ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯

কাজ করবেন টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত

শ্রীরামের শরণাপন্ন বাংলাদেশ

মোঃ মামুন রশীদ

প্রকাশিত: ০১:১৬, ২০ আগস্ট ২০২২

শ্রীরামের শরণাপন্ন বাংলাদেশ

শ্রীধরন শ্রীরামের

বাংলাদেশের সঙ্গে শ্রীধরন শ্রীরামের নামটা বেশ জড়িয়ে আছেভারতের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের প্রথম জয় ২০০৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে১৫ রানের সেদিন ভারতকে হারিয়ে ঐতিহাসিক জয় পায় বাংলাদেশ দলওই ম্যাচে ক্যারিয়ারসেরা ৫৭ রান করেন শ্রীরাম ৪ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে

দলের সর্বোচ্চ স্কোরার হয়েও ১৫ রানের হার ঠেকাতে পারেননিসেটি আবার ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ ছিল শ্রীরামেরবাঁহাতি এই মিডলঅর্ডার ব্যাটার আবার বাঁহাতি স্পিনেও ছিলেন কার্যকরআন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্যারিয়ার তেমন সমৃদ্ধ না হলেও প্রথম শ্রেণী ও লিস্ট ক্রিকেটে দারুণ পারফর্মেন্স দেখানো শ্রীরামের কোচিং ক্যারিয়ারটা বেশ সমৃদ্ধতাকেই এবার সঙ্কটাপন্ন বাংলাদেশ টি২০ দলের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)

টি২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশের দুর্বলতা কাটাতেই তাকে আগামী টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত দায়িত্ব দিচ্ছে বিসিবিযদিও প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর জায়গায় শ্রীরামই কোচ হচ্ছেন এমন গুঞ্জন আছে, কিন্তু বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন পরিষ্কার করে কিছু বলেননিরবিবার বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে ৪৬ বছর বয়সী শ্রীরামের

বাংলাদেশ টি২০ দলের কোচ হিসেবে ডোমিঙ্গো নাও থাকতে পারেনএশিয়া কাপ থেকেই টি২০ দলে ব্যাপক পরিবর্তনের ঘোষণা ১ দিন আগেই দেন বিসিবি সভাপতি পাপনতারই প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে শ্রীরামের নিয়োগকে বিবেচনা করা হচ্ছেসেক্ষেত্রে ডোমিঙ্গোকে শুধু ওয়ানডে ও টেস্টের দায়িত্বে রাখার সম্ভাবনা রয়েছে

আর শ্রীরাম পুরোপুরি টি২০ দলের দায়িত্ব নেবেনযদিও ডোমিঙ্গোকে টি২০ দল থেকে সরিয়ে দেয়ার বিষয়ে পাপন কিছু বলেননিতিনি এ বিষযে বলেছেন, ‘শ্রীরামকে আমরা সংক্ষিপ্ত তালিকায় রেখেছিলামআমাদের এখানে ২১ তারিখ (আগস্ট) দুপুর বেলা আসার কথা তারঅবশ্যই হেড কোচ হিসেবে আসছে নাসে আসছে টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট হিসেবেভারতের হয়ে ২০০০ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত অনিয়মিতভাবে মাত্র ৮ ওয়ানডে খেলার সুযোগ পেয়েছেন বাঁহাতি ব্যাটিং অলরাউন্ডার শ্রীরাম

এই ৮ ম্যাচে মিডলঅর্ডারে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৩.৫০ গড়ে মাত্র ৮১ রান করেছেন এবং বাঁহাতি স্পিনে ৯ উইকেট নিতে পেরেছেন তিনিবিতর্কিত টি২০ আসর ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লীগ (আইসিএল) এবং পরবর্তীতে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) কিছু ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন ক্যারিয়ারের শেষদিকেস্বীকৃত টি২০ খেলেছেন তিনি ১৫টিমাত্র ২১.১৮ গড়ে ২৩৩ রান ৯৯.৫৭ স্ট্রাইকরেটে এবং ৪ উইকেট আছে শ্রীরামের

এমন ক্যারিয়ার যার তাকে কেন বিসিবি টি২০ দলের দায়িত্বে আসীন করছে? এর মূল কারণ খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ার তেমন ভাল না হলেও কোচিং ক্যারিয়ার দারুণ সমৃদ্ধ শ্রীরামেরএ বিষয়ে পাপন বলেন, ‘কতগুলো বিবেচনায় তাকে আনা হয়েছেযেহেতু আইপিএলের সঙ্গে সম্পৃক্ততা আছেআমরা এমন কাউকে চাচ্ছিলাম যার সঙ্গে টি২০ সম্পৃক্ততা আছে, অভিজ্ঞতা আছেআর যেহেতু খেলা অস্ট্রেলিয়ায়, সে অস্ট্রেলিয়ায় অনেক দিন কাজ করেছেএই দুটি কারণে তাকে আমরা বিশ্বকাপ পর্যন্ত নিয়েছি

