বুধবার ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ময়মনসিংহে বাল্যবিয়ে ঠেকানো স্কুলছাত্রী হাসপাতালে

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ ॥ ত্রিশালে বাল্যবিয়ে ঠেকাতে এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা করে এখন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। স্থানীয় ধানিখলা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর এই ছাত্রী শনিবার রাতে ঘুমের ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। রবিবার সকালে চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন ছাত্রীর বান্ধবী ও শিক্ষকরা।

অথচ এসময় ছাত্রীর পরিবারের কেউ সঙ্গে আসেনি। তবে ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু জাফর রিপন ছাত্রীরা পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং চিকিৎসার বিষয়ে নিয়মিত খবর নিচ্ছেন। ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছাত্রী জানায়, বাবা-মা আর ভগ্নিপতি এনামুল হক বিয়ের জন্য চাপ দিয়ে আসলেও স্কুলের শিক্ষকরা বিভিন্ন সময় ছাত্রীকে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা করেন। সম্প্রতি আবারও বিয়ের জন্য মেয়েকে মারধরও শুরু করে বাবা-মা। শনিবার মেয়েটি অভিমান করে রাত ১০টার দিকে বাড়ির পাশের ফার্মেসি থেকে প্রেসারের বড়ি কিনে আনে। পরে সে ২০টি বড়ি খেয়ে ফেলে। এরপর মেয়েটি তার নিজের দুঃখের কথাটি এক বান্ধবীকে ফোন করে জানিয়ে দেয়।

ধানিখলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাজমুল ইসলাম বলেন, ছাত্রীটি মেধাবী। এর আগেও তার বাবা-মা জোর করে বিয়ে দিতে চেয়েছিল। কিন্তু মেয়েটি বাল্যবিয়ে নিয়ে সচেতন বলে শেষ পর্যন্ত হয়নি। নাজমুল ইসলাম জানান, তিনি ছাত্রীকে ভর্তির ব্যবস্থা করে দিয়ে এখন সর্বক্ষণিক খোঁজ খবরও নিচ্ছেন। একই স্কুলের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী বান্ধবী তানিসা সিদ্দিকা জবা জানায়, এর আগেও ছাত্রীকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা চলছিল।

তারা তখন স্কুলের স্যারদের বলে সেই বিয়ে বন্ধ করান। ভর্তির সময় পরিবারের কেউ না আসলেও সোমবার দুপুরে হাসপাতালে গিয়ে দেখা হয় মেয়েটির মা শরীফার সঙ্গে। শরীফা জানান, তারা বিয়ের জন্য কোন চাপ দেননি। এ বিষয়ে ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু জাফর রিপন বলেন, পুরো বিষয়টি দুঃখজনক।

শীর্ষ সংবাদ:
চামড়ার বাজারে ধস ॥ প্রধান চার কারণ চিহ্নিত         মানুষের উন্নত জীবন ধারা নিশ্চিত করাই মূল লক্ষ্য         ষড়যন্ত্রকারীদের অপচেষ্টার বিরুদ্ধে সতর্ক থাকুন ॥ কাদের         নরেন দাস ছিলেন বঙ্গবন্ধুর একনিষ্ঠ সৈনিক ॥ আইনমন্ত্রী         জুলাইয়ে রেমিটেন্সে রেকর্ড         টেকনাফে পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা নিহত         আজ শহীদ শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী         এক সপ্তাহের মধ্যে বন্যার পানি কমবে         করোনা পরীক্ষার সংখ্যা কমলেও রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে         আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতাসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যা         ভ্যাকসিন পরীক্ষার জন্য চীনা কোম্পানির আবেদন         করোনায় চলে গেলেন টিভি ব্যক্তিত্ব বরকতউল্লাহ         খোরশেদ আলম সুজন চসিকের প্রশাসক         নেত্রকোনার ডিসি প্রত্যাহার         এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ নিজস্ব জমিতে স্থানান্তরের নির্দেশ         ৯ আগস্ট থেকে একাদশ শ্রেণির ভর্তির অনলাইন কার্যক্রম শুরু         পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক মেজর সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন         করোনা চিকিৎসায় সহজ কোনো সমাধান নেই : ডব্লিউএইচও         পাপিয়ার বিরুদ্ধে সোয়া ৬ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মামলা         বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত দেশে পরিণত হতো : প্রযুক্তিমন্ত্রী        
//--BID Records