রবিবার ৫ বৈশাখ ১৪২৮, ১৮ এপ্রিল ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মোদীর উন্নয়নের মডেল আসলে ভুল ॥ রাহুল গান্ধী

মোদীর উন্নয়নের মডেল আসলে ভুল ॥ রাহুল গান্ধী

অনলাইন ডেস্ক ॥ তিনি যেখানেই যান, উন্নয়নও নাকি তাঁর পিছনে পিছনে দৌড়য়— গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী থাকার সময় এমনই একটি ছবি তৈরি করেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। উন্নয়নের সেই ‘গুজরাত মডেল’কেই প্রধানমন্ত্রী হয়ে গোটা দেশে কার্যকর করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন। কিন্তু কোথায় সেই উন্নয়ন— এই প্রশ্ন তুলে গত দু’বছর ধরেই সরব দেশের বিরোধীরা। গুজরাতে গিয়ে খোদ রাহুল গান্ধী সেটি নিয়ে প্রশ্ন উস্কে দেওয়ার পরে বিরোধীদের বক্তব্য, মোদী জমানায় উন্নয়ন তো ‘পাগল’ হয়ে গিয়েছে।

অগত্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাহুলের গুজরাত সফরের পরেই সে রাজ্যের উন্নয়ন নিয়ে পাল্টা প্রচারে নামতে হয়েছে মোদীর দলকে। ‘আমি উন্নয়ন, আমি গুজরাত’ শীর্ষক একগুচ্ছ ভিডিও তৈরি করে প্রচারে নেমেছে বিজেপি।

গত কয়েক মাস ধরেই গুজরাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি প্রচার শুরু করেছে কংগ্রেস— ‘বিকাশ গান্ডো থয়ো ছে’, অর্থাৎ উন্নয়ন পাগল হয়ে গিয়েছে! কংগ্রেসের বক্তব্য, মোদী শুধু মুখেই ‘উন্নয়ন উন্নয়ন’ করেন। বাস্তবে তার চিহ্নও দেখা যায় না। সে কারণেই এই প্রচারের ভাবনা। ওই প্রচার শুরু করার পরে যেখানে যা খামতি চোখে পড়েছে, তার ছবি তুলে ধরে কংগ্রেস বলতে শুরু করেছে, ‘বিকাশ গান্ডো থয়ো ছে!’ চলতি সপ্তাহের গোড়ায় গুজরাত সফরে গিয়ে রাহুলও বিভিন্ন সভায় সেই প্রসঙ্গ তোলেন। শুধু তাই নয়, নোট বাতিল আর জিএসটি চালুর পরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছে, সেটিকেও পুঁজি করার চেষ্টা করেন কংগ্রেসের সহ-সভাপতি।

রাহুল কটাক্ষ করে বলেন, ‘‘উন্নয়নের হল কী? পাগল কী করে হয়ে গেল?’’ ভরা সভায় এ কথা বলতেই হাসির রোল উঠেছে জনতার মধ্যে। কারণ, মোদীর উন্নয়ন নিয়ে এমন মস্করা এখন লোকের মুখে-মুখে। রাহুলও বিষয়টিকে আরও উস্কে দিয়ে বলেন, ‘‘মিথ্যা বলে বলে উন্নয়নও এখন পাগল হয়ে গিয়েছে! মানুষও বুঝতে পারছে, নরেন্দ্র মোদীর উন্নয়নের মডেল আসলে ভুল। বেলাইন হওয়া এই উন্নয়নকেই লাইনে আনতে হবে।’’ রাহুলের মুখ থেকে এ কথা শোনার পরে রাজ্য কংগ্রেস বিষয়টি নিয়ে প্রচারের জোর বাড়িয়েছে। কারণ আর ক’মাস পরেই গুজরাতে বিধানসভা ভোট। মোদীর খাসতালুকেই উন্নয়ন নিয়ে এমন তামাশা শুরু হওয়ায় তড়িঘড়ি পাল্টা ভিডিও-প্রচার শুরু করতে হয়েছে বিজেপিকে।

বিজেপি যে নতুন ভিডিও তৈরি করেছে, তা পুরোদস্তুর গুজরাতি ভাষায়। গুজরাতের ‘মর্যাদা’কে মোদীর উন্নয়নের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে। ভিডিও জুড়ে শুধুই মোদীর বন্দনা। মুখ্যমন্ত্রী থাকার সময় থেকে কী ভাবে বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন করেছেন, সেই দাবিই তুলে ধরা হয়েছে তাতে। বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে, বছর শেষে গুজরাত ভোটে মুখ মোদীই।

বিজেপির এক নেতা কবুল করেন, ‘‘লোকসভা ভোটের আগে নরেন্দ্র মোদীই সোশ্যাল মিডিয়ায় কী করে দাপাতে হয়, তা শিখিয়েছিলেন। এখন সেই মিডিয়াই বুমেরাং হচ্ছে!’’ গুজরাত নিয়ে মোদী ও অমিত শাহের এই উদ্বেগের কারণেই অরুণ জেটলি, নির্মলা সীতারামনের মতো কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদেরও গুজরাতের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাতেও উদ্বেগ বিশেষ কমছে না।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৩৯৮০৯২৪৪
আক্রান্ত
৭১১৭৭৯
সুস্থ
১১৮৮৩৬২৩৩
সুস্থ
৬০২৯০৮
শীর্ষ সংবাদ:
আর হয়রানি নয় ॥ অনলাইনে ভূমি ব্যবস্থাপনা         বাঁশখালীতে ত্রিমুখী সংঘর্ষ         মুজিবনগর দিবসে অপশক্তিকে পরাস্ত করার শপথ         আতিকউল্লাহ খান মাসুদের মৃত্যুতে শোক অব্যাহত         বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কবরী         ফেসবুকের পোস্টটিই শাহীনের জন্য কাল হয়ে দাঁড়াল         করোনায় ২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০১ রোগীর মৃত্যু         বিশেষ ফ্লাইটের প্রথম দিনেই হোঁচট         এবারের নির্বাচনে তৃণমূল সাফ হয়ে যাবে         বিএনপি-জামায়াত হেফাজতের ৪ শতাধিক নেতাকর্মী পলাতক         লকডাউনে কারখানা মালিকরা পরিবহনের ব্যবস্থা করেননি         বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ৪৬৭ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক         বিদেশী বিনিয়োগ আকর্ষণে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হবে         খালেদা জিয়ার অবস্থা স্থিতিশীল         জলবায়ু বাস্তুচ্যুতদের জন্য ‘বিশেষ বৈশ্বিক উদ্যোগ’ দাবি নাগরিক সমাজের         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১০১         বাঁশখালী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ ॥ নিহত ৫         মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা         বনানী কবরস্থানে চিরশায়িত হলেন কবরী         “করোনা ও সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাজিত করাই বর্তমানে বড় চ্যালেঞ্জ”