২০১৮ থেকে ২০২২ পর্যন্ত শ্রীরাম অস্ট্রেলিয়ার সহকারী কোচ হিসেবে কাজ করেছেনএছাড়া ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করেছেন তিনি২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়া দলের ভারত সফরে দারুণ কাজ করার পর তিনি একই বছর বাংলাদেশ সফরে অসি জাতীয় দলের স্পিন কোচ হিসেবে আসেনপরে ২০১৬ টি২০ বিশ্বকাপেও অস্ট্রেলিয়ার স্পিন কোচ ছিলেন২০১৮ সালে অবারও অস্ট্রেলিয়ার স্পিন কোচ হন ভারতের বিপক্ষে ৪ টেস্টের হোমসিরিজে

২০২১ টি২০ বিশ্বকাপ জয়ী অসি দলেরও স্পিন কোচ ছিলেন তিনি২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার টি২০ গ্লোবাল লীগের প্রথম আসরেই শ্রীরাম জোহানেসবার্গ জায়ান্টসের কোচ হিসেবে কাজ করেনএছাড়া ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) দিল্লী ডেয়ার ডেভিলসের সহকারী কোচ এবং পরবর্তীতে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যঙ্গালুরুর (আরসিবি) দায়িত্ব পালন করেছেন শ্রীরাম২০১৯ সালে একাধারে দলটির ব্যাটিং ও স্পিন বোলিং কোচ ছিলেন তিনিটি২০ ক্রিকেটে শ্রীরামের এত কোচিং অভিজ্ঞতার কারণেই তাকে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব দেয়া হয়েছেতবে ডোমিঙ্গোকে টি২০ দলের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার যে গুঞ্জন, সে বিষয়ে পাপন বলেন, ‘এটা আমরা এখনও ঠিক করিনি২২ তারিখ (আগস্ট) সবার সঙ্গে বসা হবেবসে আমরা সিদ্ধান্টত নেবঅনেক পরিবর্তনই আসবে

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র অর্ধশতক হাঁকানোর ম্যাচে ভারতের হার দেখেন শ্রীরামসেটি তার শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচতবে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট ও লিস্ট ক্রিকেটে দুর্দান্ত ছিলেন শ্রীরামএমনকি রঞ্জি ট্রফিতে এক মৌসুমে ১০৭৫ রান করার রেকর্ডও আছে তারসবমিলিয়ে প্রথম শ্রেণীর ১৩৩ ম্যাচে ৩২ সেঞ্চুরি ও ৩৬ হাফ সেঞ্চুরিতে ৫২.৯৯ গড়ে এ বাঁহাতি ৯৫৩৯ রান করেনসর্বোচ্চ ২৮৮উইকেট নেন ৮৫টি

আর ৫০ ওভারের স্বীকৃত ১৪৭টি ম্যাচে ৩৩.৬২ গড়ে ৪ সেঞ্চুরি ও ২৬ হাফ সেঞ্চুরিতে ৪১৬৯ রান করেন তিনিসর্বোচ্চ অপরাজিত ১৪৮এছাড়া ১১৫ উইকেট নিয়েছেন এ-ই ফরম্যাটে২০১২ সালে পেশাদার ক্রিকেটে সর্বশেষ লিস্ট ম্যাচ খেলে কোচিংয়ে মনোযোগী হন শ্রীরামআর কোচিং পেশায় নজর কাড়েন সবারইঅন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্বে গত বছর আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে ভারতের দায়িত্বও পালন করেন শ্রীরামএখন বাংলাদেশ দলের টি২০ ক্রিকেটে উন্নতি আনার ক্ষেত্রে এ ভারতীয় কোচ কেমন করেন সেটাই দেখার অপেক্ষাতিনি নিজে অবশ্য বাংলাদেশের হয়ে কাজ করতে মুখিয়ে আছেন

শ্রীরাম বলেন, ‘২৫ বছরের ক্রিকেট অভিজ্ঞতা এবং এলিট পর্যায়ে ৯ বছরের কোচিং অভিজ্ঞতা নিয়ে আমি আসছিবাংলাদেশের খেলোয়াড়দের সঙ্গে কাজ করার জন্য সত্যিই মুখিয়ে আছিআমি বিশ্বাস করি বাংলাদেশের সাদা বলের ক্রিকেট অনেক বেশি সামর্থ্য আছেএই মেধাসম্পন্ন দলের সঙ্গে দুটি উচ্চ পর্যায়ের ইভেন্টে সংযুক্ত থাকার ভাবনাটা আমাকে বেশ উদ্বেলিত করছে