ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

কবতিা

প্রকাশিত: ২২:২৮, ২৪ আগস্ট ২০২৩

কবতিা

-

ম্লেচ্ছপাঠ

আতাতুর্ক কামাল পাশা 
 
আগাছারা ম্লেচ্ছ সবে পড়ে ছিলো তীরে 
তরীতে দেয়নি ঠাঁই শুদ্ধব্রাহ্ম্য ভরাধানে চলে গেছে সাগরে ওপারে

ভবানী পাঠক 
দেবী চৌধুরানী
তোমার মুকুট দেখে নত শিরে ওরা 
বানিয়েছে যবনেরে ডাকাত লুটেরা
এক দলে বাংলা বুকে করে যায় দান
অন্য দলে বলে এ কুজাত কুসন্তান

ইতিহাস চলে গেছে শ্মশানের ছাই
তবু সেই ইতিহাস ম্লেচ্ছ ভোলে নাই     


** ঐশ্বর্য

আদিত্য নজরুল

সংসার নেই, 
তবু বিপুল মুগ্ধতা নিয়ে ঘর সাজাই-
একটি সুন্দর ঘর
যেনো ভীষণ রকম প্রয়োজন।
একটি স্বপ্নের ঘর
যে ঘরের হাসির কবলে পড়ে
হারিয়ে ফেলবো
জীবনের সমুদয় বেদনাদায়ক স্মৃতি।

যে ঘরের দরজায়
কলিং বেলের শব্দ হলেই
ধুক-পুক করে
মন বলে ওঠবে
তুমি আসছোনা বলেই
ভাটি বেলার ছায়ার মতো দীর্ঘ হচ্ছিল অপেক্ষা।

সংসার নেই
তবু বাটিক প্রিন্টের                                    
বাহারি নকশায় ঘর সাজাই।
হয়তো বলবে
লাভ হয়েছে কী এতে?
যদি আমিও এমন
অদ্ভুত উদ্ভট প্রশ্নকরি!
-যে জীবনের
মুহূর্তের স্থায়িত্ব নেই
তাকে ঘিরে কেনো বিপুল আয়োজন?

×