শুক্রবার ১০ বৈশাখ ১৪২৮, ২৩ এপ্রিল ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বিষয় ॥ কৃষি শিক্ষা

বিষয় ॥ কৃষি শিক্ষা
  • মোঃ মনোয়ারুল হক
  • বিএসএস, বিএড (১ম শ্রেণি)
  • সিনিয়র শিক্ষক, কানকিরহাট বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়
  • সেনবাগ, নোয়াখালী
  • Email: [email protected]

সুপ্রিয় শিক্ষার্থীরা,

আন্তরিক প্রীতি ও শুভেচ্ছা রইল।

তৃতীয় অধ্যায়ঃ কৃষি উপকরণ

উদ্দীপকটি পড় এবং নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও।

হালিম মিয়া তার জমিতে ধান লাগিয়েছে। সে জানে যে, অতিরিক্ত সেচ অর্থ ও পানির অপচয়। তাই সে কৃষি কর্মকর্তার কাছ থেকে মাটিতে রসের অবস্থা বুঝে সেচ দেওয়ার কৌশল শিখে এসেছেন। তিনি ঠিক করেছেন পরবর্তী বছর থেকে তিনি পর্যায়ক্রমিক ভেজানো ও শুকানো পদ্ধতি ব্যবহার করবেন।

ক. সেচ কাকে বলে?

খ. চেক বেসিন ব্যবহার করা হয় কেন?

গ. কৃষি কর্মকর্তার শিখিয়ে দেওয়া কৌশলটি ব্যাখ্যা কর।

ঘ. পরবর্তী বছরে ধান চাষে হালিম মিয়ার সিদ্ধান্তটি মুল্যায়ন কর।

ক. ফসল উৎপাদনের সময় মাটিতে রসের ঘাটতি দেখা দিলে বাহির থেকে কৃত্রিম উপায়ে পানি সরবরাহের পদ্ধতিকে সেচ বলে।

খ. প্লাবন সেচ পদ্ধতিতে জমিতে পানি নিয়ন্ত্রনের কোন সুযোগ থাকে না। এতে পানির যথেষ্ট অপচয় হয়। জমিকে ঢাল অনুযায়ি কয়েকটি ভাগে উঁচু আইল দ্বারা ভাগ করে পানি নিয়ন্ত্রনের পদ্ধতিকে চেক বেসিন বলে। পানির অপচয় রোধ করার জন্য চেক বেসিন পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়।

গ. জমিতে প্রয়োজনীয় সময় সেচ দেওয়ার জন্য হালিম মিয়াকে কৃষি কর্মকর্তা মাটিতে রসের অবস্থা বুঝে সেচ দেওয়ার কৌশল শিখিয়ে দিয়েছেন।

মাটিতে রসের অবস্থা বুঝে জমিতে সেচ দিতে হবে। “জমিতে রসের পরিমাণ জানার বিভিন্ন পদ্ধতি আছে” সহজ একটি পদ্ধতি হলো- হাতের সাহায্যে অনুভব করে মাটির রসের অবস্থা বুঝে সেচ দেওয়া। যে জমিতে সেচ দিতে হবে ঐ জমির একটি স্থানে গর্ত তৈরি করতে হবে। গর্তের গভীরতা ফসলের শিকড়ের গভীরতার তিন ভাগের দুই ভাগের সম পরিমাণ হবে। এবার গর্তের তলা থেকে মাটি তুলে হাতের মুঠোয় নিয়ে চাপ দিয়ে গোলাকার বল তৈরি করতে হবে। যদি মাটি শুকনা ও ধুলা, বল তৈরির সময় আঙ্গুলের ফাঁক দিয়ে গুঁড়ো হয়ে বের হয়ে যায় বা বল তৈরি হলেও তা ফেলে দিলে ভেঙ্গে গুঁড়ো গুঁড়ো হয়ে যায়, তাহলে জমিতে অতি সত্ত্বর সেচ দিতে হবে। মাতি হাতের মুঠোয় নিয়ে চাপ দিলে দলা হবে কিন্তু ফেলে দিলে দলা ভাঙ্গবেনা, এমন অবস্থায় ১-২ দিন পর জমিতে সেচ দিতে হবে। মাটি হাতের মুঠোয় নিয়ে চাপ দিলে ভিজা দলা তৈরি হবে, হাতের তলা ভিজে যাবে দলা ফেলে দিলে দলা ভাঙ্গবেনা, এ অবস্থায় ৩-৪ দিন পর পুনরায় মাটির রস পরীক্ষা করতে হবে। আর যদি মাটি কাদাময় হয়, হাতে চাপ দিলে কাদা মাটি আঙ্গুলের ফাঁক দিয়ে বেরিয়ে আসে, তালু ভিজে যায় কিন্তু পানি বেরিয়ে আসে না, এমতাবস্থায় সেচ দিতে হবে না। ৭ দিন পর জমি আবার পরীক্ষা করতে হবে।

ঘ. ধান বাংলাদেশের প্রধান খাদ্যশস্য। দেশের মোট জমির প্রায় ৭৫ শতাংশ জমিতে ধান চাষ করা হয়। বোরো মৌসুমে সবচেয়ে বেশি ধান উৎপাদিত হয়। আর এ মৌসম বৃষ্টিবিহীন থাকায় সবচেয়ে বেশি পানি সেচের প্রয়োজন হয়। প্রচিলিত সেচ পদ্ধতিতে ধানের জমিতে ১০-১৫ সে.মি.দাঁড়ানো পানি রাখা হয়। এ ক্ষেত্রে প্রতি কেজি ধান উৎপাদনে ৩০০০-৫০০০ লিটার পানির প্রয়োজন হয়। যা প্রকৃত প্রয়োজনের তুলনায় অনেক বেশি। বর্তমানে ধান চাষে পানি সাশ্রয়ী প্রযুক্তি হিসেবে পর্যায়ক্রমিক ভেজানো ও শুকানো পদ্ধতি জনপ্রিয় করা হচ্ছে। এ পদ্ধতিতে সব সময় জমিতে দাঁড়ানো পানির প্রয়োজন নেই। জমিতে একটি পর্যবেক্ষণ নল স্থাপন করে সেচের সময় নির্ধারণ করা হয়। এ পদ্ধতিতে পানি, জ্বালানিও শ্রমিক খরচ সাশ্রয় হয়। ৩০-৩৭ ভাগ সেচের পানি কম লাগে,২৯ ভাগ ডিজেল কম লাগে এবং ধানের ফলন ১২ ভাগ বেশি হয়।

সর্বোপরি এটি একটি পরিবেশ বান্ধব পদ্ধতি। সুতরাং হালিম মিয়া পরবর্তী বছরে ধান চাষে যে সিদ্ধান্তটি নিয়েছেন তা যুগোপযোগী এবং যথার্থ।

শীর্ষ সংবাদ:
দোকান-শপিংমল খুলবে ২৫ এপ্রিল থেকে         হেফাজতের কিছু কিছু নেতা সন্ত্রাসী তাণ্ডবে বিশ্বাস করে না ॥ সেতুমন্ত্রী         আরমানিটোলার আগুনে দগ্ধ ২০ জনের শ্বাসনালী পুড়ে গেছে         কেমিক্যাল গুদামে আগুনের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন         এভারেস্টে যাওয়া পর্বতারোহীর দেহে কোভিড-১৯ শনাক্ত         ৫৪১ রানে বাংলাদেশের ইনিংস ঘোষণা         আরমানিটোলায় কেমিক্যাল গোডাউনে আগুন, মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৪         আরমানিটোলার কেমিক্যাল গোডাউনের অনুমোদন ছিল না         ভারতে গত ২৪ ঘন্টায় রেকর্ড ৩ লাখ ৩২ হাজার ৭৩০ করোনা রোগী শনাক্ত         ৮ দিনে ভার্চুয়াল আদালতে ১৫ হাজার আসামির জামিন         ভারতের একটি হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে ১৩ করোনা রোগীর মৃত্যু         করোনাকালে দেশে খাদ্য সংকট হবে না ॥ কৃষিমন্ত্রী         সেই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে বরিশালে বদলি         নারায়ণগঞ্জে গ্যাসের পাইপ বিস্ফোরিত হয়ে দুই পরিবারের ১১ জন দগ্ধ         রাতের আধাঁরে হালদায় অভিযান, ৫ হাজার মিটার জাল জব্দ         ঘুমধুম সীমান্তে বন্দুকযুদ্ধে মাদক কারবারি রোহিঙ্গা নিহত         টেকনাফে রোহিঙ্গার গুলিতে স্থানীয় যুবক নিহত         উখিয়ায় ইয়াবা ও জাল নোটসহ ৩ আর্মড পুলিশ আটক         দেশেই তৈরি হবে রাশিয়ার করোনার টিকা