ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ইউক্রেনের আরও দুটি গ্রাম দখলের দাবি রাশিয়ার

পূর্বাঞ্চলে তীব্র লড়াই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ০১:১৫, ২ ডিসেম্বর ২০২২

পূর্বাঞ্চলে তীব্র লড়াই

দোনেৎস্ক অঞ্চলে রাশিয়ার অবস্থান লক্ষ্য করে রকেট নিক্ষেপ করছে ইউক্রেইনীয় সেনারা

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে রুশ সৈন্যরা অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করছে এবং দক্ষিণাঞ্চলে খেরসন শহর লক্ষ্য করে ট্যাঙ্ক, মর্টার ও কামান থেকে গোলা ছুড়ছে বলে জানিয়েছে কিয়েভের সামরিক বাহিনী। বৃহস্পতিবার ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীর জেনারেল স্টাফ জানিয়েছে, পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্কে রাশিয়ার বাহিনীগুলো আরও অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করছে এবং বাখমুত ও নিকটবর্তী সোলেদার, ওপুয়েৎনেতসহ বেশ কয়েকটি শহর লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করছে। খবর আরটির।
এদিকে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় বাখমুত শহরের কাছে দুটি গ্রাম দখলের দাবি করেছে রাশিয়া। বৃহস্পতিবার রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক ব্রিফিংয়ে এই দাবি করেছে। গ্রীষ্মকালের শুরু থেকেই রাশিয়া বাখমুত দখলের চেষ্টায় আক্রমণ চালিয়ে যাচ্ছে। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, দোনেৎস্ক এলাকায় আক্রমণ অভিযানের পর রুশ সেনারা বিলোগরিভকা ও পারসা ট্রাভনিয়া বসতি পুরোপুরি মুক্ত করেছে। বিলোগরিভকা বাখমুকের ২৫ কিলোমিটার উত্তরে এবং পারসা ট্রাভনিয়া বাখমুতের দক্ষিণে ২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

দক্ষিণাঞ্চলে রাশিয়ার বাহিনীগুলো প্রতিরক্ষামূলক অবস্থান গ্রহণ করেছে এবং ইউক্রেনীয় বাহিনীর অবস্থান ও আঞ্চলিক রাজধানী খেরসন লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করছে বলে জানিয়েছে তারা। নভেম্বরের প্রথম দিকে রুশ বাহিনী খেরসন ছেড়ে যাওয়ার পর ইউক্রেনীয় বাহিনীগুলো নগরীটির নিয়ন্ত্রণ নেয়। ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলেও হামলা চালানো হচ্ছে বলে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে। রয়টার্স জানিয়েছে, যুদ্ধক্ষেত্রের এসব প্রতিবেদন তারা যাচাই করতে পারেনি।

ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, আমরা দখলদারদের উদ্দেশ্যে বিশ্লেষণ করে পাল্টা পদক্ষেপ নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি, এখনকার তুলনায় আরও কঠোর পাল্টা ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্সিয়াল প্রশাসনের উপপ্রধান কিরিলো তিমোশেঙ্কো জানিয়েছেন, খেরসনের ৬৫ শতাংশ ভোক্তার বিদ্যুৎ সংযোগ পুনর্বহাল করা হয়েছে।

জেলেনস্কি জানিয়েছেন, রাজধানী কিয়েভসহ ইউক্রেনের অধিকাংশ অঞ্চলের প্রায় ৬০ লাখ ভোক্তা বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে। ইউক্রেনের বিমান বাহিনীর মুখপাত্র ইউরি এহেনাত বলেছেন, যুদ্ধে রাশিয়া এ পর্যন্ত প্রায় ৪০০টি ইরানি ড্রোন পাঠিয়েছে আর সেগুলোর মধ্যে ৩৪০টিকে গুলি করে নামানো হয়েছে।
ইউক্রেনে উন্নত অস্ত্র ব্যবহার করা উচিত-শোইগু ॥ রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু বলেছেন, ইউক্রেনে চলমান সংঘাতে রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর নতুন উন্নত অস্ত্র ব্যবস্থা ব্যবহার করা উচিত। বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে রুশ সামরিক বাহিনীর সিনিয়র জেনারেলদের সঙ্গে বৈঠক করেন। 

সেখানে তিনি বলেন, বিশেষ সামরিক অভিযানের সময় তাদের প্রতিশ্রুতিশীল সিস্টেমের আধুনিকীকরণ এবং সৃষ্টি অব্যাহত রাখা প্রয়োজন। সের্গেই শোইগু রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্রদের একজন। এদিন সিনিয়র জেনারেলদের সঙ্গে বৈঠকে ইউক্রেনে কোন উন্নত অস্ত্র ব্যবহার করা উচিত তা নির্দিষ্ট করেনি তিনি।

monarchmart
monarchmart