ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

জনকন্ঠে সংবাদ প্রকাশ: হার্টে ছিদ্র শিশু সানীকে চেক প্রদান 

মো. মামুন চৌধুরী,হবিগঞ্জ

প্রকাশিত: ১১:১৬, ৫ ডিসেম্বর ২০২২

জনকন্ঠে সংবাদ প্রকাশ: হার্টে ছিদ্র শিশু সানীকে চেক প্রদান 

সানীর মায়ের হাতে অনুদানের চেক প্রদান করেন ইউএনও নাজরাতুন নাঈম 

হার্টে ছিদ্র শিশু আশরাফুল ইসলাম সানীর চিকিৎসায় ১০ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হয়েছে। সোমবার সকালে হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ তালুকদার ইকবাল ও ইউএনও নাজরাতুন নাঈমের স্বাক্ষরিত চেকটি গ্রহণ করেন সানীর মা মঞ্জিলা খাতুন। নিজ কার্যালয়ে চেকটি প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজরাতুন নাঈম। 

এর আগে ২১ নভেম্বর দেশের বহুল প্রচারিত জনপ্রিয় দৈনিক জনকন্ঠের অনলাইন ও ডিজিটাল প্লাটফর্মে সানীকে নিয়ে একটি মানবিক সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদটি দৃষ্টিগোচর হয় উপজেলা প্রশাসনের। এ প্রেক্ষিতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউএনও, ভাইস চেয়ারম্যানরা অনুদান প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। শিশু আশরাফুল ইসলাম সানী শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার পূর্ব বাগুনীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা অটোরিকশা চালক আব্দুল আলী ও গৃহিণী মঞ্জিলা খাতুনের ছেলে।

সানী অসুস্থ হওয়ার পর শুরু হয় কবিরাজি ঝাড়ফুকের চিকিৎসা। কিন্তু রোগ সারার কোনো লক্ষণ না দেখে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় হার্টে ছিদ্র ধরা পড়ে শিশুটির। এর জন্য শিশুটির অপারেশন প্রয়োজন। প্রায় দুই শতকের জমিতে একটি ঝুপড়ি ঘর। ঘরের বেড়া ভেঙে পড়ছে। টিনের চাল ফুটো। ঝুঁকিপূর্ণ এ ঘরে সানীদের বসবাস। শায়েস্তাগঞ্জ-হবিগঞ্জ সড়কে অটোরিকশা চালিয়ে সংসার চালাতে গিয়ে হিমসিম খেতে হচ্ছে পিতা আব্দুল আলীকে। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজরাতুন নাঈম বলেন, উপজেলা পরিষদ ও উপজেলা প্রশাসন থেকে ১০ হাজার টাকার চেক প্রদান করেছি। পরবর্তীতে উপজেলা সমাজসেবার মাধ্যমে আরো ৫০ হাজার টাকার চেক প্রদান করা হবে। দরিদ্র পরিবারের এ শিশুটির চিকিৎসায় সমাজের হৃদয়বান লোকজনকে এগিয়ে আসা উচিৎ। শিশু সানীকে নিয়ে জনকন্ঠে মানবিক সংবাদ প্রকাশ হয়। 

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ তালুকদার ইকবাল বলেন, উপজেলার পক্ষ থেকে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। সমাজসেবার মাধ্যমে আরো প্রদান করা হবে। 

সানীর বাবা আব্দুল আলী ও মা মঞ্জিলা খাতুন অনুদানের চেক পেয়ে চেয়ারম্যান এবং ইউএনও’র প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অসুস্থ শিশু সন্তানকে নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করায় তারা দৈনিক জনকন্ঠ ও প্রতিবেদককে ধন্যবাদ জানান। এছাড়া সমাজের হৃদয়বান ব্যক্তিদের কাছে আর্থিক অনুদান কামনা করে শিশু সন্তানের জন্য তারা সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। 

টিএস

monarchmart
monarchmart