বুধবার ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বিনিয়োগকারীদের সতর্ক অবস্থানে শেয়ারবাজারে লেনদেন কমল

বিনিয়োগকারীদের সতর্ক অবস্থানে  শেয়ারবাজারে লেনদেন কমল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা দরপতনের পর রবিবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্য সূচক কিছুটা বাড়লেও তা ঠেকেনি। একদিনের ব্যবধানে সোমবার ফের উভয় বাজারে বড় দরপতন হয়েছে। দর কমে যাওয়ার কারণে উভয় বাজারেই বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ কমেছে। ভাল মন্দ সব ধরনের শেয়ার কেনা থেকে সতর্ক অবস্থানে ফিরে গেছেন বিনিয়োগকারীরা।

জানা গেছে, টানা দরপতনের কবলে পড়ে কয়ক মাস ধরেই বিনিয়োগ করা পুঁজি হারাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। পতনের কবলে পড়ে দিশেহারা বিনিয়োগকারীরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন। এমনকি প্রতীকী গণঅনশনও করেছেন।

গত সপ্তাহের পাঁচ কার্যদিবসের মধ্যে চার কার্যদিবসই দরপতন হয়। এ পরিস্থিতিতে নবেম্বরের প্রথম কার্যদিবস রবিবার কিছুটা ঊর্ধ্বমুখিতার দেখা মেলে। কিন্তু সোমবার দিনের শুরুতেই পাল্টে যায় সেই চিত্র। লেনদেনের শুরু থেকেই একের পর এক প্রতিষ্ঠানের দরপতন হতে থাকে। শেষ সময় এসে পতনের প্রবণতা আরও বাড়ে। ডিএসইর সবক’টি মূল্য সূচকের পতন হয়।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রায় ৭০ ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দরপতন হয়েছে। দিনভর বাজারটিতে অংশ নেওয়া ৭৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ২৪২টির। আর ৩৪টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম কমায় ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ৩৩ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৬৭৮ পয়েন্টে উঠে এসেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ ৭ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৭৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। আর ডিএসই-৩০ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৬২৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

এদিকে লেনদেন খরা অব্যাহত রয়েছে ডিএসইতে। বাজারটির লেনদেন আবারও দুইশ’ কোটি টাকার ঘরে নেমে এসেছে। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২৬৯ কোটি ৩ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩২৫ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ৫৬ কোটি ৯৪ লাখ টাকা।

বাজারটিতে টাকার পরিমাণে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল টিউবের শেয়ার। কোম্পানিটির ১২ কোটি ৮৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্র্যাক ব্যাংকের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১০ কোটি ৯৫ লাখ টাকার। ৯ কোটি ৬৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে নর্দান জুট মেনুফ্যাকচারিং।

এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে - স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, স্টাইল ক্রাফট, ফরচুন সুজ, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স, প্রিমিয়ার ব্যাংক এবং খুলনা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড।

শীর্ষ সংবাদ:
চামড়ার বাজারে ধস ॥ প্রধান চার কারণ চিহ্নিত         মানুষের উন্নত জীবন ধারা নিশ্চিত করাই মূল লক্ষ্য         ষড়যন্ত্রকারীদের অপচেষ্টার বিরুদ্ধে সতর্ক থাকুন ॥ কাদের         নরেন দাস ছিলেন বঙ্গবন্ধুর একনিষ্ঠ সৈনিক ॥ আইনমন্ত্রী         জুলাইয়ে রেমিটেন্সে রেকর্ড         টেকনাফে পুলিশের গুলিতে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা নিহত         আজ শহীদ শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী         এক সপ্তাহের মধ্যে বন্যার পানি কমবে         করোনা পরীক্ষার সংখ্যা কমলেও রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে         আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতাসহ তিনজনকে কুপিয়ে হত্যা         ভ্যাকসিন পরীক্ষার জন্য চীনা কোম্পানির আবেদন         করোনায় চলে গেলেন টিভি ব্যক্তিত্ব বরকতউল্লাহ         খোরশেদ আলম সুজন চসিকের প্রশাসক         নেত্রকোনার ডিসি প্রত্যাহার         এমপিওভুক্ত স্কুল-কলেজ নিজস্ব জমিতে স্থানান্তরের নির্দেশ         ৯ আগস্ট থেকে একাদশ শ্রেণির ভর্তির অনলাইন কার্যক্রম শুরু         পুলিশের গুলিতে নিহত সাবেক মেজর সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন         করোনা চিকিৎসায় সহজ কোনো সমাধান নেই : ডব্লিউএইচও         পাপিয়ার বিরুদ্ধে সোয়া ৬ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মামলা         বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ অনেক আগেই উন্নত দেশে পরিণত হতো : প্রযুক্তিমন্ত্রী        
//--BID Records