহর বত্রিশহাজারি তালুক খুটামারা (বটতলা) মহল্লার মৃত মোবারক হোসেনের ছেলে (চাকরিচ্যুত বিজিবি সদস্য) আব্দুর রাজ্জাক খোকন। প্রায় ৭ বছর আগে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করে পাশের মহল্লার উত্তর খুটামারার মৃত আব্দুস সামাদের মেয়ে লাকী বেগমকে (২৫)। লাকী বেগম লালমনিরহাট আলনাহিয়ান শিশু পরিবারের (সরকারী এতিমখানা) বেড়ে ওঠে। সেখান হতে এসএসসি পাস করে। পরে মামার বাড়িতে থেকে এইচএসসি পাস করে।

গত ২২ এপ্রিল গভীররাতে স্বামী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক খোকন বাড়িতে দুইজন যুবককে নিয়ে যায়। তারা দু’জনেই কর্পোরেট কোম্পানির কর্মকর্তা। লম্পট স্বামী খোকন ওই দুই ব্যক্তির সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য স্ত্রী লাকী বেগমকে চাপ দেয়। এতে স্ত্রী রাজি না হলে তাকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে খোকন। এক পর্যায়ে স্ত্রী লাকী বেগম অজ্ঞান হয়ে পড়লে লম্পট স্বামী ভাবে স্ত্রী মারা গেছে। ঘটনা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে স্ত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ সময় কৌশলে ওই যুবকদ্বয় পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীরা তাদের দেখেছে। লম্পট খোকন ইতোপূর্বে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১৪ নারীকে বিয়ে করে। তার কোন স্ত্রী বর্তমানে নেই। স্ত্রীদের দিয়ে পর পুরুষের সঙ্গে অনৈতিক কাজ করাতে চাওয়া এবং নির্যাতনের কারণে ১৩ স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যায়। তবে খোকন ৫টি বিয়ের কথা স্বীকার করেছে।

অগ্নিদগ্ধ লাকীর আর্তচিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসে। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে পরদিন উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু সেখানেও তার অবস্থার অবনতি হলে রংপুর মেডিক্যাল কর্তৃপক্ষ তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করাতে রেফার করে। লম্পট স্বামী ও তার স্বজনরা করোনাভাইরাসের অজুহাত দিয়ে ঢাকায় না নিয়ে ২৫ এপ্রিল বিকেলে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসে অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ লাকী বেগমকে। পরদিন ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূ লাকী বেগম মারা যায়। এই দম্পতির রুপাইয়া নামের এক ৬ বছরের কন্যা শিশু রয়েছে। শিশুটির সামনে বাবা তার মাকে কেরোসিন ঢেলে আগুন জ্বালায় বলে জানা গেছে।

শীর্ষ সংবাদ:
ডাকসেবাকে ডিজিটাল করতে আসছে ‘ডিজটাল ডাকঘর’         সারাদেশের রেলপথ ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে : রেলমন্ত্রী         টি-টোয়েন্টি : বড় জয়ে সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ         শ্লীলতাহানির মামলা : কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন দাসের জামিন         দাম কমল পেঁয়াজের         রাইড শেয়ারিং : রাজধানীতে আবারও মোটরসাইকেলে আগুন         কুমিল্লা হবে ‘মেঘনা’, ফরিদপুর ‘পদ্মা’ বিভাগ : প্রধানমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় আরও ১০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৪৩         শতভাগ কার্যকর বাংলাদেশে তৈরি বঙ্গভ্যাক্স : ড. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন         ডিএমপির ৭ পরিদর্শক বদলি         অবসরে যাচ্ছেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম         যারা স্বাধীনতা মেনে নিতে পারেনি তারাই সাম্প্রদায়িক অপতৎপরতা চালাচ্ছে ॥ মাহমুদ আলী এমপি         মাগুরায় যে ঘটনা ঘটেছে এটা ন্যাক্কারজনক ॥ প্রধান নির্বাচন কমিশনার         ‘কুমিল্লায় ঘটনায় নির্দেশিত হয়েই লোকটি কাজ করেছে’         একটি শক্তিশালী বিরোধী দল সরকারও চায় ॥ কাদের         পরবর্তী পর্বে যাওয়ার লড়াইয়ে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ         বিএনপি, জামাত সরকারের আমলে রেলপথের কোন উন্নয়ন হয়নি ॥ রেলপথ মন্ত্রী         শাহরুখ খানের মুম্বাইয়ের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে গোয়েন্দারা         মুগদা জেনারেল হাসপাতালে আগুন, আহত ৫