ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ইউক্রেনের অর্ধেক বিদ্যুৎ ব্যবস্থা অকার্যকর

রুশ হামলা অব্যাহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:১৮, ১৯ নভেম্বর ২০২২

রুশ হামলা অব্যাহত

খেরসনে রুশ হামলার পর একটি ভবনে আগুন নেভানোর কাজ করছে অগ্নিনির্বাপণ কর্মী

ইউক্রেনজুড়ে জ্বালানি অবকাঠামো লক্ষ্য করে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে রুশ সেনারা। এতে দেশটির অর্ধেকেরও বেশি বিদ্যুৎকেন্দ্র বিকল হয়ে পড়েছে বলে দাবি দেশটির প্রেসিডেন্টের। এরই মধ্যে কিয়েভ পরিদর্শন শেষে ইউক্রেনকে আরও সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধি। এদিকে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিহত করতেই পোল্যান্ডে ভুলবশত ইউক্রেন হামলা চালিয়েছে বলে আবারো দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। খবর এএফপি ও বিবিসির।
রাশিয়ার দাবি, রুশ সেনারা আত্মসমর্পণ করলেও তাদের গুলি করে হত্যা করা হচ্ছে। শনিবার মারিওপোল, জাপোরিজিয়াসহ ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি শহরে একযোগে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় রুশ বাহিনী।

মূলত, জ্বালানি অবকাঠামো ও সামরিক স্থাপনা লক্ষ্য করেই হামলা চালানোর দাবি করেছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে হতাহতের পাশাপাশি বাড়ছে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ, বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ইউক্রেনের কোটি মানুষ। তবে বিভিন্ন অঞ্চলে প্রতিরোধ গড়ার কথা জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। পূর্বাঞ্চলীয় দোনেৎস্কে রুশ বাহিনীর অন্তত ১০০টি হামলা প্রতিহতের দাবি তার। এরই মধ্যে কিয়েভ পরিদর্শন শেষে ইউক্রেনকে আরও সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন ইইউর বাণিজ্যবিষয়ক কমিশনার। এদিকে পোল্যান্ডে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানোর ঘটনায় মস্কো-কিয়েভের পাল্টাপাল্টি দোষারোপের মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিহত করতেই পোল্যান্ডে ভুলবশত হামলা চালিয়েছে ইউক্রেন। হোয়াইট হাউস জানায়, এ ইস্যুতে ইউক্রেনীয়দের সঙ্গে মার্কিন ও পোলিশ কর্মকর্তাদের প্রাথমিক আলোচনা শেষে এমনটাই মনে করছে তারা। হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র বলেন, মার্কিন ও পোলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাটি স্পষ্ট করার জন্য ইউক্রেনের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন।
সাময়িক যুদ্ধবিরতির চিন্তা প্রত্যাখ্যান জেলেনস্কির ॥ ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি রাশিয়ার সঙ্গে সাময়িক যুদ্ধবিরতিতে যাওয়ার চিন্তা প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, এটি কেবলমাত্র পরিস্থিতিকে আরও খারাপ করবে। হ্যালিফ্যাক্স আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ফোরামে সম্প্রচারিত বক্তব্যে ইউক্রেনের নেতা বলেন, ফের শক্তি অর্জনে রাশিয়া এখন সাময়িক যুদ্ধবিরতির সুযোগ খুঁজছে। কেউ এটাকে যুদ্ধের পরিসমাপ্তি বলতে পারে। তবে এ ধরনের সাময়িক যুদ্ধবিরতি পরিস্থিতিকে কেবল আরও খারাপ করবে। এদিকে ইউক্রেনের খেরসন শহরে রুশ দখলদারিত্ব অবসানের পর ক্রমেই সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসছে। দীর্ঘ আট মাস পর শনিবার প্রথমবারের মতো কিয়েভ থেকে সেখানে একটি ইউক্রেনীয় ট্রেন ছেড়ে গেছে। ট্রেনটিতে ২০০ জনের মতো যাত্রী ছিল। 

টেলিগ্রামে দেওয়া পোস্টে এই ট্রেনযাত্রার ঘটনায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের দপ্তরের উপপ্রধান কিরিলো টিমোশেঙ্কো। তার ভাষায়, এটা আমাদের বিজয়ের ট্রেন। এই ট্রেনের মতো স্বাভাবিক জীবন ফেরাতে আমরা খেরসনে ফিরে যাব। এর আগে গত আট মাস ধরে রুশ দখলদারিত্বের মধ্যে ছিল এ অঞ্চলের বাসিন্দারা। তবে গত ৯ নভেম্বর রুশ সেনাদের খেরসনের পশ্চিম তীর থেকে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। সেপ্টেম্বরে যে চারটি ইউক্রেনীয় ভূখ-কে নিজেদের ভূখ- বলে ঘোষণা করে খেরসন সেগুলোর একটি।

monarchmart
monarchmart