বৃহস্পতিবার ২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ০৯ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আবরার হত্যা ॥ জিয়নের জামিন আবেদন নাকচ

আবরার হত্যা ॥ জিয়নের জামিন আবেদন নাকচ

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মেফতাহুল ইসলাম জিয়নের জামিন আবেদন নাকচ করেছেন ঢাকার একটি আদালত।

ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এবং ভার্চ্যুয়াল কোর্টের বিচারক আবু জাফর কামরুজ্জামান আজ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

আসামি জিয়নের পক্ষে জামিন শুনানি করেন আইনজীবী ফারুক আহাম্মদ। রাষ্ট্রপক্ষে সংশ্লিষ্ট আদালতের প্রসিকিউটর আবু আব্দুল্লাহ ভূঁইয়া জামিন আবেদনের বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষে শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে আদেশ দেন।

গত ২২ মার্চ ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে মামলার নথি পৌঁছালে বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান অভিযোগ গঠনের জন্য ৬ এপ্রিল দিন ধার্য করেন। তবে করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে আদালতের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় অভিযোগ গঠন শুনানি এখনো হয়নি।

গত বছর ১৩ নবেম্বর মামলায় ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন পুলিশ।

মামলায় অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে এজাহারভুক্ত ১৯ জন ও এজাহার বহির্ভূত ৬ জন। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৮ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

মামলার তদন্ত চলাকালে মামলায় অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে ২১ জনকে গ্রেফতার করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে, বুয়েট ছাত্র মেহেদী হাসান রাসেল, মুহতাসিম ফুয়াদ, মেহেদী হাসান রবিন, অনিক সরকার, মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, ইফতি মোশাররফ, অমিত সাহা, মুনতাসির আল জেমি, মুজাহিদুর রহমান মুজাহিদ, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভির ও ইসতিয়াক আহম্মেদ মুন্না, নিহত আবরারের রমমেট মিজানুর রহমান মিজান, শামসুল আরেফিন রাফাত, মনিরুজ্জামান মনির, আকাশ হোসেন, হোসেন মোহাম্মদ তোহা, মাজেদুর রহমান, শামীম বিল্লাহ, মোয়াজ আবু হুরায়রা, এ এস এম নাজমুস সাদাত ও এস এম মাহমুদ সেতু।

এছাড়া মোর্শেদ অমত্য ইসলাম নামে পলাতক এক আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করলে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেফতারদের মধ্যে ইসতিয়াক আহম্মেদ মুন্না, অমিত সাহা, মিজানুর রহমান মিজান, শামসুল আরেফিন রাফাত ও এস এম মাহমুদ সেতু ছাড়া বাকি সবাই এজাহারভুক্ত আসামি।

এরমধ্যে ৮ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তারা হলেন- ইফতি মোশাররফ সকাল, মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, অনিক সরকার, মুজাহিদুর রহমান, মেহেদি হাসান রবিন, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভীর, মনিরুজ্জামান মনির ও এএসএম নাজমুস সাদাত।

এখন পলাতক রয়েছেন আরো তিন আসামি। তারা হলেন- মোর্শেদুজ্জামান জিসান, এহতেশামুল রাব্বি তানিম ও মোস্তবা রাফিদ। এরমধ্যে মোস্তবা রাফিদের নাম এজাহারে ছিল না।

গত বছর ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরে বাংলা হলে কিছু উচ্ছৃঙ্খল ছাত্রের হাতে নির্দয় নির্মম ও বর্বরোচিত পিটুনি নির্যাতনের শিকার হয়ে মারা যান বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ।

এ ঘটনায় পরদিন নিহত আবরার ফাহাদের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি মামলা করেন।

শীর্ষ সংবাদ:
ভার্চুয়াল আদালত নিয়ে আইনজীবীদের প্রশিক্ষণ উদ্বোধন করবেন আইনমন্ত্রী         পুরো বিএনপিই এখন হোম আইসোলেশনে ॥ তথ্যমন্ত্রী         ময়ূর-২’র মালিক মোসাদ্দেক ৩ দিনের রিমান্ডে         এরশাদের মৃত্যুদিনে ভোট চায় না জাপা         শিগগিরই এইচএসসিতে ভর্তি শুরু হবে : সংসদে শিক্ষামন্ত্রী         স্বাস্থ্যখাতের অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে ॥ কাদের         শেষ হল সংক্ষিপ্ততম বাজেট অধিবেশন         করোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২২শ' ছাড়ালো, নতুন আক্রান্ত ৩৩৬০         করোনায় আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর         পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন ॥ কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়         রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদের প্রধান সহযোগী গ্রেফতার         শিক্ষার্থীদের অটোপাসের খবর ‘গুজব ॥ শিক্ষা মন্ত্রণালয়         বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নরের চাকরির সময়সীমা বাড়িয়ে বিল পাস         লন্ডনে পাপনের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন         দেড় শতাধিক বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠিয়েছে ইতালি         ক্রেডিট কার্ড ‘জালিয়াত চক্রের’ চারজন গ্রেফতার         মাস্ক দুর্নীতি ॥ মেডিটেকের পরিচালক হুমায়ুনকে জিজ্ঞাসাবাদ         ভারতে আবারও একদিনে ২৪ হাজারের বেশি সংক্রমণ         রিজেন্টের চেয়ারম্যান সাহেদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা         পল্টন থেকে ৩ মানবপাচারকারী আটক        
//--BID Records