২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাজি ধরায় অস্ট্রেলিয়ার আরেক নারী ক্রিকেটার নিষিদ্ধ


বাজি ধরায় অস্ট্রেলিয়ার আরেক নারী ক্রিকেটার নিষিদ্ধ

অনলাইন ডেস্ক ॥ এই গীষ্মে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় নারী ক্রিকেটার ক্রিকেট বেটিং বা জুয়ায় ধরা পড়লেন। আর এই অপরাধে ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটার পিয়েপা ক্লিয়ারিকে ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তিনি বাজি ধরেছিলেন গত নভেম্বরে অ্যাডিলেডে অনুষ্ঠিত অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড প্রথম দিবা-রাত্রির ম্যাচ নিয়ে।

১৯ বছরের ক্লিয়ারি মোট ছয়টি বাজি ধরেছিলেন। ম্যাচের বিভিন্ন বিষয়ে ছিল সেইসব বাজি। এর মোট মূল্যমান ছিল ১৫.৫০ ডলার। বিশ্বকাপের ম্যাচ নিয়ে বাজি ধরে এর আগে শাস্তি পেয়েছেন আরেক নারী খেলোয়াড় অ্যাঞ্জেলা রিকেস। তার মতো ক্লিয়ারিকেও দুই বছরের স্থগিত শাস্তি দেয়া হয়েছে।

রিকেস সরাসরি নিষিদ্ধ হননি। কিন্তু ক্লিয়ারি ৬ মাসের জন্য ক্রিকেটের কোনো কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না। বিভিন্ন বিষয় বিবেচনা করা হয়েছে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নৈতিকতা কমিটির প্রধান ইয়ানি রয় বলেছেন, দুর্ণীতি বিষয়ক ট্রেনিংয়ের দুই মাসের মধ্যে ক্লিয়ারি এই বাজিতে অংশ নিয়েছেন। আর সেই কারণে তার শাস্তিটা বেশি হয়েছে।

"সব এলিট ক্রিকেটার ও কর্মকর্তাদের আমরা মনে করিয়ে দিতে চাই যে ক্রিকেটে যে কোনো ধরণের বাজি নিষিদ্ধ। বার্ষিক যে দুর্ণীতি বিষয়ক শিক্ষা আমরা দেই তাতে স্পষ্ট উল্লেখ থাকে তা।" রয় বলেছেন, "আমাদের দেয়া শিক্ষার মাধ্যমে পিয়েপা এটা বারবারই জেনেছে। তারপরও ভুল করেছে। ১৫.৫০ ডলারের বাজি হয়তো ছোটো, কিন্তু এটা বিবেচ্য না।" বাজি ছোটো না বড় তা আসলে ব্যাপার না। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তাদের খেলোয়াড়দের সব ধরণের বাজি থেকে দুরে রাখতে চায়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: