ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

বরিশালে বিনা ধানের বাম্পার ফলন ॥ কৃষকের মুখে হাসি

প্রকাশিত: ০৪:১৫, ২৬ নভেম্বর ২০১৯

বরিশালে বিনা ধানের বাম্পার ফলন ॥ কৃষকের মুখে হাসি

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ সদর উপজেলার জাগুয়া ইউনিয়নে বিনা-১১ ধানের ব্যাম্পার ফলন হয়েছে। ফলে কৃষকদের মাঝে আন্দদের জোয়ার বইছে। ব্রি আঞ্চলিক কার্যলয়ের প্রধান (সিএসও) ড. মোঃ আলমগীর হেসেন বলেন, বিনা ধান-১১ দুই সপ্তাহ পানিতে তলিয়ে থাকার পরেও ধানের কোন প্রকার ক্ষতি হবেনা। এতে করে কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্থর কবল থেকে রক্ষা পাবেন। ধান আমাদের জীবন তাই কৃষকরা যেন ধানের উৎপাদনে আরও বেশি সচেষ্ঠ হন, সেজন্য তিনি সকলের প্রতি আহবান করেন। তিনি আরও বলেন, কৃষকরা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মুল ভিত্তি স্তম্ভ। আমাদের দেশের কৃষকরা ধান উৎপাদন করছে বলেই আমরা আজ খাদ্যে সয়ং সম্পন্ন হয়েছি। কৃষকরা যদি ধান উৎপাদন থেকে পিছিয়ে পরে তাহলে এদেশে দূর্যোগ নেমে আসবে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বরিশাল সদর উপজেলার জাগুয়া ইউনিয়নের হোগলা গ্রামের সোনা মিয়ার হাট নামকস্থানে মাঠ দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রান্তিক কৃষকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন-আমাদের কৃষকরা ধানের নায্য মূল্য না পাওয়ার কারনে ফসল উৎপাদনে তারা আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। তাই মাঠপর্যায়ের কোন প্রান্তিক চাষি যেন ধান, চাল বিক্রয় করার ক্ষেত্রে নায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত না হয়, সেজন্য মাঠপর্যায়ের সকল প্রান্তিক কৃষকদের অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্বী করতে কৃষি বান্ধব প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন থেকেই প্রশিক্ষন দিয়ে মোবাইল অ্যাপসের মাধ্যমে কৃষকদের কাছ থেকে ধান চাল ক্রয়ের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। জাগুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহম্মেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বরিশাল বিনা উপ-কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ড. মোঃ বাবুল আকতার, বরিশাল সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ তৌহিদ, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা সোহেল রানা, নাজমুন নাহার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আবুল বাশার প্রমুখ। সভার শুরুতে অতিথিরা প্রান্তিক চাষী শাহে আলমের রোপিত বিনা-১১ ধানের প্রদর্শনী জমি পরিদর্শন করে ধান কর্তন করেন।
monarchmart
monarchmart