মঙ্গলবার ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সহমর্মী সহাবস্থান

  • জাহিদুর রহমান

আমরা সকলেই কোন না কোন পরিবার থেকে এসেছি। প্রাথমিকভাবে আমাদের শিক্ষার হাতে খড়ি পেয়ে থাকি পরিবার থেকেই। পরিবারের সকল সদস্যদের আচার আচরণ আমাদের প্রভাবিত করে। শিশুরা অনুকরণপ্রিয় যাদের আচরণ সহজবোধ্য ও পছন্দনীয় হয় তারা সে আচার ব্যবহারই অনুকরণ করে। তাই আমাদের উচিত আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে সুন্দর আগামী রূপায়ণে সুশৃঙ্খল সমাজিক পরিবেশ সৃষ্টি করা। একটি শিশুর সামনে কখনও খারাপ কথা বলা, ধমক দেয়া থেকে বিরত থাকা। ভুল করলে শারীরিক শাস্তি না দিয়ে বুঝিয়ে বলা, বার বারই বোঝাতে হবে। তারপরও শারীরিক শাস্তি দেয়া যাবে না, মাঝে সাজে ভয় দেখানো যেতে পারে এমন ভয় নয় যা মনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। প্রায় সময়ই দেখা যায় অভিভাবকরা তার ছেলেমেয়ের প্রতি চাপ প্রয়োগ করে বিশেষ করে লেখাপড়া নিয়ে। যা করা মোটেও ঠিক নয়; কারণ এই মানসিক চাপ অনেক সময় উপকারের চেয়ে অপকারই বেশি হয়। একটি শিশুর মন ও মানসিকতা একদিনে পরিপক্বতা পায় না, এটি দীর্ঘদিন ধরে চলমান একটি প্রক্রিয়া। তাই একদিনে রাজ্যজয় না করে, সময় নিন। চলতে দিন শিশুর নিজ ইচ্ছামতো। আর অভিভাবক হিসেবে এই চলার মাঝেই তাকে তার লক্ষ্য সম্পর্কে অবহিত করুন। লক্ষ্যে পৌঁছাবার পথ সৃষ্টি করে দিন। শিশুকে স্বপ্ন দেখান, দেখবেন বাস্তবায়নের পথ সে নিজেই খুঁজে নেবে। কারণ মাশরাফি হয়ে জন্ম নেয়া ছেলেটা জাফর ইকবালের মতো শব্দের মালা গাঁথবে না। ইবনে বতুতা স্বভাবের ছেলেটি সারাদিন বইয়ের পৃষ্ঠায় চোখ রাখবে না। পরিবেশ পরিস্থিতি আর পরিবারের আনুকূল্য পরিবেশ একটি শিশুকে তার লক্ষ্য পৌঁছাবে।অভিভাবকের মানসিক চাপ আর কড়া শাসনে একটি শিশু কখনই স্বাভাবিক মনোভাব পোষণ করতে পারে না। মানসিক চাপ আর শারীরিক নির্যাতনের ফলে সুপথে পরিচালিত না হয়ে, অনেক সময় পথভ্রষ্ট হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে। তাই সুন্দর একটি সমাজ ও ফুলের মতো সুশোভিত দেশ প্রতিষ্ঠায় আজকের শিশুকে আগামী দিনের কাণ্ডারি হিসেবে গণ্য করতে হবে। সেই পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। মানসিক চাপ প্রয়োগ না করে বোঝাতে হবে। শারীরিক পীড়া না দিয়ে সুপথে চলার দীক্ষা দিতে হবে। এই গুরুত্বপূর্ণ গুরুদায়িত্বের জন্য পারিবারের কোন বিকল্প নেই। আসুন আমরা সকলে আমাদের প্রিয় প্রজন্মকে মানসিক চাপ ও শারীরিক পীড়া ব্যতীত সভ্য সমাজ ব্যবস্থা উপহার দেই।

কাপাসিয়া, গাজীপুর থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
ভারতে দৈনিক করোনাভাইরাস সংক্রমণে বড়সড় পতন ঘটেছে         এমসি’তে গণধর্ষণ ॥ কলেজ কর্তৃপক্ষের ব্যর্থতা চ্যালেঞ্জ করে রিট         নকল মাস্ক সরবরাহ ॥ জেএমআই চেয়ারম্যান গ্রেফতার         এমসি কলেজে গণধর্ষণ ॥ আরও ৩ জন রিমান্ডে         সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না পেলে রাজপথ ছাড়বেন না সৌদি প্রবাসীরা         এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণে বোর্ডের তিন প্রস্তাব         দুই আসামির জামিন বাতিলে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট         জাহালমের ক্ষতিপূরণের রায় পিছিয়ে বুধবার         এমসি কলেজে ধর্ষণ ॥ মামলার এজাহারভুক্ত শেষ আসামি গ্রেফতার         ওয়ানডে দিয়ে শুরু বাংলাদেশের নিউ জিল্যান্ড সফর         স্লোভেনিয়ায় বাংলাদেশিসহ ১১৩ অভিবাসী আটক         আজারবাইজানে আর্মেনীয় আগ্রাসনের নিন্দা ওআইসি-র         আজারবাইজান- আর্মেনিয়া যুদ্ধ ॥ নিহত বেড়ে ৯৫         বিশ্বে করোনায় প্রতি ২৪ ঘণ্টায় ৫৪০০ জনের বেশি প্রাণহানি         জরুরি বৈঠকে বসছে নিরাপত্তা পরিষদ         মালির নতুন প্রধানমন্ত্রীর নাম ঘোষণা         ফিলিস্তিনি কিশোরকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিল ইসরাইল!         আজারবাইজানে চার হাজার যোদ্ধা পাঠিয়েছে তুরস্ক : আর্মেনিয়া         পুঁজিবাজারে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন চলছে         নেদারল্যান্ডে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকাতে নতুন নিয়ম