মঙ্গলবার ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মানসিকতার পরিবর্তন

  • জাহেদুল ইসলাম সমাপ্ত

দেশে পারিবারিক সহিংসতার পরিমাণ বাড়লেও পারিবারিক সহিংসতাকে সমাজে অনেকেই ব্যক্তিগত বিষয় বলে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। স্বীকারই করতে চান না এটি একটি অপরাধ। সরকার ২০১০ সালের ১২ অক্টোবর পারিবারিক সহিংসতা (প্রতিরোধ ও সুরক্ষা) আইন-২০১০ প্রণয়ন করেন। তবে প্রচারের অভাবে এখনও অধিকাংশ মানুষ এই আইন সম্পর্কে জানেন না। এ অবস্থায় পারিবারিক সহিংসতার প্রতিকার খুবই দুরূহ। ফলে নারী নির্যাতনের মাত্রা দিন দিন বাড়ছেই। এছাড়া আমাদের দেশের সহিংসতার শিকার নারীরা মামলা করেন না নিরাপত্তা ও মান-সম্মানের ভয়ে। ফলে সহিংসতার ঘটনাগুলো প্রকাশ না পাওয়ায় আইন থাকলেও সুফল মিলছে না।

প্রতিটি জেলায় মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তাকে এ আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়ার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। কিন্তু তারা জানেন না, পারিবারিক সহিংসতার ঘটনার ক্ষেত্রে কী করতে হবে। অধিকাংশ এলাকায় এই আইনের আওতাধীন মামলাগুলো নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ আইনের আওতায় চলে যায়। জেলা পর্যায়ে কিছু নারীবান্ধব পুলিশ স্টেশন থাকলেও উপজেলা পর্যায়ে একবারেই নেই। এছাড়া প্রচলিত সমাজব্যবস্থায় পুলিশ স্টেশন, সরকারের মহিলাবিষয়ক অফিস ও হাসপাতাল সব জায়গায় নারীকেই প্রথমে দোষারোপ করা হয়। গ্রামে সালিশের মাধ্যমে পারিবারিক সহিংসতার কিছু মামলা নিষ্পত্তি করা হয়। এখানে শাস্তি হয় খুবই লঘু প্রকৃতির। তাই এ ধরনের সালিশ ব্যবস্থার প্রতি ভুক্তভোগীর আস্থা ও নিরাপত্তার অভাব থাকে। পারিবারিক সহিংসতার প্রতিকার পাওয়ার জায়গাগুলো থেকে মনে করা হয় যে পারিবারিক সহিংসতা একটি ব্যক্তিগত বিষয় এবং এটি কোন অপরাধ নয়।

লালমনিরহাট থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
ভারতে দৈনিক করোনাভাইরাস সংক্রমণে বড়সড় পতন ঘটেছে         এমসি’তে গণধর্ষণ ॥ কলেজ কর্তৃপক্ষের ব্যর্থতা চ্যালেঞ্জ করে রিট         নকল মাস্ক সরবরাহ ॥ জেএমআই চেয়ারম্যান গ্রেফতার         এমসি কলেজে গণধর্ষণ ॥ আরও ৩ জন রিমান্ডে         সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না পেলে রাজপথ ছাড়বেন না সৌদি প্রবাসীরা         এইচএসসি পরীক্ষা গ্রহণে বোর্ডের তিন প্রস্তাব         দুই আসামির জামিন বাতিলে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট         জাহালমের ক্ষতিপূরণের রায় পিছিয়ে বুধবার         এমসি কলেজে ধর্ষণ ॥ মামলার এজাহারভুক্ত শেষ আসামি গ্রেফতার         ওয়ানডে দিয়ে শুরু বাংলাদেশের নিউ জিল্যান্ড সফর         স্লোভেনিয়ায় বাংলাদেশিসহ ১১৩ অভিবাসী আটক         আজারবাইজানে আর্মেনীয় আগ্রাসনের নিন্দা ওআইসি-র         আজারবাইজান- আর্মেনিয়া যুদ্ধ ॥ নিহত বেড়ে ৯৫         বিশ্বে করোনায় প্রতি ২৪ ঘণ্টায় ৫৪০০ জনের বেশি প্রাণহানি         জরুরি বৈঠকে বসছে নিরাপত্তা পরিষদ         মালির নতুন প্রধানমন্ত্রীর নাম ঘোষণা         ফিলিস্তিনি কিশোরকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিল ইসরাইল!         আজারবাইজানে চার হাজার যোদ্ধা পাঠিয়েছে তুরস্ক : আর্মেনিয়া         পুঁজিবাজারে সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন চলছে         নেদারল্যান্ডে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকাতে নতুন নিয়ম