সোমবার ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

ফিক্সিং- আল জাজিরার ডকুমেন্টারি নিয়ে তোলপাড়

  • জড়িত সাবেক পাকিস্তানী তারকা ক্রিকেটার হাসান রাজা ও ভারতের রবিন মরিস

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ক্রিকেটে দুর্নীতি-অনিয়ম আর পাকিস্তান যেন অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত। খেলাটির ইতিহাসের বড় সব কলঙ্কে বারবার উঠে এসেছে দেশটির ক্রিকেটারদের নাম। তাতে নতুন করে আরও এক কালিমা যুক্ত হলো। কাতারভিত্তিক জনপ্রিয় টেলিভিশন চ্যানেল ক্রিকেটের অন্ধকার জগত নিয়ে বিশেষ ডকুমেন্টারি তৈরি করেছে। রবিবারই সেটি প্রচারিত হওয়ার কথা। তার আগেই কিছু ভিডিও ক্লিপস মুক্তি দেয়া হয়। যার একটিতে দেখা যায় সাবেক পাকিস্তানী তারকা ক্রিকেটার হাসান রাজা ও ভারতের আরেক সাবেক ক্রিকেটার রবিন মরিস একটি টি২০ টুর্নামেন্ট আয়োজন করে সেখানে স্পট ফিক্সিং নিয়ে আলোচনা করছেন। উল্লেখ্য, আল জাজিরা চ্যানেল জন্মলগ্ন থেকেই ব্যতিক্রমী সব অনুসন্ধানী নিউজ প্রচার করে বিশ্বব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টি করে।

মূলত আল জাজিরার করা একটি স্টিং অপারেশনের ফলাফল এই ভিডিওচিত্র। আল জাজিরার একজন ছদ্মবেশী রিপোর্টারের সঙ্গে একটি রুমে বসে রাজা ও মরিসকে আলোচনা করতে দেখা যায়। মরিস কথা বললেও রাজা আলোচনায় অংশ নেননি। স্পট ফিক্সিং ও বেটিংয়ের জন্য টি২০ টুর্নামেন্ট আয়োজনের কথা বলেন মরিস। তবে সেখানে এ-গ্রেডের কোন খেলোয়াড় না এনে বি, সি এবং ডি গ্রেডের খেলোয়াড় আনার কথা বলেন। তিনি দুবাই থেকে এমন টুর্নামেন্ট হংকং, জিম্বাবুইয়ে ও শ্রীলঙ্কায় নিয়ে যাওয়ার কথাও আলোচনা করেন। ভিডিও’র আরেক জায়গায় দেখা যায় গৌরব রাজকুমার নামে এক ব্যক্তি আরব আমিরাতে চার দলের টি২০ টুর্নামেন্ট আয়োজন করার কথা বলছেন। মরিসও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। একজন দুর্নীতিগ্রস্ত ক্রিকেটার এমন টুর্নামেন্ট থেকে কত অর্থ উপার্জন করেন সে বিষয়ে কথা বলেন তিনি। এ ব্যাপারে রাজা কোন মন্তব্য করেননি। অন্যদিকে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মরিস। তিনি জানিয়েছেন, চ্যানেলটি তাকে একটি বাণিজ্যিক ঘরানার বিনোদনমূলক সিনেমার অডিশনের জন্য ডেকেছিল। একই রকম কথা বলেছেন রাজকুমার।

এদিকে আল জাজিরার আরেক ভিডিওচিত্রে দেখা গেছে ম্যাচের ফলাফল পরিবর্তনে পিচ ডক্টরিংয়ের প্রমাণ। শ্রীলঙ্কার গলে ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়া ও ২০১৭ সালে ভারতের বিপক্ষে পিচ ডক্টরিংয়ের কথা বলা হয়েছে। সেখানে মরিসকে দেখা গেছে গ্রাউন্ডসম্যান থারিঙ্গা ইন্দিকার হাতে এ জন্য ৩৭ হাজার ডলার তুলে দিচ্ছেন। পাকিস্তান ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সে টেস্ট অভিষেক হওয়া ৩৬ বছর বয়সী রাজা ১৯৯৬ থেকে ২০০৫ সালের মধ্যে ৭টি টেস্ট ও ১৬টি ওয়ানডে খেলেছিলেন। আর ৪১ বছর বয়সী মরিস মুম্বাইয়ের হয়ে ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেট খেলতেন। দু’জনই ২০০৭-০৮ মৌসুমে ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লীগে (আইসিএল, এখন নিষিদ্ধ) মুম্বাই চ্যাম্পের হয়ে খেলেন।

শীর্ষ সংবাদ: