ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯

টেস্টেও শীর্ষস্থান হারালেন সাকিব

প্রকাশিত: ১০:১১, ২৮ জানুয়ারি ২০১৯

 টেস্টেও শীর্ষস্থান হারালেন সাকিব

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইতিহাসের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে তিন ফরমেটের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক নম্বর অলরাউন্ডার ছিলেন সাকিব আল হাসান। সেটি ধরেও রেখেছিলেন দীর্ঘদিন। আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে অলরাউন্ডারের তালিকায় এ বাংলাদেশী তারকা বেশ কয়েকবার ওয়ানডের শীর্ষস্থান হারিয়ে ফেললেও তা পুনরুদ্ধার করেছিলেন, তবে টি২০ ক্রিকেটে হারিয়ে ফেলা আসন ফিরে পাননি। শুধু এক নম্বর অবস্থানটা ধরে রেখেছিলেন টেস্ট ক্রিকেটে। এবার সেটিও হারিয়ে ফেললেন। ঘরের মাটিতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জ্যাসন হোল্ডার অপরাজিত ২০২ রানের রেকর্ডগড়া ইনিংসে উঠে এসেছেন এক নম্বরে। তার রেটিং এখন ৪৪০। আপাতত আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার মধ্যে না থাকা সাকিব পূর্বের সেই ৪১৫ রেটিং নিয়ে নেমে গেছেন দুই নম্বরে। তিন ফরমেটেই অলরাউন্ডার র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান দখল করে রেকর্ড গড়েন সাকিব। তবে বিভিন্ন সময়ে ওই অবস্থান থেকে তাকে হটিয়েছেন অন্য ক্রিকেটাররা। তবে আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে এখন পর্যন্ত যতবারই সাকিব শীর্ষস্থান খুইয়েছেন ততবারই তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে ছিলেন। এখন এ বাংলাদেশের গৌরব ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন জনপ্রিয় টি২০ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টি২০ নিয়ে। নেতৃত্ব দিচ্ছেন ঢাকা ডায়নামাইটসকে। এখন পর্যন্ত ৮ ম্যাচ খেলে ১৭ উইকেট নিয়ে তিনি চলমান আসরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। এবারের বোলিং নৈপুণ্যে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে বিপিএলের ইতিহাসে ১০০ উইকেটের মালিক হয়েছেন সাকিব। আবার ব্যাট হাতেও রান করে যাচ্ছেন। ২৭.০০ গড়ে করেছেন ১৮৯ রান। অর্থাৎ ব্যাটে-বলে এখানেও দুর্বার তিনি। জাতীয় দলের আপাতত বিরতি। আর সেই সুযোগে ফর্মে থাকা সাকিবকে হটিয়ে টেস্ট অলরাউন্ডার হিসেবে শীর্ষস্থানটা দখলে নিয়েছেন ক্যারিবীয় পেস অলরাউন্ডার ও অধিনায়ক হোল্ডার। আট নম্বরে ব্যাট করতে নেমে হার না মানা ২০২ রানের পাশাপাশি কিটন জেনিংস ও জো রুটের উইকেট দুটিও নিয়েছেন তিনি। আর এমন অভূতপূর্ব নৈপুণ্যের কারণেই এবার এই টেস্টে তার রেটিং বেড়েছে তরতরিয়ে। ২০১৪ সালের ২৬ জুন অভিষেকের পর থেকে হোল্ডার ৬৩ ইনিংসে ৩৩.৮৬ গড়ে করেছেন ১৭৬১ রান এবং ২৮.১২ গড়ে নিয়েছেন ৮৮ উইকেট। এ কারণেই এবার অলরাউন্ডার হিসেবে ক্যারিয়ারসেরা ৪৪০ রেটিংয়ে পৌঁছেছেন তিনি এবং ছাড়িয়ে গেছেন সবাইকে। ভারতের রবীন্দ্র জাদেজা ৩৮৭ রেটিং নিয়ে বেশ কিছুটা পিছিয়ে আছেন তিনে। ৪১৫ রেটিং নিয়ে এখন সাকিব টেস্টের দুই নম্বর অলরাউন্ডার। ওয়ানডে ও টি২০ ক্রিকেটেও এ ৩১ বছর বয়সী অলরাউন্ডার আছেন দুই নম্বরে। দীর্ঘ ইনজুরিতে থাকার সময় খেলতে না পারায় ওয়ানডেতে তার শীর্ষস্থান হারাতে হয় আফগানিস্তানের রশিদ খানের কাছে। তবে সর্বশেষ দুই সিরিজে ফিরেই ব্যাটে-বলে দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছেন সাকিব। তাই রশিদকে পেরিয়ে যাওয়ার খুব কাছাকাছি এখন তিনি। রশিদের ওয়ানডে অলরাউন্ডারের র‌্যাঙ্কিংয়ে রেটিং ৩৫৩ আর সাকিবের ৩৫২। তৃতীয় স্থানে থাকা মোহাম্মদ নবির রেটিং ৩৩৭। টি২০ ক্রিকেটেও ইনজুরির কারণে গত বছর অনেকগুলো ম্যাচ খেলতে পারেননি সাকিব। সেই সুযোগে অস্ট্রেলিয়ার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ৩৬২ রেটিং নিয়ে এখন টি২০ অলরাউন্ডার র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে। দুইয়ে থাকা সাকিবের রেটিং ৩৩৯। আর তিনে থাকা নবির রেটিং ৩১৪। এবার বিপিএল টি২০ আসরে যে ফর্মে আছেন সাকিব, আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পারলেই তিনি আবার শীর্ষস্থান পুনর্দখল করবেন এমন সম্ভাবনা অনেক বেশি। বিশেষ করে ওয়ানডেতে তো মাত্র ২ রেটিং পয়েন্টের অপেক্ষা। তবে টেস্ট ও টি২০ ক্রিকেটে অনেকখানি পিছিয়ে পড়েছেন তিনি।