বুধবার ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড পেল ৩৪ কোটি টাকা, বাংলাদেশ ২ কোটি ৩ লাখ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মহাকাব্যিক ফাইনালের মধ্য দিয়ে ১২তম বিশ্বকাপের পর্দা নামল। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতল ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ড। নির্ধারিত ৫০ ওভার, এরপর সুপার ওভারেও টাই করার পর বাউন্ডারির সংখ্যায় পিছিয়ে থাকায় স্বপ্নভঙ্গ হয় নিউজিল্যান্ডের। বিশ্বকাপ শুরুর আগে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি (ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল) ঘোষণা দিয়েছিল এবারের বিশ্বকাপের প্রাইজমানি অন্য সকল বিশ্বকাপকে ছাড়িয়ে যাবে। আইসিসির ঘোষণা অনুযায়ী এবারের বিশ্বকাপের মোট প্রাইজমানি নির্ধারিত ছিল ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থাৎ ১ কোটি ডলার অথবা প্রায় সাড়ে ৮৫ কোটি বাংলাদেশী টাকায়। চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে দেয়া হয়েছে টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ৪ মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ ৪০ লাখ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী টাকায় যা ৩৪ কোটি টাকার সমমূল্য। রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড দল পেয়েছে ২০ লাখ ডলার অর্থাৎ ১৭ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে দেয়া হয়েছে প্রায় ২ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী টাকায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ২ কোটি ৩ লাখ টাকা। লীগপর্বের তিন ম্যাচে জয় এবং একটি পরিত্যক্ত হওয়ায় বাংলাদেশকে এই প্রাইজমানি দেয়া হয়। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য ইংল্যান্ড ৪ মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ ৪০ লাখ মার্কিন ডলার পেয়েছে। বাংলাদেশী টাকায় যা ৩৪ কোটি টাকার সমমূল্য। এছাড়াও লীগপর্বের ছয়টি ম্যাচ জয়ের কারণে ইংলিশদের পকেটে ঢুকেছে আরও প্রায় ২ লাখ ৪০ হাজার ডলার। উল্লেখ্য, লীগপর্বে প্রত্যেকটি ম্যাচজয়ী দলের জন্য ৪০ হাজার ডলার করে বরাদ্দ ছিল। রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড দল পেয়েছে ২০ লাখ ডলার অর্থাৎ ১৭ কোটি টাকা। সেই সঙ্গে লীগপর্বে পাঁচ ম্যাচ জয়ের জন্য পেয়েছে ২ লাখ ডলার যা বাংলাদেশী টাকায় ১ কোটি ৭০ লাখ। সেমিতে খেলা ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া পেয়েছে ৮ লাখ ডলার করে। যা বাংলাদশী টাকায় দাঁড়ায় প্রায় ৭ কোটি টাকা। এছাড়া লীগপর্বে সাত জয় ও একটি পরিত্যক্ত ম্যাচের জন্য ভারত পেয়েছে ৩ লাখ ডলার অর্থাৎ আড়াই কোটি টাকা। অন্যদিকে লীগপর্বে সাত ম্যাচ জেতায় অস্ট্রেলিয়া পেয়েছে বাড়তি আরও ২ লাখ ৮০ হাজার ডলার।

লীগপর্ব থেকেই যেসব দল বাদ পড়েছে তাদের প্রতি ম্যাচ জয়ের টাকার সঙ্গে দেয়া হয়েছে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করার জন্য বাড়তি ১ লাখ ডলার করে। ৫ জয় ও এক পরিত্যক্ত ম্যাচে পাকিস্তান পেয়েছে ২ লাখ ২০ হাজার ডলার। তারা মোট পেয়েছে ৩ লাখ ২০ হাজার ডলার। তিন জয় ও দুই পরিত্যক্ত ম্যাচে শ্রীলঙ্কার মোট আয় ২ লাখ ৬০ হাজার ডলার। তিন জয় ও এক পরিত্যক্ত ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা পেয়েছে ২ লাখ ৪০ হাজার ডলার। তিন জয় ও এক পরিত্যক্ত ম্যাচে বাংলাদেশের পাওয়া অর্থও সমান। বাংলাদেশী টাকায় এটা প্রায় ২ কোটি টাকা। দুই জয় ও একটি পরিত্যক্ত ম্যাচের সুবাদে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেয়েছে ২ লাখ ডলার। আর কোন ম্যাচ না জেতা আফগানিস্তান শুধু অংশগ্রহণ মানি পেয়েছে ১ লাখ ডলার।

শীর্ষ সংবাদ:
‘আন্তর্জাতিকভাবে রিফুয়েলিংয়ের জায়গা হবে কক্সবাজার’         ১৯৮২ সালের পর যুক্তরাজ্যে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতি         লিড নিয়েছে বাংলাদেশ         রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ॥ চিকিৎসাধীন তিন জনের মৃত্যু         ‘নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার জন্য দায়ী আন্তর্জাতিক বাজার’         বাতাসে জলীয়বাষ্প বেশি থাকায় ভ্যাপসা গরম         বিদেশী মনোপলি ব্যবসা বন্ধ করে দেশীয় মালিকানাধীন তামাক শিল্প রক্ষা করুন         মিস্টার ডিপেন্ডেবল মুশফিক পাঁচ হাজার রানের মাইল ফলকে         ১ জুন ফের শুরু বাংলাদেশ-ভারত ট্রেন চলাচল         হাইকোর্টে সম্রাটের জামিন বাতিল         তেজগাঁওয়ে ৫০ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২         পরীমনির মামলায় নাসিরসহ ৩ জনের বিচার শুরু         বিভিন্ন উপজেলা পরিদর্শনে যাচ্ছেন সিইসি         আজ আন্তর্জাতিক জাদুঘর দিবস         লুটপাটে নিঃস্ব গ্রাহক ॥ পি কে হালদারের থাবা         অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হোন অপচয় করা যাবে না         তামিমের সেঞ্চুরি- বাংলাদেশের দাপট         প্রকল্প কমিয়ে অর্থায়ন বাড়িয়ে উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন         জাতীয় সরকারের নামে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেয়া হবে না         চুরি, ছিনতাই করতে কক্সবাজার থেকে ঢাকা আসত ওরা