রবিবার ৬ আষাঢ় ১৪২৮, ২০ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ফিটনেস সমস্যা নিয়েও স্বর্ণজয় হানিয়ুর

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পুরোপুরি ফিট ছিলেন না। শারীরিক যে সক্ষমতা প্রয়োজন একটি সর্বোচ্চ পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার জন্য তারচেয়ে অনেক কম ছিল সামর্থ্য। জাপানের ‘বরফ রাজকুমার’ খ্যাত ইয়ুজুরু হানিয়ু দাবি করেছেন তিনি ৭৫ ভাগ ফিটনেস নিয়ে এবার শীতকালীন অলিম্পিকে অংশ নিয়েছেন। হয়তো অনেকেই এটাকে নিছক বড়াই বলেই দাবি করবেন। কিন্তু আড়াই মাস আগে গোড়ালির ইনজুরির কারণে এবার দক্ষিণ কোরিয়ার পিয়ংচ্যাংয়ে শীতকালীন অলিম্পিকের দলীয় ইভেন্টে অংশ নেননি। গোড়ালির ওপর বাড়তি চাপ পড়ার শঙ্কায় তিনি শুধু ব্যক্তিগত ইভেন্টে অংশ নিয়েছেন। এখান থেকেই তার ফিটনেস নিয়ে যে দাবি তার প্রমাণ পাওয়া যায়। এরপরও ৬৬ বছর আগের রেকর্ড স্পর্শ করে টানা দুই অলিম্পিকে স্বর্ণ জিতেছেন হানিয়ু। শীতকালীন অলিম্পিক শুরুর মাত্র মাস দুয়েক আগে হানিয়ু অনুশীলনের সময় চোট পেয়েছিলেন গোড়ালিতে। পিয়ংচ্যাংয়ে তার অংশগ্রহণ নিয়েই সংশয় দেখা দেয়। যদিও জাপানের প্রতিভাবান এই স্কেটারকে এবারের আসরে খেলার সুযোগ তৈরি করে দেয়ার সর্বোচ্চ চেষ্টার কথা জানান দেশটির অলিম্পিক কমিটির প্রধান। শেষ পর্যন্ত হানিয়ু নিজেই জানান তিনি শুধু ব্যক্তিগত ইভেন্টে অংশ নেবেন। জাপানের দলগত ইভেন্টে তিনি অনুপস্থিত থাকেন। তবে ২৩ বছর বয়সী এ ফিগার স্কেটার অংশ নেন ব্যক্তিগত ইভেন্টে। ফিগার স্কেটিংয়ের সুপারস্টার ৩ মাসের ইনজুরি ধাক্কা থেকে ফিরে গড়েছেন এক রেকর্ড। ১৯৪৮ ও ১৯৫২ সালে সর্বশেষবার শীতকালীন অলিম্পিকে টানা দুইবার ফিগার স্কেটিংয়ে স্বর্ণপদক জয়ের কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের ডিক বাটন। ৬৬ বছর আগের সেই রেকর্ড ছুঁয়েছেন হানিয়ু পুরুষদের ব্যক্তিগত ফিগার স্কেটিংয়ের স্বর্ণ জিতে। ২০১৪ সালে সোচি অলিম্পিকেও স্বর্ণ জিতেছিলেন এ জাপানের তারকা। এমন জয়ের পর হানিয়ু বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে আমি যদি গোড়ালির বর্তমান পরিস্থিতির সঙ্গে আগের যে কোন সময়ের তুলনা করি তাহলে বলব সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় আছি এখন। ব্যথার উন্নতি হয়েছে শুধু ২০ থেকে ৩০ ভাগ। যাই হোক, এর মধ্যেও ব্যথানাশক গ্রহণ করে আমি স্বর্ণপদক জিততে সক্ষম হয়েছি।’ এখন হানিয়ু তার পরবর্তী চ্যালেঞ্জ নিয়েই ভাবছেন।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৭৭০৯৫৪৫৫
আক্রান্ত
৮৪৪৯৭০
সুস্থ
১৬১৩০৪৬০১
সুস্থ
৭৭৮৪২১
শীর্ষ সংবাদ:
বিষ ছড়াচ্ছে পলিথিন ॥ হুমকির মুখে জনস্বাস্থ্য ও প্রাকৃতিক পরিবেশ         প্রধানমন্ত্রী আজ ৫৩ হাজার পরিবারকে দিচ্ছেন জমি ও ঘর         রাজধানীতে একই পরিবারের ৩ জন খুন         গণটিকাদান কর্মসূচী শুরু         পুঁজিবাজারের সামনে ভাল ভবিষ্যৎ রয়েছে         প্রিয় পিতার জন্য ভালবাসা         ভুটানের সঙ্গে পিটিএ কার্যকর হচ্ছে নতুন বছরে         করোনায় একদিনে মৃত্যু বেড়ে ৬৭         করোনা বেড়ে যাওয়ায় পর্যটনশিল্প ফের অনিশ্চয়তায়         নাসির ও অমির তিন রক্ষিতা কারাগারে         রোহিঙ্গাদের এনআইডি পাওয়ার নেপথ্যে চাঞ্চল্যকর জালিয়াতি         প্রাকৃতিক গ্যাস অনুসন্ধানই জ্বালানি নিরাপত্তার অন্যতম উপায়         প্রমাণ সরবরাহ করলে তথ্য দেবে সুইস ব্যাংক         সাবেক জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা         একই স্থানে সব সেবা প্রদান সুবিধা থাকা বাঞ্ছনীয় : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্য ৬৭         “১২ বছর আগের পিছিয়ে পরা বাংলাদেশ আজ অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে”         খুলনা বিভাগে একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৬২৫         দেশব্যাপী সিনোফার্মের ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু         ‘আবার ব্যাপকভাবে জনগণকে টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হবে’