ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯

গুজবে আতঙ্কিত হয়ে শেয়ার বিক্রি না করার পরামর্শ

প্রকাশিত: ০৩:৫৩, ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

গুজবে আতঙ্কিত হয়ে শেয়ার বিক্রি না করার পরামর্শ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পুঁজিবাজারে সাম্প্রতিক দরপতনের পেছনে গুজবকেই দায়ী করেছেন শীর্ষ ব্র্রোকারেজরা। তাদের মতে, বাজারের বর্তমান পরিস্থিতি গুজবের কারণে ঘটছে। এর পেছনে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদেরও দুর্বলতা রয়েছে। তারা বর্তমান পরিস্থিতিতে বাজার পর্যবেক্ষণ করছে। তাদের সক্ষমতা বাড়লে বাজার আবার ঘুরে দাঁড়াবে। রবিবার বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিএমবিএ) ও ডিএসই ব্রোকার্স এ্যাসোসিয়েশনের (ডিবিএ) যৌথ উদ্যোগে শীর্ষ ৩০ ব্রোকারদের নিয়ে জরুরী বৈঠক শেষে এসব কথা বলেন বিএমবিএ ও ডিবিএ সভাপতি। তারা বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। বাজার শীঘ্রই ঘুরে দাঁড়াবে। ডিএসইতে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে ডিবিএ, বিএমবিএ ও শীর্ষ ব্রোকারেজ হাউজগুলোর উর্ধতন কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে পুঁজিবাজারে ধারাবাহিক পতনে করণীয় ঠিক করতে জরুরী বৈঠকে বসে পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট কয়েকটি প্রতিষ্ঠান। জানা যায়, বৈঠক শেষে বিকেল ৪টায় সংবাদ সম্মেলন করবে তারা। বৈঠকে অংশ নেয় ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই), চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই), বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিএমবিএ) ও ডিএসই ব্রোকার্স এ্যাসোসিয়েশনের (ডিবিএ) যৌথভাবে এই বৈঠক করবে। বৈঠকে বাজারের বর্তমান পরিস্থিতিতে করণীয় ঠিক করা হয়। বলে জানিয়েছেন বিএমবিএ এর সাবেক কর্মকর্তা। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এডিআর রেশিও পুঁজিবাজারে তেমন কোন প্রভাব ফেলবে না। গুজব শুনে যারা শেয়ার বিক্রি করবেন, তারাই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। তাই ভেবে চিন্তে বিনিয়োগকারীদের সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা বলেন তিনি। প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিনের মধ্যে রবিবার সবচেয়ে বড় দরপতন হয় পুঁজিবাজারে। এই দিনে গত সাড়ে চার বছরের সর্বোচ্চ দরপতন ঘটে ডিএসইতে। সারাদিনে ডিএসইতে মোট ১৩৩ পয়েন্ট কমে যায়। ফলে ডিএসইর সার্বিক সূচকটি ৫ হাজার ৮৮৮ পয়েন্টে এসে দাঁড়ায়। যদিও গত কয়েকদিন ধরেই সূচকের বড় পতনে লেনদেন চলছে পুঁজিবাজারে। এমন অবস্থায় বাজারে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এর আগে রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করেন ডিবিএ ও বিএমবিএ। সংবাদ সম্মেলনে আইসিবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী সানাউল হক, ডিএসইর পরিচালক শাকিল রিজভী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাজেদুর রহমান, বিএমবিএর সভাপতি নাসির উদ্দিন চৌধুরী ও ডিবিএর সভাপতি মোস্তাক আহমেদ সাদেক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।