মঙ্গলবার ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সমাজ ভাবনা ॥ বিষয় ॥ পারিবারিক সহিংসতা

  • স্থিতি বনাম সহিংসতা;###;আরাফাত শাহীন

গ্রামে বাস করার দরুন সেই ছোটবেলা থেকেই যৌথ পরিবার দেখে আসছি। আমাদের দেশে বর্তমান সময়ে যৌথ পরিবার প্রথা বিলুপ্তির পথে হলেও গ্রামে এখনও যৌথ পরিবার প্রথা বিদ্যমান রয়েছে। আমি নিজেও যৌথ পরিবারের একজন সদস্য। আমার দাদা-দাদি বেঁচে থাকাকালীন আমাদের পরিবারে একসঙ্গে বাস করতেন। ছোটবেলা থেকেই দেখে আসছি, আমাদের পরিবার একটি সুদৃঢ় বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে বসবাস করে আসছে। আমাদের পরিবারে কখনও ঝগড়াঝাটি কিংবা সহিংসতার কোন ঘটনা কখনও দেখিনি। বাবা-মা এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের আমরা যেভাবে চলাফেরা করতে দেখেছি বড় হয়ে আমরাও সেভাবে চলাফেরা করতে শিখেছি। আমাদের পাশের বাড়িতে অনেক সময় এমন সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। ফলে সেখানে কোন স্থিতিশীলতা আসেনি। এমনকি এখনও সেসব পরিবারে পারিবারিক সহিংসতার মতো ঘটনা ঘটে চলেছে।

পরিবার হলো একটি শিশুর প্রাথমিক শিক্ষার সবচেয়ে বড় প্রতিষ্ঠান। একটি শিশু সর্বপ্রথম তার বাবা-মায়ের কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে। তারপর সে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কাছ থেকে জীবন পরিচালনার শিক্ষা গ্রহণ করে থাকে। এখানে একটা বিষয় লক্ষণীয় যে, যেসব পরিবারে স্থিতিশীলতা বিরাজ করে সেসব পরিবারের শিশুরা নিজেদের মননশীল মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে সচেষ্ট হয়। একটা শিশুর মানসিক বিকাশে তার চারিপাশের পরিবেশ ও পরিস্থিতি ব্যাপক ভূমিকা পালন করে থাকে। আমরা যদি একটু গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করি তাহলে দেখতে পাব, সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের দেশে ঘটে যাওয়া জঙ্গী হামলাকারী সন্ত্রাসীদের পরিবারে কোন দৃঢ় পারিবারিক বন্ধন ও স্থিতিশীলতা ছিল না। পারিবারিক নানা সমস্যা তাদের এসমস্ত সন্ত্রাসী কর্মকা-ের দিকে ঠেলে দিয়েছে। সুতরাং দেখা যাচ্ছে, সন্ত্রাসী কর্মকা-ের জন্যও পারিবারিক সহিংসতা ভূমিকা পালন করে থাকে।

আমাদের দেশে যে সমস্ত পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা ঘটে বেশিরভাগ সময় তার শিকার হয় নারী এবং শিশুরা। যৌতুকের জন্য নারী নির্যাতনের ঘটনা আমাদের সবার কমবেশি জানা আছে। মাদকাসক্ত স্বামী তার স্ত্রীকে বিনা কারণে প্রহার করে। এভাবে কত শত ঘটনা যে প্রতিনিয়ত আমাদের সমাজে ঘটে চলেছে তার হিসাব আমাদের জানা নেই। যেসমস্ত সংবাদগুলো মিডিয়ার আলোচিত হয় আমরা শুধু সেসবের খবরই জানতে পারি। কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রেই পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা চেপে যাওয়া হয়। আমরা এসব ঘটনা কোনদিনও জানতে পারি না।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
বিশ্বাসযোগ্য ও বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ তৈরি করুন ॥ জাতিসংঘে শেখ হাসিনা         নুরের বিরুদ্ধে অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে আরেক তরুণীর মামলা         রিজেন্টের সাহেদের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জে চেক জালিয়াতির মামলা         নারায়ণগঞ্জে বিস্ফোরণ ॥ আরও একজনের মৃত্যু         করোনা টিকার সমবণ্টনে ১৫৬ দেশের চুক্তি         সৌদির বিমান টিকেটের দাবিতে ঢাকায় প্রবাসী কর্মীদের বিক্ষোভ         শীতের সময় করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা কী ?         মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীর মায়ের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         করোনায় আক্রান্ত ৩ কোটি ১২ লাখ, মৃত্যু ৯ লাখ ৬৩ হাজার         ভারতে তিনতলা ভবনে ধস, নিহত বেড়ে ২০         অস্ট্রেলিয়ার উপকূলে ৯০ তিমির মৃত্যু         ইরানের বিরুদ্ধে আবারও নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের         যুক্তরাষ্ট্রকে মধ্যপ্রাচ্যে তাদের ভবিষ্যৎ নিয়েও ভাবতে হবে ॥ লাভরভ         করোনা ভাইরাস নিয়ে শি জিনপিংয়ের সমালোচনাকারীর ১৮ বছরের কারাদণ্ড         চীনের হয়ে গুপ্তরচরবৃত্তির অভিযোগে নিউইয়র্ক পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার         আমিরাতের মানবসম্পদ মন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ         আর্থিক ক্ষতি না হলে বাড়ি থেকে কাজের পরামর্শ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর         বাড়ছে প্রাইভেট গাড়ি ॥ যানজট নিরসনে গণপরিবহন বাড়ানোর তাগিদ         সাধারণ পরিষদের ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান         রাজধানী হবে যানজটমুক্ত সচল