মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৭ আগস্ট ২০১৭, ২ ভাদ্র ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

রাজধানীতে গৃহবধূ হত্যা, স্বামী আটক, গৃহকর্মীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০১৫, ০১:০০ এ. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মহাখালীতে ঝুমুর আক্তার (২৮) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী মিজানুর রহমানকে পুলিশ আটক করেছে। অপরদিকে ডেমরায় এক গৃহকর্মী আত্মহত্যা করেছে।

মহাখালীর ওয়্যারলেসগেট এলাকার জিপি-জি-১৭৬ নম্বর বাসার ষষ্ঠতলা থেকে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত ঝুমুর আক্তার বরিশাল জেলার বানারীপাড়া উপজেলার সৈয়দকাঠী গ্রামের সোবহান হাওলাদারের মেয়ে।

নিহতের মামাত ভাই এনায়েত করীম জানান, ১২ বছর আগে মিজানুর রহমানের সঙ্গে তার বোনের বিয়ে হয়। তাদের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে। তারা মহাখালীর ওই বাসায় ভাড়া থাকেন। তিন বছর আগে মিজানুর গোপনে আর একটি বিয়ে করেন ও বনানী এলাকায় দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে থাকেন। বিষয়টি ঝুমুর আক্তার জানার পর এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া বাধত। সোমবার রাত ৩টার দিকে মিজানুর বাসায় আসেন। পরে স্ত্রী তাকে প্রশ্ন করেন তিনি কোথায় ছিলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিত-া হয়। ওই বাসায় থাকতেন ঝর্ণার শ্বশুর নূরুল ইসলাম। শ্বশুর তার ছেলেকে বলেন, প্রায়ই এই ঝামেলা হয় এটা মিটিয়ে ফেলতে হবে। এরপর ঝুমুর স্বামী তাকে মারধর করে বাথরুমের পাশে ফেলে রাখেন।

বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন জানান, খবর পেয়ে ওই বাসার ষষ্ঠতলার বাথরুমের পাশ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। তার গলায় ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী মিজানুর রহমানকে আটক করা হয়েছে।

এ ছাড়া ডেমরায় মোছা. সুমি আক্তার (১৮) নামে এক গৃহকর্মীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাত সোয়া ১১টায় ডেমরার বাহির টেংরার ভার্জিন বেকারি সংলগ্ন মোঃ শাহ আলমের বাড়ি থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মৃত সুমি কুমিল্লার বড়ুরা থানার এগারকান্দা গ্রামের শফিউল্লার মেয়ে।

ডেমরা থানার উপ-পরিদর্শক কুদ্দুস জানায়, গৃহকর্মী সুমি গত ৩ বছর যাবত শাহ আলমের বাড়িতে কাজ করত। সোমবার বিকেলে হঠাৎ সুমির ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে তাকে ডাকাডাকি করতে থাকে ঘরের লোকজন। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ ডাকাডাকির পর ভেতর কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে শাহ আলম পুলিশে খবর দেয়।

এদিকে সন্ধার পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ভেতর থেকে সুমির ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে গ্রাম থেকে তার বাবা মায়ের আসার অপেক্ষা করতে থাকে। পরে রাত সোয়া ১১টায় সুমির বাবা মায়ের উপস্থিতিতে দরজা ভেঙ্গে বৈদ্যুতিক পাখার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় সুমির মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ডেমরা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে সুমির আত্মহত্যার কোন নির্দিষ্ট কারণ জানা যায়নি বলেও জানায় পুলিশ।

প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০১৫, ০১:০০ এ. এম.

২৮/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

জাতীয়



শীর্ষ সংবাদ: