বুধবার ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কোরবানি সামনে রেখে টিসিবির বিক্রি কার্যক্রম শুরু

কোরবানি সামনে রেখে টিসিবির বিক্রি কার্যক্রম শুরু

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ কয়েক মাসের ব্যবধানে দশগুণ কমে তিনশ’ টাকার পেঁয়াজ এখন খুচরা বাজারে প্রতিকেজি বিক্রি হচ্ছে ২৫-৩৫ টাকায়। এক বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। চাহিদার তুলনায় দেশে এখন পর্যাপ্ত পরিমাণে দেশী ও আমদানিকৃত ভারতীয় পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে।

এছাড়া কোরবানি সামনে রেখে ভারত থেকে প্রতিদিন কয়েকশ’ ট্রাক পেঁয়াজ আনা হচ্ছে। দেশেও উৎপাদন ভাল হয়েছে। সবমিলিয়ে পেঁয়াজের কোন সঙ্কট নেই। এছাড়া পেঁয়াজের মতো আদা ও রসুনের মতো অন্যান্য মসলাপাতির দাম নি¤œমুখী। করোনাভাইরাসের প্রকোপ নিয়ন্ত্রণে না এলে এবার কোরবানি কমার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এ অবস্থায় মসলা পাতির দাম আরও কমতে পারে।

এদিকে, সরকারী বাজার নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা টিসিবি কোরবানি সামনে রেখে সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য বিক্রি শুরু করেছে। চলতি জুলাই মাসের ১২ তারিখ থেকে শুরু করে আগামী ২৮ জুলাই পর্যন্ত দেশের ২৬৪টি স্থানে চিনি, মশুর ডাল ও সয়াবিন তেল বিক্রি করা হবে। টিসিবি এক দাপ্তরিক আদেশে বলা হয়, শুক্রবার ও শনিবার ছাড়া প্রতি দিন ক্রেতারা প্রত্যেকে ৫০ টাকা দরে দুই কেজি চিনি ও এক কেজি মশুর ডাল এবং ৮০ টাকা দরে ৫ লিটার করে সয়াবিন তেল নিতে পারবেন।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত সময়ে (পণ্য থাকা সাপেক্ষে) পণ্য বিক্রি করবেন নির্ধারিত ডিলাররা। ঢাকা মহানগরীতে ৪০টি, চট্টগ্রাম মহানগরীতে ১০টি, রংপুরে ৭টি, ময়মনসিংহে ৭টি, রাজশাহীতে ৫টি, খুলনায় ৫টি, বরিশালে ৫টি, সিলেটে ৫টি, বগুড়ায় ৫টি, কুমিল্লায় ৫টি, ঝিনাইদহে ৩টি, মাদারীপুরে ৩টি ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি করা হবে। অন্যান্য ৫২ জেলার প্রতিটিতে দুইটি করে পণ্যবাহী ট্রাক থাকবে। এছাড়া প্রতিটি কার্যালয়ের অধীনে পাঁচটি করে ১২টি কার্যালয়ের অধীনে ৬০টি ট্রাকে করে ডিলাররা পণ্য বিপণন করবেন। প্রতিটি ট্রাকে সুস্পষ্ট অক্ষরে পণ্যের মূল্য তালিকা লেখা থাকবে।

এদিকে, দাম কমে প্রতিকেজি রসুন ৭৫-৯০, আদা ১০০-১২০, ভোজ্যতেল প্রতিলিটার ৮৩-৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে খুচরা বাজারে। টিসিবির তথ্য অনুযায়ী, এক সপ্তাহে দেশি রসুনের দাম কমেছে ১০ শতাংশ। দেশি রসুনের পাশাপাশি দাম কমেছে আমদানি করা রসুনের।

এক সপ্তাহে আমদানি করা রসুনের দাম ২ দশমিক ৯৪ শতাংশ কমে কেজি ৭৫ থেকে ৯০ টাকা হয়েছে, যা আগে ছিল ৮০ থেকে ৯০ টাকা। এছাড়া এক সপ্তাহে দেশি পেঁয়াজের দাম কমেছে ৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ। বর্তমানে দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০-৩৫ টাকায় যা এক সপ্তাহ আগে ছিল ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। দেশি ও আমদানি করা উভয় ধরনের শুকনা মরিচের দাম কমেছে। সপ্তাহের ব্যবধানে দেশি শুকনা মরিচের দাম ৪ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ কমে কেজি ২১০ থেকে ২৬০ থেকে টাকা বিক্রি হচ্ছে।

আমদানি করা শুকনা মরিচের দাম ৬ দশমিক ৯০ শতাংশ কমে কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ৩০০ টাকা। মুদি পণ্যের ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাজারে সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ করা গেলে কোন পণ্যের দাম আর বাড়বে না।

শীর্ষ সংবাদ:
ভ্যাকসিন কেনার বিষয়ে আগামী সপ্তাহে সিদ্ধান্ত : জাহিদ মালেক         ‘অটো পাস’ আপাতত চিন্তায় নেই : শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী         আগামী ১৬ আগস্ট থেকে ইউএস-বাংলার ঢাকা-কুয়ালালামপুর ফ্লাইট শুরু         মানবতাবিরোধী অপরাধ: চার পলাতক আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত চুড়ান্ত         এ বছরে হবে না এশিয়ার বিশ্বকাপ বাছাই         করোনা ভাইরাসের টিকার জন্য আলাদা অর্থ রাখা হয়েছে ॥ অর্থমন্ত্রী         ‘আমি একজন পরিশ্রমী, নিষ্ঠাবাদ ও সৎ কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি’         করোনা ভাইরাসে মৃত্যু সাড়ে তিন হাজার ছাড়াল, নতুন আক্রান্ত ২৯৯৫         ‘শাহজালাল (রহ.) মাজারে হামলার পরিকল্পনা ছিল নব্য জেএমবির’         করোনা ভাইরাসের বুলেটিন একেবারে বন্ধ না করার আহ্বান কাদেরের         মেজর সিনহা হত্যা ॥ ৪ পুলিশসহ ৭ জন সাত দিনের রিমান্ডে         বিদেশফেরত ৭০ শতাংশ জীবিকা সংকটে         মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় পলাতক চারজনের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন চূড়ান্ত         বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ১০ লাখ ইউরো দেবে ইইউ         এমপিদের থোক বরাদ্দ অর্থনৈতিক সুবিধার পথ ॥ টিআইবি         ১৩৯ দিন পর শারীরিক উপস্থিতিতে হাইকোর্টে বিচার কাজ শুরু         করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রুমিন ফারহানা         বৃষ্টিপাত হচ্ছে ॥ ৩ দিন পর আরও বাড়তে পারে         কাতার থেকে ফিরলেন ৪১৩ বাংলাদেশি         হাটহাজারীর ত্রিপুরা পল্লীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ১২ পরিবারকে        
//--BID Records