ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

সংস্কৃতি সংবাদ

আর্কেডিয়া গ্যালারিতে নারী শিল্পীদের যৌথ প্রদর্শনী

সংস্কৃতি প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০০:১২, ৭ অক্টোবর ২০২২

আর্কেডিয়া গ্যালারিতে নারী শিল্পীদের যৌথ প্রদর্শনী

রাজধানীর বনানীর আর্কেডিয়া আর্টস গ্যালারিতে সমকালীন নারী শিল্পীদল ‘সাকো’র দলীয় চিত্র প্রদর্শনীতে দর্শনার্থীরা

প্রদর্শনালয়ে প্রবেশ করতেই নজর কাড়ে এলমুনিয়ামে গড়া ভাস্কর্যটি। বৃক্ষের ডালে ঝুলছে একটি দোলনা। সেটাতে চড়ে দুই পা শূন্যে ঝুলিয়ে বসে আছে এক নারী। আর তার পেছন থেকে দোলনাটিকে গতিময় করে রেখেছে এক পুরুষ। ফারজানা ইসলাম মিলকির গড়া দম্পতি শিরোনামের শিল্পকর্মটিতে উঠে ভালবাসা দৃশ্যকল্প। ভাস্কর্যের পাশে ঠাঁই নেয়া চিত্রকর্মটিতে উঠে এসেছে জীবনের ভিন্ন এক বাস্তবতা। বর্ণিল চিত্রপটে মাথায় ঝুড়ি নিয়ে সড়কে নেমেছে এক নারী। ঝুড়ির ভেতর উঁকি দিচ্ছে মাছের সারি।

শ্রমজীবী নারীর জীবনের আখ্যান মেলে ধরা সুফিয়া শিরোনামের ছবিটি এঁকেছেন ফরিদা জামান। কিছু ক্যানভাসে যাপিত জীবনের সমান্তরালে উঠে এসেছে নিসর্গের নান্দনিকতা। জীবন ও প্রকৃতিসংলগ্ন এমন শিল্পসম্ভার নিয়ে বনানীর আর্কেডিয়া আর্টস গ্যালারিতে চলছে প্রদর্শনী। নারী শিল্পীদের সংগঠন সাঁকোর অন্তর্ভুক্ত আটজন এবং আমন্ত্রিত তিন শিল্পীর কাজ নিয়ে সজ্জিত হয়েছে এই শিল্পায়োজন। ১১ নারী  শিল্পীর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত প্রদর্শনীটির শিরোনাম এফেমেরাল রিফ্লেকশন্স।   
সাদা শাড়ি লাল পাড় শীর্ষক সিরিজ ছবি এঁকেছেন চিত্রকর কুহু। সিরিজের তিনটি চিত্রকর্মে উদ্ভাসিত হয়েছে প্রকৃতির সঙ্গে মিশে থাকা এক রমণী। বিচিত্র অভিব্যক্তিতে ধরা দেয়া ওই নারীর চারপাশ ঘিরে রকমারি পুষ্প থেকে লতাপাতা। তিনটি ছবির কেন্দ্রে শাড়ি পরা একজন নারী হলেও তার মুখভঙ্গিতে রয়েছে ভিন্নতা। নীল রঙের প্রভাবিত চিত্রকর্মটিতে যুক্ত করেছে  ভিন্ন আবহ। ফারেহা জেবার এ্যাক্রেলিক মাধ্যমে আঁকা ছবিটির শিরোনাম  বীজের রূপান্তর বা ট্রান্সফরমেশন অব সিডস।

বীজের মধ্য দিয়ে পৃথিবীর প্রাণ, প্রকৃতির জীবনের গল্প উঠে এসেছে ক্যানভাসে। কনক চাঁপা চাকমার চিত্রকর্মে ওঠে এসেছে পাহাড়ী জীবন ও জনপদে গল্প। রেবেকা সুলতানা মলি মাস্কের আড়ালে থাকা রুপসি নারীকে এঁকেছেন ‘অজানা ভালবাসা’ সিরিজের ছবিতে। নাঈমা হক তার চারটি চিত্রকর্মে এ্যাক্রেলিকে সরু শরীরের নারী গড়ন সৃষ্টি করেছেন। এছাড়া প্রদর্শনীর তিন অতিথি শিল্পী সুমনা আক্তার, লুবনা চর্যা ও আতিয়া মাইবমের কাজেও রয়েছে বৈচিত্র্য।

দলীয় এই প্রদর্শনীতে ১১ জন শিল্পীর মোট ৬০টি শিল্পকর্মের মধ্যে বেশিরভাগ চিত্রককর্মের মাধ্যম হয়েছে এ্যাক্রেলিক ও জলরং। আজ শুক্রবার এই প্রদর্শনীর শেষ দিন। বেলা দুইটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

monarchmart
monarchmart