ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০

রেমিট্যান্সের পালে বইছে সুবাতাস

প্রকাশিত: ১৯:১৮, ১২ নভেম্বর ২০২৩

রেমিট্যান্সের পালে বইছে সুবাতাস

রেমিট্যান্স

অক্টোবরের পর চলতি মাসেও প্রবাসী আয়ের পালে সুবাতাস লেগেছে। প্রথম ১০ দিনেই দেশে এসেছে ৭৯ কোটি ৪৪ লাখ মার্কিন ডলার। এ হিসাবে গড়ে দৈনিক পৌঁছেছে ৭ কোটি ৯৪ লাখ ডলার।

রবিবার (১২ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে। এতে বলা হয়, চলমান নভেম্বরে রেমিট্যান্সের গতি বেড়েছে। প্রথম ১০ দিনে দেশে ৭৯ কোটি ৪৪ লাখ ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। আগের মাসের প্রথম ১৩ দিনে যা ছিল ৭৮ কোটি ১২ লাখ ডলার। আর গত সেপ্টেম্বরের ১৫ দিনে ৭৩ কোটি ৯৯ লাখ ডলার পাঠিয়েছিলেন তারা।

অর্থনীতি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গত ২২ অক্টোবর থেকে অধিক হারে বৈধ চ্যানেলে রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছেন প্রবাসীরা। ইতোমধ্যে প্রতি ডলারে আড়াই শতাংশ প্রণোদনা কার্যকর করেছে সরকার। তারা আরও বলেন, সেই সঙ্গে বাড়তি আরও আড়াই শতাংশ ইনসেন্টিভ দেয়ার নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এরই মধ্যে তা বাস্তবায়ন করেছে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো। ফলে মোট ৫ শতাংশ প্রণোদনা পাচ্ছেন প্রবাসীরা। এতেই মূলত রেমিট্যান্স প্রবাহ বেড়েছে। 

দেশের আর্থিক খাতের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, চলতি নভেম্বরের প্রথম ১০ দিনে রাষ্ট্র মালিকানাধীন ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিট্যান্স এসেছে ৪ কোটি ৯২ লাখ ৪০ হাজার ডলার। বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে পৌঁছেছে ১ কোটি ৯৪ লাখ ৫০ হাজার ডলার। আর বেসরকারি ব্যাংকের মাধ্যমে ৭২ কোটি ৩২ লাখ ৬০ হাজার ডলার এসেছে। এছাড়া বিদেশি খাতের ব্যাংকের মাধ্যমে পাওয়া গেছে ২৪ লাখ ৫০ হাজার ডলার। 

বিদায়ী অক্টোবরের দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ১৯৭ কোটি ৭৫ লাখ ৬০ হাজার ডলার। চলতি মাসে চলমান ধারা অব্যাহত থাকলে তা ছাড়িয়ে যাবে। গত সেপ্টেম্বরে যা এসেছে ১৩৪ কোটি ৪৩ লাখ ৫০ হাজার ডলার। আগস্টে পৌঁছেছে ১৫৯ কোটি ৯৪ লাখ ৫০ হাজার ডলার। ২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে রেমিট্যান্স এসেছিল ১৯৭ কোটি ৩১ লাখ ৫০ হাজার ডলার।

গত অর্থবছরের জুলাইয়ে ২০৯ কোটি ৬৩ লাখ ২০ হাজার, আগস্টে ২০৩ কোটি ৬৯ লাখ ৩০ হাজার, সেপ্টেম্বরে ১৫৩ কোটি ৯৬ লাখ, অক্টোবরে ১৫২ কোটি ৫৫ লাখ ৪০ হাজার এবং নভেম্বরে ১৫৯ কোটি ৫১ লাখ ৭০ হাজার ডলার এসেছিল।

 

এস

সম্পর্কিত বিষয়:

×