ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রেমিকার জন্য করলেন লিঙ্গ পরিবর্তন, সেই প্রেমিকাই অন্যের প্রেমে

প্রকাশিত: ২১:৪৪, ২৪ জানুয়ারি ২০২৩

প্রেমিকার জন্য করলেন লিঙ্গ পরিবর্তন, সেই প্রেমিকাই অন্যের প্রেমে

ধর্ষণ ও অপহরণের মামলাও করা হয়

যে প্রেমিকার জন্য লিঙ্গ পরিবর্তন করে ছেলে হয়েছিলেন, সেই প্রেমিকাই অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে তাকে ছেড়ে চলে গিয়েছে। শুধু তাই নয় পরিবারের সঙ্গে মিলে ধর্ষণ ও অপহরণের মতো অভিযোগও আনা হয়েছে। 

সুলেমান নামের ওই লোকের নাম আগে ছিল সালমা। নারী কর্মী হিসেবে সরকারি চাকরি করতেন তিনি। উত্তরপ্রদেশের ঝাঁসির এক বাড়িতে পেয়িং গেস্ট হন সালমা। সেখানে পরিচয় হয় প্রেমিকা সোনিয়ার সঙ্গে। অল্প সময়ের মধ্যেই দু’জনের মধ্যে বন্ধুত্ব হয়ে যায়। পরে তা ভালোবাসায় রুপ নেয়। বিষয়টি সোনিয়ার পরিবার জানতে পারে। শুরু হয় অশান্তি। সোনিয়ার পরিবার সানাকে ঘর ছেড়ে দিতে বলে।

সরকারি চাকরির সুবাদে ২০১৬ সালে সরকারি কোয়ার্টার পেয়ে যান সালমা। সেখানে চলে যান তিনি। সালমা চলে যাওয়ার পর সোনিয়াও ভালো ছিল না। অল্প সময়ের মধ্যেই সালমার সঙ্গে সোনিয়া থাকতে শুরু করেন। প্রেমিকার কথাতেই লিঙ্গ পরিবর্তন করেন সালমা। দিল্লি স্যার গঙ্গারাম হাসপাতালে গিয়ে আগে শারীরিক পরীক্ষা করান। চিকিৎসক যখন তাকে লিঙ্গ পরিবর্তনের অনুমতি দেন, তারপরই অস্ত্রোপচার করান সালমা। ২০২০ সালের ২২ জুন সালমার পরিবর্তে সুলেমান খান হয়ে যান তিনি।

সুলেমানের দাবি, সেই সময় সোনিয়া নিজেকে তার স্ত্রী হিসেবে সই করে তাকে হাসপাতাল থেকে ছাড়িয়েছিলেন। কিছুদিন পর সোনিয়া এক হাসপাতালে চাকরি পেয়ে যান। চাকরি পাওয়ার কিছুদিন পর থেকেই সোনিয়া পালটে যেতে থাকে। এক রাতে তিনি সোনিয়াকে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলতে বলতে কাঁদতে দেখেন। তারপরই জানতে পারেন, হাসাপাতালেরই এক সহকর্মীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন সোনিয়া। এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে সোনিয়া সুলেমানকে ছেড়ে আবার নিজের বাড়িতে গিয়ে ওঠেন। তারপরই সোনিয়া ও তার পরিবার সুলেমানের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও খুনের অভিযোগ দায়ের করেন। এর বিরুদ্ধে সুলেমানও পালটা মামলা দায়ের করেছেন। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন। 

 

এমএইচ

×